৭ ডিসেম্বর মেদিনীপুরে একমঞ্চে শুভেন্দু-মমতা, দাবি করছে তৃণমূল সোশ্যাল মিডিয়া

336
মেদিনীপুরের বুকে ফের শুভেন্দু-মমতার একসঙ্গে জনসভা

পূর্ব মেদিনীপুরে একমঞ্চে মমতা শুভেন্দু; এমনটাই দাবি তৃণমূলের। আর এমন খবর তৃণমূল দল তো বটেই; সমর্থকদের জন্যও বিরাট পাওয়া বলা যেতে পারে। এতদিন ধরে তৃণমূল সুপ্রিমোর সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে; দলের ওঠাপড়ায় সব দায়িত্ব সামলেছিলেন যে মানুষটি; তার মন্ত্রীপদ থেকে পদত্যাগ করার পর থেকে; অস্বস্তি বেড়েছে খোদ মুখ্যমন্ত্রীরও। কিন্তু দল তো এত সহজে তাকে বিদায় জানাবে না; তাই তো মঙ্গলবার রাতে বৈঠক হয়েছে টানা দুঘন্টা। প্রথম থেকেই শুভেন্দুর মানভঞ্জনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছিলেন সৌগত রায়; এদিনও চেষ্টায় ত্রুটি রাখেননি তিনি। যদিও তৃণমূলের এই দাবি নিয়ে; কোন কথাই বলেন নি শুভেন্দু অধিকারী।

মঙ্গলবারের বৈঠকে মান-অভিমানের পালা মিটতেই; বর্ষীয়ান তৃণমূল নেতা সৌগত রায় জানিয়ে দিয়েছেন; শুভেন্দু তৃণমূলেই থাকছেন। তবে তিনি এখনই মন্ত্রিত্বে ফিরবেন কিনা, দলনেন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন। তারপরেও শুভেন্দু কিন্তু মুখে কুলুপ এঁটেছেন। তবে, বেশিক্ষন তিনি চুপ করে থাকবেন না; দাবি ছিল সৌগতর। দু’-এক দিনের মধ্যে সাংবাদিক বৈঠক করে; নিজের অবস্থান স্পষ্ট করবেন শুভেন্দু; দাবি ছিল সৌগতর। শুভেন্দু তৃণমূলেই থাকছেন এই কথা শোনার পরই; তৃণমূলের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে একটি ছবি ঘুরপাক খাচ্ছে।

আর পড়ুনঃ “কেন ভুল বার্তা দিচ্ছেন, আপনাদের সঙ্গে আর কাজ করব না”, সৌগত রায়ে ক্ষুব্ধ শুভেন্দু অধিকারী

সেই ছবিতে দেখা যাচ্ছে; আগামি ৭ ডিসেম্বর মেদিনীপুরে একমঞ্চে থাকবেন; মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও শুভেন্দু অধিকারী। যদিও এখনও পর্যন্ত, শুভেন্দু অধিকারী এই নিয়ে কিছু জানাননি। পুরো বিষয়টাই তৃণমূলের সোশ্যাল ওয়েবসাইটে; ঘুরপাক খাচ্ছে। শুভেন্দুর সঙ্গে মঙ্গলবার রাতে টানা; প্রায় দু’ঘণ্টা বৈঠক হয় তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্বের। ওই বৈঠকে সৌগত রায়ের পাশাপাশি ছিলেন; অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

মূলত অভিষেকের সঙ্গে টানাপড়েনেই মন্ত্রিত্ব ছাড়েন শুভেন্দু। এ ছাড়া দলের ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোরও বৈঠকে ছিলেন। স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গেও শুভেন্দুর কথা হয়েছে। তার পরেই বরফ গলেছে বলে দাবি করেন তৃণমূল নেতৃত্ব। কিন্তু এতদিন ধরে যা ঘটল; শুভেন্দুর মন্ত্রীত্ব ত্যাগ থেকে বিজেপি যোগদানের জল্পনা; তাতে কি সত্য বরফ পুরোপুরি গলেছে; নাকি এখনও বাকি। তবে, শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত; তৃণমূলে আর থাকা সম্ভব নয় বলেই; পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন