মধুর প্রতিশোধ, চিদাম্বরম স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী-অমিত জেলে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত-চিদাম্বরম জেলে

881
মধুর প্রতিশোধ; চিদাম্বরম স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী-অমিত শাহ জেলে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ-চিদাম্বরম জেলে/The News বাংলা
মধুর প্রতিশোধ; চিদাম্বরম স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী-অমিত শাহ জেলে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ-চিদাম্বরম জেলে/The News বাংলা

একেই কি বলে মধুর প্রতিশোধ? এটাই কি ভারতীয় রাজনীতির নির্যাস? অভাবনীয় পট পরিবর্তন! পি চিদাম্বরম স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী-অমিত শাহ জেলে; স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ- পি চিদাম্বরম জেলে। গল্প হলেও সত্যি ছাড়া আর কি বলা যেতে পারে? একটা সময় বিজেপি নেতা অমিত শাহ; জেলে ছিলেন। তখন দেশের হোম মিনিস্টার কংগ্রেস নেতা পি চিদাম্বরম। আর পট পরিবর্তনে; সেই চিদাম্বরম এখন জেলে। আর দেশের হোম মিনিস্টার অমিত শাহ।

২০১০ সাল। তখন কংগ্রেস ক্ষমতায়; আর কেন্দ্রে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ছিলেন এই পি চিদম্বরম। সাহাবুদ্দিন এনকাউন্টার মামলায় বাজেভাবে ফেঁসে গিয়েছিলেন অমিত শাহ। জেলে কাটিয়েছিলেন; অনেকটা সময়। বিজেপি নেতা বলেই; কংগ্রেস সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চিদাম্বরম; এই কাণ্ড ঘটাচ্ছেন বলেই অভিযোগ করেছিলেন অমিত শাহ।

আরও পড়ুনঃ চা বানিয়েই প্রধানমন্ত্রী, ভোটে জিততে কি চা ফর্মুলাই বেছে নিলেন মমতা

২০১০ এর পর ২০১৯। অভূতপূর্ব রাজনৈতিক পট পরিবর্তন। সেদিনের জেল ফেরত অভিযুক্ত; সব অভিযোগ থেকে মুক্তি পেয়ে; অমিত শাহ আজ দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। আর সেদিনের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চিদাম্বরম আজ জেলে। অভিযোগ অমিত শাহ সেদিনের প্রতিশোধ নিচ্ছেন। গল্প ছাড়া আর কি? গল্পেও এতটা কল্পনা করতে পারেন না কেউই। অমিত শাহের সেই স্বপ্নও; আজ সফল।

আরও পড়ুনঃ সিবিআই ও ইডির সঙ্গে লুকোচুরি খেলে, অবশেষে গ্রেফতার প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদাম্বরম

সিবিআই চিদম্বরমকে গ্রেফতার করল। আর ঠিক একইভাবে কংগ্রেস দফতরে এসে; চিদম্বরম দাবি করলেন; তিনি নির্দোষ। ২০১০ সালে বিজেপি দফতরে এসে অমিত শাহ; ঠিক এই কথাটাই বলেছিলেন; “আমি নির্দোষ”। ইতিহাসের অদ্ভুত পুনরাবৃত্তি।

আরও পড়ুনঃ বাপ দেশের অর্থমন্ত্রী থাকাকালিন, ঘুষের টাকায় বিদেশে অগাধ সম্পত্তি চিদাম্বরমের ছেলের

মধুর প্রতিশোধ। বলছে গোটা দেশ। তবে বিজেপি থেকে এই নিয়ে কোন মন্তব্য করা হয় নি। কংগ্রেসের তরফ থেকেও; ওই ঘটনার কথা বলা হয়নি। তবে দেশ জুড়ে রাজনৈতিক মহলে; ও সোশ্যাল মিডিয়ায় এখন এটাই আলোচনার বিষয়।

সোশ্যাল মিডিয়ায় এখন এটাই বিষয়; অমিত শাহের প্রতিশোধ। মুখে বিজেপি নেতৃবৃন্দ বা অমিত শাহ স্বয়ং এই বিষয়ে কিছু না বললেও; তাঁদের মুখের হাসি অনেক কথাই বলে দিচ্ছে। সময়, সুযোগ ও কপাল সবটা নিয়েই আজ চিদাম্বরম-অমিতের এই পট পরিবর্তন; বলছে দেশের রাজনৈতিক মহল।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন