আফগানিস্তানে ফিরল ‘যৌনদাসী প্রথা’, ১৫-৪৫ মেয়েদের তালিকা চাইল তালিবান

3560
আফগানিস্তানে ফিরল 'যৌনদাসী প্রথা', ১৫-৪৫ মেয়েদের তালিকা চাইল তালিবান
আফগানিস্তানে ফিরল 'যৌনদাসী প্রথা', ১৫-৪৫ মেয়েদের তালিকা চাইল তালিবান

আফগানিস্তানে ফিরল ‘যৌনদাসী প্রথা’; ১৫-৪৫ মেয়েদের তালিকা চাইল তালিবান। আফগানিস্তানে তালিবানদের উচ্চস্তরের নেতৃত্ব; এমনই নির্দেশ পাঠিয়েছে নিচুস্তরে কাজ করা নেতাদের। বিয়ের জন্য মেয়েদের তালিকা; পাঠাতে বলা হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, ‘১৫ বছরের ঊর্ধ্বে মেয়েদের পাঠাতে হবে; না হলে ৪৫ বছরের কম বয়সি বিধবাদের পাঠানো যেতে পারে’। আফগানিস্তান থেকে আমেরিকা সেনা সরানোর কাজ শুরু করতেই; বেশ কিছুটা হারানো জমি উদ্ধার করে ফের নিজের স্বরূপ প্রকাশ করল তালিবান। তাদের দখলে থাকা এলাকাগুলি থেকে; যৌনদাসী বেছে নেওয়ার কাজ শুরু করেছে তালিবান জঙ্গিরা।

আরও পড়ুনঃ পাক অধিকৃত ভারতের কাশ্মীরে ইমরানের মন্ত্রীদের পচা ডিম ছুঁড়ল মানুষ, গুলি চালাল নেতা

আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা সরতেই; দেশটির ৮০ শতাংশ এলাকা দখল করেছে তালিবান জঙ্গিরা। এলাকা ছেড়ে পালাচ্ছে; কাবুলের সরকারি বাহিনী। ইতিমধ্যেই ইরান, পাকিস্তান, উজবেকিস্তান, তাজাকিস্তানের সীমান্ত লাগোয়া একাধিক অঞ্চল; তালিবান দখল করে নিয়েছে। দখলে থাকা শহরগুলিতে ধর্মগুরুদের উদ্দেশ্যে একটি নির্দেশনামা জারি করেছে; তালিবান কালচারাল কমিশন। সেখানে বলা হয়েছে, ‘তালিবান যোদ্ধাদের বিয়ে দেওয়ার জন্য; পাত্রী চাই। পাত্রীদের বয়স ১৫ বছরের; ঊর্ধ্বে হতে হবে। অথবা বিধবা হলে ৪৫ বছরের; নীচে হতে হবে। তাঁদের বিয়ে করে পাকিস্তানের ওয়াজিরিস্তানে; নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানে সবাইকে মুসলিম ধর্ম; নিতে হবে’।

তালিবান ‘যোদ্ধাদের’ সঙ্গে বাড়ির মেয়েদের ‘বিয়ে’ দিতে; বিভিন্ন শহর ও গ্রামের বাসিন্দাদের উদ্দেশ্যে এই নির্দেশিকা জারি করেছে আতঙ্কবাদী সংগঠন। বিশেষজ্ঞদের মতে, এই বিয়ে যে প্রকৃতপক্ষে যৌনদাসী করে রাখারই সামিল; তা বলাই বাহুল্য। বলা হয়েছে, তাদের তালিবান জঙ্গিদের সঙ্গে বিয়ে দিয়ে; পাকিস্তানে পাঠানো হবে। সেখানেই সবাইকেই আবার; মুসলিম ধর্ম গ্রহণ করতে হবে।

আরও পড়ুনঃ তালিবানের গুলিতে মৃত, ভারতের পুলিৎজার জয়ী চিত্র সাংবাদিক

ধর্মের শাসনের নামে যুক্তিহীন, মুসলিম উগ্রপন্থা; ফের চালু করছে তালিবান। আফগানিস্তানে নতুন করে দখল করা, বহু স্থানে জারি করা হয়েছে; মুসলিম আইনের কট্টরপন্থী নিয়ম। মা-বাবাদের বাধ্য করা হচ্ছে; মেয়েদের জঙ্গিদের সঙ্গে বিয়ের জন্য তাদের হাতে তুলে দিতে। নয় তো আগ্নেয়াস্ত্র; তো আছেই। পরিস্থিতি এমনই যে যাঁদের সুযোগ আছে; আফগানিস্তান ছেড়ে কন্যাসন্তান নিয়ে পালাচ্ছেন। মেয়েদের তুলে নিয়ে গিয়ে, নিজেদের শয্যাসঙ্গিনী করছে; তালিবান জঙ্গিরা।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন