লক্ষ্য গ্রাম পঞ্চায়েতের গদি, ১১ জন তৃণমূল সদস্যকে ‘গানপয়েন্টে’ অপহরণ তৃণমূল নেতারই

3212
লক্ষ্য পঞ্চায়েতের গদি, ১১ জন তৃণমূল সদস্যকে 'গানপয়েন্টে' অপহরণ তৃণমূল নেতারই
লক্ষ্য পঞ্চায়েতের গদি, ১১ জন তৃণমূল সদস্যকে 'গানপয়েন্টে' অপহরণ তৃণমূল নেতারই

কি এমন ‘মধু’ আছে; গ্রাম পঞ্চায়েতে? রীতিমতো বন্দুক দেখিয়ে, তৃণমূল নেতা অপহরণ করল; গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূল সদস্যদেরই! লক্ষ্য পঞ্চায়েতের গদি, ১১ জন তৃণমূল সদস্যকে; ‘গানপয়েন্টে’ অপহরণ তৃণমূল নেতারই। তৃণমূল পরিচালিত পঞ্চায়েতের বিরুদ্ধে, অনাস্থা নিয়ে বিডিও অফিসে বয়ান রেকর্ডের জন্য যাওয়া; ১১ জন তৃণমূল সদস্যকে গানপয়েন্টে রেখে বিডিও অফিস থেকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় বলেই অভিযোগ।অনাস্থার আগে বয়ান রেকর্ড ঘিরে, রোমহর্ষক ঘটনার সাক্ষী থাকল; মালদার হরিশ্চন্দ্রপুরের দৌলতনগর গ্রাম পঞ্চায়েত। চমকে উঠল রাজ্য; হতবাক রাজ্যর রাজনৈতিক মহল।

অপহরণের অভিযোগ পেয়ে, পুলিশি অভিযান চালিয়ে রাত ২টো নাগাদ; অপহৃত ১১ জন তৃণমূল সদস্যকে উদ্ধার করল মালদা পুলিশ। সূত্রের খবর, হরিশ্চন্দ্রপুর থেকে বিহারের কাটিহারে নিয়ে যাওয়ার পথে; ওই তৃণমূল সদস্যদের উদ্ধার করা হয়। অপহরণের অভিযোগে ৩ জনকে; গ্রেফতারও করেছে পুলিশ। খতিয়ে দেখা হচ্ছে; সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ। জেলাশাসকের নির্দেশেই, অজানা দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে; অপহরণের অভিযোগে এফআইআর করেছে পুলিশ।

আরও পড়ুনঃ কোলে শিশুকন্যা নিয়ে এলেন ব্লক অফিসে নাম লেখাতে, গারদে ‘ভুয়ো রূপশ্রী’

অনাস্থা নিয়ে বিডিও অফিসে বয়ান রেকর্ডের জন্য যাওয়া; ১১ জন তৃণমূল সদস্যকে গানপয়েন্টে রেখে বিডিও অফিস থেকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় বলে অভিযোগ। এই ঘটনায় তৃণমূল পরিচালিত পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতির; স্বামীর বিরুদ্ধেই অপহরণে মদত দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। অভিযোগ অস্বীকার করেন; অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা। হরিশ্চন্দ্রপুর ২ নম্বর ব্লকের দৌলতনগর পঞ্চায়েতে; দলেরই প্রধানের বিরুদ্ধে অনাস্থা আনেন সংখ্যাগরিষ্ঠ তৃণমূল সদস্যরা। মঙ্গলবার বয়ান রেকর্ড ও সই যাচাইয়ের জন্য; ১১ জন তৃণমূল সদস্যকে বিডিও অফিসে ডাকা হয়।

আরও পড়ুনঃ জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা থাকা তৃণমূল নেতা, থানায় এসে ফুল দিল আইসি-কে

অভিযোগ, হরিশ্চন্দ্রপুর পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতির স্বামী ও প্রধানের লোকজন; ওই তৃণমূল সদস্যদের আগ্নেয়াস্ত্র দেখিয়ে তুলে নিয়ে যায়। হরিশ্চন্দ্রপুর পঞ্চায়েত সমিতি (২)-র তৃণমূল নেতা ও সদস্য, সামাউল হক; পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতির স্বামীর বিরুদ্ধেই অভিযোগের আঙুল তোলেন। তাঁর অভিযোগ, ঘটনায়; প্রধানের লোকজনও ছিল। যদিও অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা আশরাফুল হকের দাবি; অপহরণের অভিযোগ মিথ্যে। বিরোধী গোষ্ঠীর লোকেরা; আমাদের প্রধানকে অপহরণ করেছে। সবমিলিয়ে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে, উত্তাল মালদার হরিশ্চন্দ্রপুর; চরম অস্বস্তিতে জেলা ও রাজ্য তৃণমূল।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন