ইতিহাসের সবচেয়ে বড় বিশ্বাসঘাতকতা, আমেরিকাকে সাহায্য করা আফগান নাগরিকদের যাবতীয় তথ্য তালিবানের হাতে

4820
ইতিহাসের সবচেয়ে বড় বিশ্বাসঘাতকতা, আমেরিকাকে সাহায্য করা আফগান নাগরিকদের যাবতীয় তথ্য তালিবানের হাতে
ইতিহাসের সবচেয়ে বড় বিশ্বাসঘাতকতা, আমেরিকাকে সাহায্য করা আফগান নাগরিকদের যাবতীয় তথ্য তালিবানের হাতে

আফগানিস্তানে আগেও ছিল তালিবান; আফগান নাগরিকরা আগেও দেখেছে তালিবানের বর্বর রূপ। গত দুসপ্তাহে এটা প্রমাণিত; ২০ বছর আগের মত; অতটা নৃশংস এখনও হয়নি তালিবান। তাহলে, হাজার-হাজার আফগান নাগরিক; কাবুল বিমানবন্দরে কেন ভিড় করেছেন; দেশ ছাড়ার জন্য। তার প্রধান কারণ, মানব ইতিহাসের সবচেয়ে বড় বিশ্বাসঘাতকতা; যার সাক্ষী গোটা বিশ্ব। ২০ বছর ধরে, আমেরিকা ও ন্যাটোর সেনাবাহিনীকে, সাহায্য করা আফগান নাগরিকদের; যাবতীয় তথ্য এখন তালিবানের হাতে। সৌজন্যে আমেরিকা ব্রিটেন; ও তাদের মিত্রশক্তি।

আমেরিকার হাতে থাকা যাবতীয় বায়ো মেট্রিক ডিভাইস; এখন তালিবানের হাতে। যাতে রয়েছে, ২০ বছর ধরে আমেরিকা ও তার বন্ধুদেশ-গুলির সেনাবাহিনীকে সাহায্য করা; যাবতীয় আফগানদের নাম ঠিকানা ও আই স্ক্যান। আফগানিস্তান থেকে সেনা সরিয়ে নেবার ঘোষণার পরেই; আমেরিকা ও ন্যাটোর বাহিনীর হয়ে কাজ করা; যাবতীয় আফগানের হদিশ তালিবানের হাতে চলে যায়। যার ভয়ে দেশ থেকে পালিয়ে যাবার; হিড়িক পরে গেছে আফগান নাগরিকদের মধ্যে।

আরও পড়ুনঃ ‘স্বর্গরাজ্য’, বন্দুকের নল উঁচিয়ে দলে দলে কাবুলে ঢুকছে লস্কর, আইএস, জইশ জঙ্গিরা

শুধু আমেরিকা নয়, তালিবান-দের হাতে চলে গিয়েছে; সমস্ত গোপন তথ্য, এমনটাই আশঙ্কা ব্রিটেনের বিদেশ মন্ত্রকেরও। নথিপত্র নিয়ে পালিয়ে আসার চেষ্টা করলেও, তার আগেই; কাবুলে ব্রিটিশ দূতাবাসে তালিবানিরা হামলা চালায়। প্রাণ বাঁচাতে দূতাবাসের কর্মীরা; সমস্ত কাগজপত্র অফিসে ফেলেই পালিয়ে আসেন বিমানবন্দরে। ব্রিটিশ ফোর্স ও ব্রিটিশ অফিসে কাজ করা; সব আফগানদের যাবতীয় তথ্য এখন তালিবানের হাতে।

আরও পড়ুনঃ আত্মঘাতী হামলায় কাবুলে ১৩ জন মার্কিন সেনাকে উড়িয়ে দিল তালিবান আইএস

দুই থেকে তিনদিনের মধ্যেই যে তালিবানরা, রাজধানী কাবুলের দখল নেবে; তা বুঝতেই পারেনি আমেরিকা ও তার মিত্রশক্তি। আর তাই, তালিবানরা কাবুল দখল নেওয়ার পরই; আফগান ও মার্কিন সেনাকে মদতদাতা এবং অন্যান্য দেশের দূতাবাসের কর্মরত আফগান নাগরিকদের; প্রাণ সংশয় দেখা দিয়েছে। তালিবানিদের হাতে তাদের পরিচয় পৌঁছে গেছে, এবার সেই কাগজপত্র ও বায়ো মেট্রিক ডিভাইস তালিবান খতিয়ে দেখা শুরু করলেই; সোজা বাড়িতে হানা দিয়ে হত্যা বা চরম শাস্তি দেওয়া; হতে পারে বলেও আশঙ্কা করা হচ্ছে। আর সেই কারণেই, হাজার হাজার মানুষ; দেশ ছেড়ে পালাতে ভিড় করেছেন কাবুল বিমানবন্দরে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন