চিন সীমান্তে ভগবান হয়ে পর্যটকদের উদ্ধার ভারতীয় সেনার

786
চিন সীমান্তে ভগবান হয়ে পর্যটকদের উদ্ধার ভারতীয় সেনার/The News বাংলা
চিন সীমান্তে ভগবান হয়ে পর্যটকদের উদ্ধার ভারতীয় সেনার/The News বাংলা

The News বাংলা, দিল্লি: “আমরা ভগবানকে দেখি নি, তবে ভারতীয় সেনাদের দেখেছি”। নাথুলা পাসে আটকে পড়া পর্যটকরা নিরাপদে ফিরে আসার পর এমনই লিখেছেন সেনার উদ্দেশ্যে। ভারত-চিন সীমান্তের নাথুলা পাসে বরফের মধ্যে আটকে পড়া ২৫০০ পর্যটককে প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে উদ্ধার করলেন ভারতীয় সেনা জওয়ানরা।

আরও পড়ুন: রবিবার বাংলাদেশ ভোটে ফের শেখ হাসিনা বনাম খালেদা জিয়া

প্রায় ২৫০০ পর্যটক গিয়েছিলেন চিন সীমান্তে নাথুলা পাসের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করতে। কিন্তু হঠাৎ তুষারপাতে প্রাণ সংশয় হয়ে যায় পর্যটকদের। বরফের মধ্যে আটকে পড়েন তাঁরা। প্রবল তুষারপাতে নাথুলা-র ১৭ মাইল এলাকায় থেকে কিছুতেই বেরতে পারছিলেন না এই ২৫০০ পর্যটক।

আরও পড়ুন: নেতাজী সুভাষচন্দ্র বসুর ‘আজাদ লড়াই’কে সম্মান নরেন্দ্র মোদীর

চিন সীমান্তে ভগবান হয়ে পর্যটকদের উদ্ধার ভারতীয় সেনার/The News বাংলা
চিন সীমান্তে ভগবান হয়ে পর্যটকদের উদ্ধার ভারতীয় সেনার/The News বাংলা

তাঁদের বাঁচাতে ভগবান হয়ে আবির্ভাব হল ভারতীয় সেনার। প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে এই পর্যটকদের উদ্ধার করলেন ভারতীয় সেনা জওয়ানরা। আপাতত তাঁদের সেনার একটি ক্যাম্পে আশ্রয় দেওয়া হয়েছে। পরিস্থিতির একটু উন্নতি হলেই নিজের নিজের এলাকায় পৌঁছে দেওয়া হবে ওই পর্যটকদের।

আরও পড়ুনঃ নরেন্দ্র মোদীর হাতেই উদ্বোধন হচ্ছে ভারতের দীর্ঘতম দোতলা সেতু

গ্যাংটক থেকে শুক্রবার চিন সীমান্তের কাছে নাথুলা পাস, ছাঙ্গু লেক এবং বাবা মন্দির বেড়াতে গিয়েছিলেন পর্যটকেরা। বৃহস্পতিবার থেকেই ওই সব জায়গায় ঝিরঝির করে বরফ পড়ছিল। কিন্তু শুক্রবার দুপুর থেকে তার প্রাবল্য বাড়তে থাকে। ফলে ওই সব এলাকায় আটকে পড়েন প্রায় ২৫০০ পর্যটক।

সীমান্তে ভগবান হয়ে পর্যটকদের উদ্ধার ভারতীয় সেনার/The News বাংলা
সীমান্তে ভগবান হয়ে পর্যটকদের উদ্ধার ভারতীয় সেনার/The News বাংলা

আরও পড়ুনঃ শহীদ জওয়ানকে সম্মান নয়, সেনাকে পাথর ছুঁড়ে দেশদ্রোহীরাই ভারতে ‘নায়ক’

এমনিতেই পর্যটকদের জন্য বিপজ্জনক নাথুলা। যে কোনও সময় তুষারপাত বা তুষারঝড় হতে পারে। তার উপর রয়েছে সীমান্তের ওপারের চিনা সেনার চোখ রাঙানি। কিন্তু এই পরিস্থিতিতেও উচ্চ উচ্চতায় নিজেদের জীবন হাতে নিয়ে দেশরক্ষার কাজ করে চলেছেন সেনা জওয়ানরা।

আরও পড়ুনঃ লোকঠকানির লোন মাপ, রাহুলকে লজ্জায় ফেলে আত্মঘাতী কৃষক

এই নাথুলাতে বেড়াতে গিয়েই বিপদের মুখে পড়েছিলেন পর্যটকরা। নাথুলার দুর্গম ১৭ মাইল এলাকায় আটকে পড়েছিলেন ২৫০০ জন। এদের মধ্যে বহু মহিলা এবং শিশুও ছিল। তুষারপাতের খবর পাওয়ামাত্রই এদের উদ্ধারে ঝাঁপিয়ে পড়ে সেনা।

আরও পড়ুন: লোকসভার আগেই রামমন্দির রায় দিতে সুপ্রিম কোর্টকে আর্জি মোদীর মন্ত্রীর

২৫০০ জনকেই উদ্ধার করা গিয়েছে। এদের সেনা ক্যাম্পে আশ্রয় দেওয়া হয়েছে। খাবার এবং গরম জামাকাপড় সবই দিচ্ছেন সেনা জওয়ানরা। সেনার তরফে জানানো হয়েছে, যতদিন না প্রত্যেক পর্যটককে সুরক্ষিতভাবে গ্যাংটক পৌঁছে দেওয়া যাচ্ছে ততদিন এই অভিযান চলবে।

চিন সীমান্তে ভগবান হয়ে পর্যটকদের উদ্ধার ভারতীয় সেনার/The News বাংলা
চিন সীমান্তে ভগবান হয়ে পর্যটকদের উদ্ধার ভারতীয় সেনার/The News বাংলা

আরও পড়ুনঃ EXCLUSIVE: কলকাতা থেকে পুলিশ ও ব্যবসায়ীদের টাকা যাচ্ছে জঙ্গিদের হাতে

সেনার এক আধিকারিক বলেছেন, ‘প্রায় ৩০০ থেকে ৪০০টি গাড়ি করে পর্যটকরা গিয়েছিলেন। ১৭ মাইল এলাকায় তাঁরা আটকে পড়েছিলেন। ভারত-চিন সীমান্ত দেখে এই গাড়িগুলিতে ফিরছিলেন প্রায় ২৫০০ পর্যটক। খবর পেয়েই কাজ শুরু করে সেনা। পর্যটকদের খাবার, আশ্রয় এবং ওষুধ দেওয়া হয়েছে। দেওয়া হয়েছে গরম কাপড়ও’।

আরও পড়ুনঃ EXCLUSIVE: দিল্লীর নির্ভয়া ধর্ষণ কাণ্ডের পরেও নিরাপত্তাহীন কলকাতার বাস

‘মোট ১৫০০ পর্যটককে ১৭ মাইলের সেনা ক্যাম্পে আশ্রয় দেওয়া হয়েছে। বাকিদের সরিয়ে দেওয়া হয়েছে ১৩ মাইলে। পরিস্থিতির উন্নতি হলেই পর্যটকদের গ্যাংটক পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে। যতক্ষণ না সব পর্যটক গ্যাংটক পৌঁছাচ্ছেন ততক্ষণ পর্যন্ত অভিযান চলবে’। জানিয়েছেন সেনা আধিকারিকরা।

আরও পড়ুন: ২২ বছর পর ফের ভূস্বর্গে রাষ্ট্রপতি শাসন

সীমান্তে ভগবান হয়ে পর্যটকদের উদ্ধার ভারতীয় সেনার/The News বাংলা
সীমান্তে ভগবান হয়ে পর্যটকদের উদ্ধার ভারতীয় সেনার/The News বাংলা

আরও পড়ুন: লোকসভায় মোদীর তিল তালাক বিল বিতর্কে বিরোধিতায় কংগ্রেস বাম তৃণমূল

রাস্তা থেকে বরফ সরিয়ে পর্যটকদের কাছাকাছি পৌঁছন সেনা জওয়ানরা। একে একে সকলকেই উদ্ধার করা হয়। প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের এক শীর্ষ কর্তা জানিয়েছেন, পর্যটকদের মধ্যে শিশু এবং মহিলারাও রয়েছেন। উদ্ধারের পর ১৭ মাইল ছাউনিতে আশ্রয় দেওয়া হয়েছে প্রায় দেড় হাজার পর্যটককে। বাকিদের ১৩ মাইল সেনা ছাউনিতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সকলের জন্য খাবার, পানীয় এবং ওষুধের পাশাপাশি পর্যাপ্ত গরম পোশাকেরও ব্যবস্থা করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: ১১ বছর পর দার্জিলিং কালিম্পঙে তুষারপাতে বেড়ানোর আনন্দ দ্বিগুন

এই ঘটনায় আরও একবার সাধারণ মানুষের কাছে ভগবান হয়ে দেখা দিলেন ভারতীয় জওয়ানরা। স্যালুট ভারতীয় সেনা জওয়ানদের। আর সেনার উদ্দেশ্যে সেটাই লিখলেন উদ্ধার হওয়া পর্যটকরা।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন