পুরোহিত ভাতা-তেও দুর্নীতি, দাস, ঘোষ, সাহা, বিশ্বাস, বামুন না হয়েও তালিকায় তৃণমূল ঘনিষ্ঠরাই

2396
পুরোহিত ভাতা-তেও দুর্নীতি, দাস থেকে সাহা বামুন না হয়েও তালিকায় তৃণমূল ঘনিষ্ঠরাই/The News বাংলা
পুরোহিত ভাতা-তেও দুর্নীতি, দাস থেকে সাহা বামুন না হয়েও তালিকায় তৃণমূল ঘনিষ্ঠরাই/The News বাংলা

পুরোহিত ভাতা-তেও দুর্নীতি, বামুন না হয়েও; তালিকায় তৃণমূল ঘনিষ্ঠরাই। ইমাম-দের ভাতা দেওয়ার পরেই; উঠেছিল পুরোহিত ভাতার দাবি। কয়েকবছর পর, রাজ্যে বিজেপি ঝড়ের আঁচ পেয়ে; গত মাসে পুরোহিত ভাতা দেওয়াার কথা ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যের ৮,০০০ পুরোহিতকে; মাসে ১,০০০ টাকা করে দেবে রাজ্য সরকার। আর সেই প্রকল্পের তালিকা প্রশাসনের হাতে পৌঁছতেই; বিভিন্ন জায়গা থেকে উঠছে দুর্নীতি ও স্বজনপোষণের অভিযোগ। পুরোহিত ভাতা-তেও দুর্নীতি, দাস, ঘোষ, সাহা, বিশ্বাস; বামুন না হয়েও তালিকায় তৃণমূল ঘনিষ্ঠরাই।

আমফান ক্ষতিপূরণ দুর্নীতিতে; হাতেনাতে ধরা পড়ে মুখ পুড়েছে তৃণমূলের। এবার পুরোহিত ভাতার তালিকাতেও; ধরা পড়ল একই রকম দুর্নীতি। অভিযোগ এসেছে, নদিয়ার তেহট্ট থেকে। অভিযোগ, প্রকৃত পুরোহিতদের নাম না থাকলেও; নাম রয়েছে তৃণমূল জেলা পরিষদ সদস্যের স্বামী নিলয় সাহার। এছাড়াও তালিকায় ঘোষ, সরকার, বিশ্বাস পদবির; ব্যক্তিদেরও নাম রয়েছে। যারা কখনো পুরোহিত হতে পারে না; বলে দাবি স্থানীয় পুরোহিত সংগঠনের। এই নিয়ে বিডিওর কাছে অভিযোগ জানিয়েছেন পুরোহিতরা।

আরও পড়ুনঃ স্কুল কলেজ বন্ধ, লোকাল ট্রেনে অনুমতি নয়, দুর্গা পুজোতে রাস্তায় নেমে উৎসব পালনে উৎসাহ কেন

তেহট্ট ১ নম্বর ব্লকের বিডিও, অচ্যূতানন্দ পাঠক; অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করেছেন। তিনি বলেছেন; “তালিকায় যাদের নাম রয়েছে; তাদের কাছে নথি চেয়ে পাঠানো হয়েছে। নথি পরীক্ষা করে; যোগ্য ব্যক্তিদের বেছে নেওয়া হবে”। এদিকে চরম অস্বস্তির মুখে দায় এড়াতে; অজ্ঞাত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করার অভিযোগ এনেছেন; তৃণমূল নেত্রী টিনা সাহা। তাঁর দাবি, “দলেরই কেউ চক্রান্ত করে; আমার স্বামীর নাম তালিকায় ঢুকিয়েছে। আমরা ব্রাহ্মণ নই। এই নিয়ে প্রশাসনের কাছে অভিযোগ জানাবো”।

অন্যদিকে, দক্ষিণ ২৪ পরগনার জয়নগরে অভিযোগ; এলাকার বহু প্রাচীণ মন্দিরের পূজারিদের নাম তালিকায় না থাকলেও; নাম রয়েছে তৃণমূল ঘনিষ্ঠদের। অভিযোগ খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন; স্থানীয় বিধায়ক বিশ্বনাথ দাস। গত সোমবার স্থানীয় প্রশাসনের তরফে; জয়নগরে পুরোহিত ভাতা প্রাপকের; ২১ জনের তালিকা প্রকাশ করা হয়। তাতে পৌরহিত্যের সঙ্গে যুক্ত নন; এমন বেশ কয়েকজন শাসকঘনিষ্ঠের নাম রয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

আরও পড়ুনঃ দেশের প্রতি দায়বদ্ধতা, নিজেদের সম্পত্তির হিসাব দিলেন মোদী, অমিত সহ মন্ত্রীরা

জয়নগর মজিলপুর পুরসভার প্রশাসক তথা কংগ্রেস নেতা সুজিত সরখেলের অভিযোগ; “যে জয়চণ্ডীর নামে জয়নগরের নামকরণ; সেই মন্দিরের পুরোহিতের নাম তালিকায় নেই। অথচ নাম রয়েছে বহু তৃণমূল ঘনিষ্ঠের”। বিধায়কের মদতে শাসকদল নিজের লোকেদের পাইয়ে দিতে; এই তালিকা তৈরি করেছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। স্থানীয় তৃণমূল বিধায়ক বিশ্বনাথ দাস বলেন; “স্বজনপোষণ হয়নি; তবে এটা ঠিক যে তালিকায় ভুল রয়েছে। এমন অনেকের নাম রয়েছে; যারা জীবনে পৌরহিত্য করেননি। তালিকা সংশোধন হবে”।

মমতার পুরোহিত ভাতা ঘোষণার দিনই; বিজেপির অভিযোগ ছিল; “রাজ্য সরকারের এই প্রকল্প আসলে; ভোটের আগে পাইয়ে দেওয়ার অরেক প্রকল্প”। বিভিন্ন জায়গায়, পুরোহিত ভাতার প্রাপকদের তালিকা প্রকাশ হতেই দেখা গেল; অভিযোগ একেবারে মিথ্যা ছিল না। তবে তৃণমূলের তরফ থেকে এগুলোকে; আমফান তালিকার মতই; “ছোট্ট ভুল ঠিক করা হবে” বলা হয়েছে। তবে এই নিয়ে শোরগোল শুরু করেছে; রাজ্য বিজেপি।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন