মুকুল শুভ্রাংশুর হাত থেকে কাঁচরাপাড়া পুরসভা কি ছিনিয়ে নেবে তৃণমূল

197
মুকুল শুভ্রাংশুর হাত থেকে কাঁচরাপাড়া পুরসভা কি ছিনিয়ে নেবে তৃণমূল/The News বাংলা
মুকুল শুভ্রাংশুর হাত থেকে কাঁচরাপাড়া পুরসভা কি ছিনিয়ে নেবে তৃণমূল/The News বাংলা

বিজেপিতে যোগ দেওয়ার কয়েকদিনের মধ্যেই; তৃণমূলে ফিরে এলেন কাঁচরাপাড়া পুরসভার চেয়ারম্যান-সহ; বেশ কয়েকজন কাউন্সিলর। চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যেই; রাজ্যের দু-দুটি পুরসভা’ পুনর্দখলের পথে তৃণমূল কংগ্রেস। নেতাদের আবার বিশ্বাস ফিরছে ঘাসফুলেই; মত তৃণমূলের। তাঁদের দলে ফেরার; আনুষ্ঠানিক ভাবে ঘোষণা হল বৃহস্পতিবারই। দলত্যাগিদের ‘অফিসিয়ালি’ দলে ফিরিয়ে নিলেন; ফিরহাদ হাকিম।

দলত্যাগিদের দলে ফিরিয়ে ফিরহাদ হাকিম; বিজেপিকে উদ্দেশ্য করে জানান, “ভয় দেখিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল তৃণমূল কাউন্সিলরদের”। এও জানান, “আগেই ছিলেন ৫ জন; আরও ৩ জন ফিরবেন”। এখন কাঁচরাপাড়া পুরসভার ২৪টি আসনের মধ্যে; ১৩ জন কাউন্সিলর তৃণমূলের। ফলে পুরসভা দখল এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা।

আরও পড়ুন: মমতার সঙ্গী হয়ে টাটাকে তাড়িয়ে, এখন চরম ভুলের মাসুল দিচ্ছে সিঙ্গুরবাসী

এদিন ফিরহাদ জানান, “কাঁচরাপাড়ায় সংখ্যাগরিষ্ঠ তৃণমূলই; তৃণমূলে ফিরলেন কাঁচরাপাড়ার ৫ কাউন্সিলর”। দিন কয়েক আগেই কাঁচরাপাড়ার কাউন্সিলররা; যোগ দিয়েছিলেন বিজেপিতে। তারপর তারা ফের ফিরে এলেন তৃণমূলে; তাদের নিজের জায়গায়।

ফিরে আসা সদস্যরা জানান; “বিজেপি থেকে তাদের জোর করা হয়েছিল। প্রাণহানির ভয় দেখানো হয়েছিল”। সেই ভয়েই তারা কোনোরকম ভাবনা চিন্তা না করে; চুপ-চাপ বিজেপিতে যোগ দেন। কিন্তু বিজেপিতে যোগ দিলেও; তাদের মন ছিল তৃণমূলের দিকেই। যোগাযোগও ছিল তৃণমূল সদস্যদের সঙ্গে। তাই ফের ফিরে এলেন দলে।

আরও পড়ুন: বাড়িতে মুকুল রায়ের সঙ্গে বৈঠকের জন্য, নেত্রী মমতার ডাকা বৈঠকে গরহাজির সব্যসাচী

কিছুদিন আগের তৃণমূল বিজেপি সংঘর্ষ-এর কথা তুলে; ফিরে আসা অপর এক নেতা জানালেন, সংঘর্ষের পরিস্থিতিতেই; তাদের আরও বেশি করে চাপে রাখা হয়েছিল। বিজেপির দাবি ইচ্ছে না থাকলেও মানতে হয়েছিল। সেই অস্বস্থিকর ঝামেলা থেকেই বেরিয়ে আসতে চাইছিলেন তারা।

লোকসভা নির্বাচনের পরেই তৃণমূল কোণঠাসা হয়ে যায় উত্তর ২৪ পরগনায়। হালিশহর, কাঁচরাপাড়া, নৈহাটি ও ভাটপাড়া পুরসভা দখল করেছিল বিজেপি। মুকুল রায়ের নেতৃত্বে দিল্লি গিয়ে; বিজেপিতে যোগ দেন ৫০জন তৃণমূল কাউন্সিলর। সেখান থেকেই পরিস্থিতি ঘুরছে ধীরে ধীরে।

তৃণমূল বিজেপি সংঘর্ষ পরিস্থিতি শান্ত হতেই; আবার তৃণমূলে ফিরে এলেন হালিশহর ও কাঁচরাপাড়ার কাউন্সিলররা। তৃণমূলের আশা; ভবিষ্যতে এই সংখ্যা বাড়তেও পারে। তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্বের বক্তব্য; “ভুল হয়েই যায়! তবে ভুল বুঝে ফিরে এলে; দল ফের ফিরিয়ে নিতে প্রস্তুত”।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন