শুভেন্দুর সঙ্গে রফা করতে দুই তৃণমূল নেতাকে দায়িত্ব দলের, আগামী সপ্তাহে ফের বৈঠক

1741
শুভেন্দুর সঙ্গে রফা করতে দুই তৃণমূল নেতাকে দায়িত্ব
শুভেন্দুর সঙ্গে রফা করতে দুই তৃণমূল নেতাকে দায়িত্ব

শুভেন্দুর সঙ্গে রফা করতে দুই তৃণমূল নেতাকে; দায়িত্ব দিল দল। প্রশান্ত কিশোরের পরামর্শে ও দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সবুজ সংকেত পেয়েই; শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে বৈঠক করেন; তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়। সৌগতর পাশাপাশি; শুভেন্দুকে বোঝানোর দায়িত্বে আছেন; আরেক সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়। শুভেন্দুর সঙ্গে দলের বৈঠকের ব্যাপারে; এই প্রথম প্রকাশ্যে মুখ খুলল তৃণমূল। সৌগত জানান, “বেশ কিছু দাবি জানিয়েছেন শুভেন্দু; তা জানান হয়েছে দলনেত্রীকে”। আগামী সপ্তাহে ফের; একদফা বৈঠক হতে পারে। বৈঠকে শুভেন্দু নাকি সৌগতবাবুকে জানিয়েছেন; “তৃণমূলেই রয়েছেন তিনি; অন্য কোথাও যাওয়ার ব্যাপারে এখনও ভাবেননি”। বরফ কি গলবে? সেই দিকেই তাকিয়ে তৃণমূল ও রাজনৈতিক মহল।

শুভেন্দু অধিকারীর মানভঞ্জনে; উদ্যোগী তৃণমূল। পরিবহণমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বসেন; তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়। বিধানসভা ভোটের আগে, শুভেন্দুর সঙ্গে দূরত্ব ঘোচাতে চাইছে তৃণমূল। সে জন্য তাঁর সঙ্গে; বৈঠকে বসেন সৌগত। বৈঠক নিয়ে, সৌগতবাবু জানিয়েছেন; ভাইফোঁটার দিন বিকেলে, নিউটাউনে তাঁর সঙ্গে বৈঠক হয় শুভেন্দুর। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশেই শুভেন্দুর সঙ্গে; বৈঠকে বসেন তিনি। বৈঠকে শুভেন্দু তাঁর বক্তব্য জানিয়েছেন। সেই বক্তব্যকে ‘দাবি’ বলে; মানতে নারাজ সৌগতবাবু।

আরও পড়ুনঃ “মতান্তর থেকে বিরোধ, বিরোধ থেকে বিচ্ছেদ”, তৃণমূলে কার সঙ্গে বিরোধে দল ছাড়ার কথা ভাবছেন শুভেন্দু

দুই মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম ও বাঁকুড়ার ‘জমি’ ফেরাতে; শুভেন্দু অধিকারীকেই পর্যবেক্ষক করে; ‘পূর্ণশক্তি’-তে নামিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর সামনে কোনও ‘বাধা’ থাকবে না বলেও; জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল। চার জেলার ৬টি লোকসভা আসনের মধ্যে; চারটিই এখন বিজেপির দখলে। বেশ কিছু বিধানসভা আসনেও; বিজেপি প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে জায়গা করে নিয়েছে। কিন্তু শুভেন্দুকে দায়িত্ব দেবার পরেও; কিছুদিন পরেই ‘পর্যবেক্ষক’ পদই তুলে দেন মমতা।

এর ফলে শুভেন্দুর গতিবিধি; শুধুই মেদিনীপুরে সীমাবদ্ধ হয়ে পড়ে। সেই সব জেলায় নিজের ক্ষমতা; ফিরে পেতে চান শুভেন্দু। সূত্রের খবর, পিকে ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়; জেলার সংগঠনে তদারকি করছেন; তা না-পসন্দ শুভেন্দুর। দল চালানো নিয়েও; আপত্তি তুলেছেন তিনি। তিনি অভিযোগ করেছেন, তাঁর সঙ্গে কথা না বলে; সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে। সৌগত বলেন, “শুভেন্দুর সঙ্গে কী কথা হয়েছে; তা আমি নেত্রীকে জানিয়েছি। আগামী সপ্তাহে ফের তাঁর সঙ্গে; বৈঠকের সম্ভাবনা রয়েছে; তবে দিনক্ষণ ঠিক হয়নি”।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন