বাংলায় এবার হাইকোর্টের বিচারপতিকেই বয়কট, তৃণমূল সরকারের আইনজীবীদের

1764
বিজেপির চাপে কলকাতা হাইকোর্টে পিছু হটল, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারের আইনজীবীরা/The News বাংলা
বিজেপির চাপে কলকাতা হাইকোর্টে পিছু হটল, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারের আইনজীবীরা/The News বাংলা

এটাই বাকি ছিল। সরকারি আইনজীবী ভাস্কর বৈশ্য এর ঘোষণা; যেন সেটাই পূর্ণ করে দিল। বাংলায় এবার হাইকোর্টের বিচারপতিকেই; বয়কট তৃণমূল সরকারের আইনজীবীর। ‘বনগাঁ ইস্যুতে রাজনৈতিক মন্তব্য করছেন; কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায়‘; এই অভিযোগ তুলে বিচারপতির এজলাস বয়কট করার সিদ্ধান্ত সরকারি আইনজীবীদের। বনগাঁ পুরসভা অনাস্থা ভোট মামলায়; হাইকোর্টে তৃণমূলের কড়া সমালোচনা করেন বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায়।

কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায় এর এজলাস বয়কটের পাশাপাশি; তাঁর বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতির কাছে লিখিত অভিযোগও পাঠাচ্ছেন সরকারের আইনজীবীরা। সরকারি আইনজীবী ভাস্কর বৈশ্য এর ঘোষণা; ” হাইকোর্টের বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায় রাজনৈতিক মন্তব্য করছেন; তাঁর কাছ থেকে সুবিচার আশা করি না; বিশেষ একটি দলের কথা প্রতিফলন হচ্ছে তাঁর কথায়”।

আরও পড়ুনঃ শহিদ দিবসের মঞ্চে, মমতার টার্গেটে শুধুই বিজেপি, শোনা গেল না শুধু শহিদ শব্দটাই

এর পরেই হাইকোর্টের বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায় এর এজলাস; বয়কট করার সিদ্ধান্ত তৃণমূল সরকারের আইনজীবীদের। ঘটনায় হইচই পড়ে গেছে গোটা কলকাতা হাইকোর্টে। বনগাঁ পুরসভায় আস্থা ভোট মামলায়; পুরসভার তৃণমূল চেয়ারম্যানকে তুলোধোনা করেন; বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায়।

সিপিএম নেতা ও হাইকোর্টের আইনজীবী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য; The News বাংলা-কে জানিয়েছেন; “সরকারি আইনজীবীদের সিদ্ধান্ত মানেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর সিদ্ধান্ত। বিচারপতিদের মত পছন্দ না হলেই; তাঁকে বয়কট করা হবে; তৃণমূলের কাছে এর বেশি কি আশা করা যায়”।

কংগ্রেস নেতা ও হাইকোর্টের আইনজীবী অরুনাভ ঘোষ; The News বাংলা-কে জানিয়েছেন; “বিচারপতির রায় সরকারের পক্ষে না গেলেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁকে বয়কট করবেন; এ আর নতুন কি? বিচারব্যবস্থায় এটা সরাসরি সরকারি হস্তক্ষেপ”।

বিখ্যাত আইনজীবী অনির্বাণ গুহ ঠাকুরতা; The News বাংলা-কে জানিয়েছেন; “এটা এখনও পর্যন্ত সরকারের আইনজীবীদের সিদ্ধান্ত; আমাদের সঙ্গে এই নিয়ে কোন কথা হয়নি; সরকারের বিচারপতিকে পছন্দ না হলে তাঁর এজলাস বয়কটের ঘটনা ঘটে; এটা নতুন কিছু নয়”।

তবে কলকাতা হাইকোর্টের অধিকাংশ আইনজীবী; বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায় এর এজলাস বয়কটের বিপক্ষে। তাঁদের মত, “সরকারের আইনজীবীদের মাইনে দেয় সরকার; তাঁরা যে কারোর এজলাস বয়কট করতেই পারেন; মামলা নাও লড়তে পারেন। কিন্তু বাকিদের মামলা লড়েই খেতে হয়; তাঁরা কেন কোন বিচারপতিকে বয়কট করতে যাবেন?

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন