সাংসদ দিলীপ ঘোষকে গুলি করে মারার নিদান

1988
সাংসদ দিলীপ ঘোষকে গুলি করে মারার নিদান/The News বাংলা
সাংসদ দিলীপ ঘোষকে গুলি করে মারার নিদান/The News বাংলা

সাংসদ দিলীপ ঘোষকে গুলি করে মারার নিদান। কিন্তু কে গুলি করে মারতে চান; বিজেপি রাজ্য সভাপতি ও সাংসদ দিলীপ ঘোষকে? আসলে এই নিদান দিয়েছেন; তৃণমূলের বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মন্ডল। সোমবার তিনি সাংবাদিকদের সামনেই; প্রকাশ্যে দিলীপ ঘোষকে গুলি করে মারার হুমকি দিয়েছেন। তবে তৃণমূলের তরফে এই ঘটনা অস্বীকার করা হয়েছে। বলা হয়েছে; এই ধরনের কথা বোঝাননি মমতার প্রিয় কেষ্ট।

ফের বেলাগাম; বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মন্ডল। রাজ্যের সরকারি সম্পত্তি নষ্ট করার জন্য; এবার বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে গুলি করে মারা উচিত; বলে বেফাঁস মন্তব্য করলেন অনুব্রত মন্ডল।

আরও পড়ুনঃ ডাক্তারদের সুন্দরী নারীর টোপ দেবেন না, সতর্ক করলেন মোদী

সোমবার নানুরে সভা করেন তিনি। সেখানেই সংবাদমাধ্যমের প্রতিনিধিদের সামনে অনুব্রত এই বিতর্কিত মন্তব্য করেন। তিনি পরিষ্কার জানিয়ে দেন; “সরকারি সম্পত্তির ক্ষতি করার দায়ে গুলি করে মারা উচিত দিলীপ ঘোষকে”।

তারপরেই শুধু বীরভূম জেলা নয়; বিতর্ক ছড়িয়ে পড়েছে গোটা রাজ্যে। বিজেপির তরফ থেকে অনুব্রত মন্ডলকে গ্রেফতারের দাবি তোলা হয়েছে। কেষ্টর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ জানাবে বিজেপি। কিভাবে একজন সাংসদকে গুলি করে মারার নিদান দিতে পারেন এক রাজনৈতিক নেতা; অবাক হয়েছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরাও।

তৃণমূলের তরফ থেকে বলা হয়েছে, অনুব্রত মন্ডল উদাহরণ দিয়েছেন মাত্র। গুলি করে মারার নিদান দেন নি। ওনার বক্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা হচ্ছে। তবে তৃণমূলের তরফে যাই বলা হোক না কেন; অনুব্রত মন্দলের এই মন্তব্য ঘিরে তোলপাড় রাজ্য রাজনীতি।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন