মমতার সভায় গরহাজির তৃণমূল বিধায়ক, অমিত শাহের সভায় দল বেঁধে বিজেপি যোগ

3771
মমতার সভা বয়কট করলেন তৃণমূল বিধায়ক, অমিত শাহের সভায় দল বেঁধে বিজেপি যোগ
মমতার সভা বয়কট করলেন তৃণমূল বিধায়ক, অমিত শাহের সভায় দল বেঁধে বিজেপি যোগ

এবার তৃণমূল নেত্রী মমতার সভাতেই গরহাজির তৃণমূল বিধায়ক; অমিত শাহের সভায় কি দল বেঁধে বিজেপি যোগ? এটাই এখন বড় প্রশ্ন। হুগলির পুরশুড়ায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জনসভা বয়কট করলেন; তৃণমূলের উত্তরপাড়ার বিধায়ক প্রবীর ঘোষাল। তৃণমূলে বেসুরো তালিকায় নতুন সংযোজন; উত্তরপাড়ার বিধায়ক প্রবীর ৷ এদিন হুগলির পুরশুড়ায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভায়; তিনি যাচ্ছেন না বলে আগেই জানিয়ে দিয়েছিলেন; তৃণমূল বিধায়ক। দলের আশঙ্কা বাড়িয়ে তিনি আরও জানিয়েছেন; যা বলার মঙ্গলবারই বলবেন। অমিত শাহের সভায় তিনি, বিজেপি যোগ দেবেন বলেই; রাজনৈতিক মহলের মত।

এই মুহুর্তে হুগলিতে, তৃণমূলের দলিয় রাজনীতিতে; যাঁরা সব থেকে বেসুরো; তার মধ্যে অন্যতম হলেন উত্তরপাড়ার বিধায়ক প্রবীর ঘোষাল। দলের জেলা নেতৃত্ব; তাঁর মতো অনেককেই গুরুত্ব দেন না। দলের কর্মসূচিতেও তাঁকে ডাকা হয় না; বলে অভিযোগ করেছেন প্রবীল। তাঁর অভিযোগ, বর্তমান জেলা সভাপতি দিলীপ যাদবের বিরুদ্ধে। দিন কয়েক আগে নিজের এলাকায় রাস্তা ঠিক না হওয়া নিয়ে; স্থানীয় তৃণমূল পঞ্চায়েতের বিরুদ্ধেও অভিযোগ তুলেছিলেন। সেই পঞ্চায়েতের নেতৃত্বে রয়েছেন; দিলীপ যাদবের দাদা। তাঁকে ভোটে হারাতে, চক্রান্ত করা হচ্ছে বলেও; অভিযোগ করেছিলেন তিনি।

আরও পড়ুনঃ অভিষেকের সভায় গরহাজির তৃণমূল সাংসদ, অমিত শাহের সভায় কি বিজেপি যোগ

জেলা নেতৃত্বের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরেই; মন কষাকষি চলছে প্রবীর ঘোষালের। সেই কারণেই দলের সঙ্গে দূরত্ব বাড়ে তাঁর। শেষ পর্যন্ত খোদ দলনেত্রীর সভা এড়িয়ে; তিনি দলকে চরম বার্তা দিলেন বলেই মনে করা হচ্ছে। তৃণমূলের যে বিধায়করা বিজেপি-তে যেতে পারেন বলে জল্পনা ছড়িয়েছে; সেই তালিকায় অন্যতম প্রবীর ঘোষালের নাম। এদিন মমতার সভায় গরহাজির; সিঙ্গুরের বিধায়ক রবীন্দ্রনাথ ঘোষও।

তবে প্রবীর ঘোষালের এই বিদ্রোহকে; যথারীতি গুরুত্ব দিতে নারাজ তৃণমূল নেতৃত্ব। পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলেন; “কে এলো, কে গেল; তাতে কিছু আসে যায় না”। তবে প্রবীর ঘোষাল অনুপস্থিত থাকলেও; পুরশুড়ার সভায় হাজির হয়ে দলকে স্বস্তি দিয়েছেন আরামবাগের সাংসদ অপরূপা পোদ্দার। অপরূপাও বিজেপি-তে যোগ দেবেন বলে, কয়েকদিন আগেই দাবি করেছিলেন; বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। দলে দ্বন্দ্ব মেটাতে কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়কে চেয়ারম্যান করে; কমিটি গঠন করে দেওয়া হলেও, তাতেও সমস্যা মেটেনি।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন