আমফানের পর একসপ্তাহ বিদ্যুৎ নেই, ইট পড়ল তৃণমূল বিধায়কের মাথায়

3916
আমফানের পর একসপ্তাহ বিদ্যুৎ নেই, ইট পড়ল তৃণমূল বিধায়কের মাথায়
আমফানের পর একসপ্তাহ বিদ্যুৎ নেই, ইট পড়ল তৃণমূল বিধায়কের মাথায়

আমফানের পর একসপ্তাহ কেটে গেলেও; জলের অভাব, বিদ্যুৎ নেই। বিক্ষোভ থামাতে গিয়ে; ইট পড়ল তৃণমূল বিধায়কের মাথায়। বিদ্যুৎ নেই, জল সরবরাহ নেই; তার জেরে ক্ষোভ প্রশমনে গিয়ে; বিক্ষোভকারীদের ছোঁড়া ইঁটে মাথা ফাটল তৃণমূল বিধায়কের। ঘূর্ণিঝড় আমফান চলে যাওয়ার ৭ দিন পরেও; নাদিয়ালের একাংশে বিদ্যুৎ সংযোগ ফেরেনি। যদিও এলাকার একাংশে বিদ্যুৎ এসেছে। এতেই যে অংশে বিদ্যুৎ আসেনি; সেখানকার বাসিন্দারা পথ অবরোধ শুরু করেন। পালটা পথ অবরোধ তুলে নেওয়ার দাবিতে; বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন যে দিকে বিদ্যুৎ এসেছে; সেখানকার মানুষজন। কিছুক্ষণের মধ্যে দুইপক্ষের সংঘর্ষ বাঁধে।

বাংলার বাজারে কালোবাজারি তুঙ্গে, মুরগী ২৫০ টাকা কেজি

বিদ্যুতের দাবীতে, উত্তপ্ত হয়ে ওঠে; নাদিয়াল থানার কাঞ্চনতলা। দ্রুত বিদ্যুৎ ফেরানোর দাবিতে; মঙ্গলবার সকালে এলাকায় পথ অবরোধ করে স্থানীয়রা। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন; এরপরে শুরু হয় দুইপক্ষের ইঁটবৃষ্টির লড়াই। তখন ঘটনাস্থলে পৌঁছান; মেটিয়াবুরুজের তৃণমূল বিধায়ক আবদুল খালেক মোল্লা। ইঁট উড়ে এসে পড়ে তাঁর মাথায়। রক্তাক্ত অবস্থায়; রাস্তার ওপরেই বসে পড়েন তিনি। তাঁর মুখেও আঘাত লাগে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্রের চেহারা নেয়; কলকাতার নাদিয়াল থানা এলাকার কাঞ্চনতলা বদরতলা।

হোসেন শাহকে কৃষ্ণের অবতার বলে মনে করত মানুষ, শেখাচ্ছে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ

আশপাশের কিছু বাড়ি ও দোকানপাটেও; ভাঙচুর করা হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান; মেটিয়াবুরুজ থানার তৃণমূল বিধায়ক আব্দুল খালেক মোল্লা। সংঘর্ষের মাঝে পরে; ইটের ঘায়ে মাথা ফাটে তাঁর। গুরুতর জখম অবস্থায় তাঁকে; সিএমআরআই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। খবর পেয়ে নাদিয়াল থানা থেকে; বিশাল পুলিশবাহিনী গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। আসে আশপাশের মেটিয়াবুরুজ, গার্ডেনরিচ, রাজাবাগান থানার পুলিশ। এলাকায় বসানো হয়েছে পুলিশ পিকেট। এখনও এলাকায় রয়েছে থমথমে পরিস্থিতি।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন