রেড রোডে টপলেস তরুণীর তাণ্ডব, সামলাতে জেরবার কলকাতা পুলিশ

5064
রাস্তায় টপলেস তরুণী, সামলাতে জেরবার পুলিশ
রাস্তায় টপলেস তরুণী, সামলাতে জেরবার পুলিশ

জামা খুলে রাস্তায় দাপাদাপি মদ্যপ তরুণীর; রাতের রাস্তায় মহানাটক। রেড রোডে টপলেস তরুণী; সামলাতে জেরবার কলকাতা পুলিশ। রাতের কলকাতায় বিড়ম্বনায় কলকাতা পুলিশ। মঙ্গলবার গভীর রাতে রেড রোডে; টপলেস অবস্থায় ঘুরতে দেখা যায় এক তরুণীকে। পথচারীদের থেকে খবর পেয়ে; ঘটনাস্থলে আসে ময়দান থানার পুলিশ। তবে মহিলা পুলিশকর্মী না থাকায়; তরুণীর কছে যেতে পারেননি কেউ। তবে ‘নেশাগ্রস্ত’ ছিল ওই তরুণী। ঘটনাস্থলে মহিলা পুলিশ না থাকায়; তাকে কিছুতেই বাগে আনতে পারছিলেন না পুলিশ কর্মীরা।

মঙ্গলবার গভীর রাত। নিশ্চুপ কলকাতা। রাতের রেড রোড তখন জনশুন্য; নিয়ন আলোয় মাখামাখি। এমন মায়াবী পরিবেশ হঠাত্ উত্তাল হয়ে উঠল; অর্ধনগ্ন-মদ্যপ এক তরুণীর তাণ্ডবে। তাঁকে বাগে আনতে নাকানিচোবানি কলকাতা পুলিশের। ওই তরুণীর কাছ থেকে গালিগালাজ তো হজম করতেই হয়; তার সঙ্গে সপাটে চড়ও খেতে হয়েছে এক পুলিশ কর্মীকে।

আরও পড়ুনঃ ধন্য ভারত, চাওয়ালা প্রধানমন্ত্রী, চা বিক্রেতার মেয়ে বায়ুসেনার যুদ্ধবিমানের পাইলট

খবর দেওয়া হয় কন্ট্রোল রুমে। ঘণ্টা খানেকের মধ্যে এসে পৌঁছয়; ছয়-ছ’টি পুলিশের গাড়ি। ঘটনাস্থলে পৌঁছান মহিলা পুলিশ-সমেত পুলিশের উর্ধ্বতন কর্তারাও। শুরু হয় মহিলার সঙ্গে ধস্তাধস্তি। শেষমেশ গাড়িতে মদ্যপ তরুণীকে তুলতে পেরে; হাঁফ ছাড়ে বাঁচেন পুলিশ কর্মীরা।

আরও পড়ুনঃ সুজিত জিতলেও হেরে গেলেন তমোনাশ, রাজ্যের প্রথম কোন বিধায়কের করোনায় মৃত্যু

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে; বেসামাল অবস্থায় তরুণী বেশ কয়েকজন পুলিশকর্মীকে গালিগালাজ করে। এমনকী তাঁকে থামাতে গেলে; পুলিশকর্মীদের মারধরও করে। এ ভাবেই চলে ঘণ্টাখানেক। অবশেষে মহিলা পুলিশকর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে; তরুণীকে হেফাজতে নেন। জানা গিয়েছে; পদ্মপুকুরে তরুণীর বাড়ি।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এক পুরুষ সঙ্গীর সঙ্গে; কলকাতা ময়দানে বসে মদ্যপান করেন। তারপর সেই সঙ্গীর কাছেই ব্যাগ রেখে; জামা খুলে নেশাগ্রস্ত অবস্থায়, রেড রোড ধরে হাঁটতে থাকে। পরে, পুরুষ সঙ্গীটি চলে গেলে; রাত বাড়তেই রেড রোডের কাছে অর্ধনগ্ন অবস্থায় তরুণী তাণ্ডব শুরু করে। সেই সময়ই পথচারীরা; তাকে অর্ধনগ্ন অবস্থায় দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন