‘যৌনতা কেন্দ্রিক পর্যটনে’ বিশ্বের সেরা ২০টি বেড়াতে যাবার জায়গা, দ্বিতীয় পর্বে ১০টি

15982
‘যৌনতা কেন্দ্রিক পর্যটনে’ বিশ্বের সেরা ২০টি বেড়াতে যাবার জায়গা
‘যৌনতা কেন্দ্রিক পর্যটনে’ বিশ্বের সেরা ২০টি বেড়াতে যাবার জায়গা

পর্যটন এখন আর শুধুমাত্র; ঘুরে বেড়ানোর মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। পর্যটনে এখন লেগেছে; উদ্দাম যৌনতার ছোঁয়া। পর্যটন ও সেক্স এর টানে; বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পাড়ি জমাচ্ছেন পর্যটকরা। কোন কোন দেশ পছন্দ তাদের? এক নজরে দেখে নিই; যৌনতা কেন্দ্রিক বিনোদনের (Sex Tourism) জন্য বিশ্বের সেরা ২০টি ঠিকানা। দ্বিতীয় পর্বে থাকল; বাকি আরও ১০টি জায়গার কথা।

প্রথম পর্ব পড়ুনঃ ‘যৌনতা কেন্দ্রিক পর্যটনে’ বিশ্বের সেরা ২০টি বেড়াতে যাবার জায়গা, প্রথম পর্বে ১০টি

১১) জামাইকা
শুধুমাত্র দেশের দেহব্যবসায়ীরাই নন; ভ্রমণরত বহু মহিলা পর্যটকও; এ দেশে শরীর বিকোতে দ্বিধাবোধ করেন না। তাই দেশটি বিশ্বের নানা দেশের নারী-পুরুষরকে; সহজেই আকৃষ্ট করছে।

১২) কেনিয়া
আফ্রিকার এই দেশে; যৌন ব্যবসার নানান রূপ। স্ট্রিপ ডান্সবার থেকে শুরু করে; বিভিন্ন রিসোর্ট ও স্পা-তে সুলভে দৈহিক চাহিদা; পূরণের ব্যবস্থা রয়েছে এখানে। এমনকি ছুটি কাটাতে এসে; টানা কয়েক দিনের জন্যও সঙ্গী মেলে কেনিয়ায়।

১৩) লাস ভেগাস
আমেরিকার এই শহর; সব পেয়েছির ঠিকানা। শহরে যৌনতার রমরমা সম্পর্কে, ইঙ্গিত করতে বলা হয়; হোয়াট হেপেনস ইন ভোস; রিমেইনস ইন ভেগাস। এখানে যৌনতা শুধু ব্যবসা অথবা বিনোদন নয়; শরীরী ভাষা উদযাপনেরও মাধ্যম। মরুভূমি অধ্যূষিত নিসর্গে অচেনা সঙ্গীর; দেহজ সান্নিধ্য বেঁচে থাকার ক্ষণিক রসদ জোগায় বই কি!

১৪) গ্রিস
ব্যবসায়িক যৌনতা বৈধ গ্রিসে। প্রতি ২ সপ্তাহ অন্তর অন্তর চিকিতৎসকরা; দেহপসারীনিদের বিনামূল্যে পরীক্ষা করেন। তবে এখানে বহু মহিলাই; বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে পাচার হয়ে আসেন। গ্রিসের দেহ-দাস প্রথার বিরুদ্ধে; আন্দোলনে শামিল হয়েছেন মানবাধিকারকর্মীরা।

১৫) ভেনেজুয়েলা
ভেনেজুয়েলার মার্গারিটা দ্বীপে; অসংখ্য রিসর্টে যৌনতার অবাধ আয়োজন। এদেশে যৌন ব্যবসা বৈধ। পর্যটন-ক্লান্ত পুরুষদের অভ্যর্থনা জানাতে; হোটেলের লবিতে নগ্ন সুন্দরীদের সারিবদ্ধ উপস্থিতি; রেওয়াজ হয়ে দাঁড়িয়েছে। চব্বিশ ঘণ্টা হিসেবে এখানে; যৌনকর্মীদের ভাড়া করার ব্যবস্থা রয়েছে। তবে কামতাড়িতা মধ্যবয়সীনিদের জন্য; তরতাজা তরুণও এখানে সহজলভ্য।

১৬) আমস্টারডাম
কথিত আছে, নেদারল্যান্ডের এই শহরেই বিশ্বের সেরা সুন্দরী; দেহ ব্যবসায়ীদের দেখা মেলে। এখানে যৌন ব্যবসা সম্পূর্ণ বৈধ ও সরকার নিয়ন্ত্রিত বলে; অত্যন্ত নিরাপদ। এখানকার যৌন ব্যবসার খ্যাতি; সারা বছর কয়েক কোটি পর্যটককে আকর্ষণ করে।

১৭) জাপান
বিশ্বের যৌন পর্যটন মানচিত্রে; জাপানি সেক্স ট্যুরের চাহিদা এখন প্রবল। দস্তুর মতো পরিকল্পনার মাধ্যমে; বিভিন্ন বাজেটের যৌন পর্যটনের ব্যবস্থা রয়েছে এ দেশে।

১৮) ব্রাজিল
শুধুমাত্র ফুটবল বা কফি নয়; লাতিন সুন্দরীদের দেহের ভাঁজে কুপোকাত গোটা দুনিয়া। এই বিষয়টি মাথায় রেখেই, যৌন পর্যটনের অন্যতম সেরা ঠিকানা হিসেবে; গত এক দশকে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে ব্রাজিল। দেহ-বিলাসের বিবিধ উপকরণের সম্ভার; সাজানো আছে এখানে।

১৯) কোস্টারিকা
জলপাই রঙা ত্বক, ভরাট নিতম্ব ও গভীর স্তন বিভাজিকায়; সমৃদ্ধ সে দেশের নারী। দেহব্যবসার হাত ধরে; দেদার ডলার কামাচ্ছে দেশটি।

২০) কানাডা
যৌনতার বাজারে; সবে খাতা খুলেছে কানাডা। আমেরিকানরাই এখানকার দেহব্যবসায়ীদের; প্রধান খদ্দের। যৌনতা সম্পর্কে এখানকার ঢিলেঢালা আইন; প্রতিবছর কাতারে কাতারে পর্যটককে আকর্ষণ করছে কানাডার নানা প্রান্তে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন