ট্রাক ভর্তি বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার, সাফল্য ভারতীয় সেনার

234
ট্রাক ভর্তি বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার, সাফল্য ভারতীয় সেনার/The News বাংলা
ট্রাক ভর্তি বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার, সাফল্য ভারতীয় সেনার/The News বাংলা

ভারত পাকিস্তান একাধিক সংঘর্ষের পর; এক বড়সড় নাশকতার হাত থেকে রক্ষা পেল ভারত। সাফল্য ভারতীয় সেনার। জম্মু কাশ্মীর সীমান্ত বরাবর; একটি ট্রাক থেকে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র; ও গোলাবারুদ উদ্ধার করেছে নিরাপত্তা সেনা। পুলিশি তদন্ত সূত্রে জানা গিয়েছে; পাকিস্তানের জইশ জঙ্গির সঙ্গে যুক্ত সন্ত্রাসবাদীদের এই ট্রাকটি।

জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশ বৃহস্পতিবার কাশ্মীরগামী একটি ট্রাক থেকে; বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার করেছে। এই ঘটনায় আটক করা হয়েছে; তিন জাইশ-ই-মোহাম্মদ সন্ত্রাসীদেরকে। এখন পুলিশের হাতে প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে সেইসব কূট চক্রান্তকারী জঙ্গি।

আরও পড়ুনঃ বেলি ড্যান্সের পরে জলসা করতে চলেছেন ইমরান খান

সূত্রের খবর অনুযায়ী; ট্রাকটি শ্রীনগরে যাচ্ছিল। এবং পাঞ্জাব-জম্মু সীমান্তে কাঠুয়া; এবং লখনপুরের মাঝামাঝি জায়গায় এসে দাঁড়ায় ট্রাকটি। ট্রাকটি পুলিশের সামনে আসার সময়; যুদ্ধ অস্ত্রগুলো লূকানো অবস্থায় ছিল; পরে তল্লাশি করে সেগুলো উদ্ধার করা হয়।

এই ট্রাকটি থেকে পাঁচটি AK- 47 এবং সাড়ে চার লাখ টাকা বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। এসএসপি কাঠুয়া শ্রীধর পাতিল বলেছেন; তিন জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে ট্রাক থেকে; দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে; তদন্ত থেকে জানা যাচ্ছে তিনজনই জাইশ-ই-মহম্মদ সম্পর্কিত।

আরও পড়ুনঃ পাকিস্তান আর চিনকে শায়েস্তা করতে মিসাইল পরীক্ষা করল ভারত

এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিংহ বলেছিলেন; “পাকিস্তান থেকে পাঠান সন্ত্রাসবাদীদের কূটনৈতিক চক্রান্ত এখনও অব্যাহত রয়েছে। গোয়েন্দা সূত্রে অনুমান করা হচ্ছে; কাঠুয়া থেকে উদ্ধার করা এই অস্ত্র ও গোলাবারুদ; আসলে পাকিস্তানের পরবর্তী হামলার আশঙ্কাকে বোঝাচ্ছে।

গত সপ্তাহে জাতীয় সুরক্ষা উপদেষ্টা অজিত দোভাল বলেছেন; কাশ্মীর উপত্যকায় শান্তি বিঘ্নিত করতে এবং স্বাভাবিকতা রোধ করার লক্ষ্যে প্রচুর অস্ত্র পাচার হচ্ছে। তিনি আরও জানান; পাকিস্তান প্রেরিত সীমান্ত সন্ত্রাসবাদের কারণে ৪২,০০০ এরও বেশি লোক প্রাণ হারিয়েছে।

আরও পড়ুনঃ পাকিস্তানের পর, সীমান্তে মুখোমুখি সংঘর্ষে ভারত চিন সেনাবাহিনী

ট্রাক ভর্তি এমন বিস্ফোরক; অস্ত্র এবং গোলাবারুদ কোন বড়সড় হামলাকেই নির্দেশ করছে বলে মনে করছেন; গোয়েন্দা সূত্র। পরিমাণ দেখেই তাজ্জব গোটা দেশ। সীমান্তে এই ট্রাক পুলিশের হাতে ধরা না পড়লে; আরও একটা পুলওয়ামা হতে পারত বলে আশঙ্কা দেশবাসীর। তবে পরবর্তী পদক্ষেপে সতর্কতা বাড়াতে; দৃঢ প্রতিজ্ঞবদ্ধ ভারতীয় সেনাবাহিনী।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন