“কলকাতায় জল জমার জন্য দায়ী উত্তরাখণ্ড”, ঘোষণা ফিরহাদ হাকিমের

6135
"কলকাতায় জল জমার জন্য দায়ী উত্তরাখণ্ড", ঘোষণা ফিরহাদ হাকিমের

“কলকাতায় জল জমার জন্য দায়ী উত্তরাখণ্ড”; ঘোষণা ফিরহাদ হাকিমের। কলকাতা ও শহরতলির রাস্তায় জল জমার জন্য; উত্তরাখণ্ড রাজ্যকে দায়ী করলেন রাজ্যের পর্যটন মন্ত্রী ও কলকাতা পুরসভার মুখ্য প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম। বৃহস্পতিবার জমা জল নিয়ে প্রশ্নের মুখে; এমন কথাই বলেন তিনি। ফিরহাদ বলেছেন, “উত্তরাখণ্ডে প্রবল বৃষ্টিতে গঙ্গার জলস্তর বৃদ্ধি পেয়েছে বলেই; এবার কলকাতা ভাসছে”। ফিরহাদের এমন দাবিতে পালটা কটাক্ষ ছুঁড়ে দিয়েছেন; নবনিযুক্ত রাজ্য বিজেপি সভাপতি সুকান্ত মজুমদার।

বাংলায় বন্যার জন্য, এর আগে বারবারই; ঝাড়খণ্ড এবং ডিভিসিকে দায়ী করে এসেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার। খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা একবার বলেছিলেন, ঝাড়খণ্ডের বাঁধ থেকে জল ছাড়ার জন্য; বাংলায় বন্যা হচ্ছে। পাশাপাশি মেদিনীপুর সহ বিভিন্ন এলাকায় বন্যা হলে; তিনি বারবার ডিভিসির জল ছাড়ার বিরুদ্ধে তোপ দাগেন। তিনি বারবারই অভিযোগ করে বলেন যে, রাজ্যকে না জানিয়েই; ডিভিসি জল ছেড়েছে বলেই বন্যা হয়েছে। ম্যান মেড বন্যা বলে; ডিভিসিকেই এতদিন দায়ী করা হত।

আরও পড়ুন; হিন্দু দেব-দেবী নিয়ে যা খুশি, হিজাব পরিহিতা মা দুর্গার ছবি আঁকলেন বাংলার চিত্রশিল্পী

এবার সেই তালিকায়, উত্তরাখণ্ডর নাম যোগ করলেন; মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। এদিন ফিরহাদ হাকিম বলেন, ‘গঙ্গাও থইথই করছে। অর্থাৎ ওপর থেকে, উত্তরাখণ্ড থেকে জলটা; হইহই করে আসছে। এরকম বৃষ্টি তো হয়নি। যেটা গত কয়েকদিনের মধ্যে হয়েছে’। এই কারণেই, ফিরহাদ হাকিম; উত্তরাখণ্ড রাজ্যকে দায়ী করলেন। তিনি স্পষ্ট জানালেন যে, “কলকাতায় জল জমার জন্য দায়ী; উত্তরাখণ্ডের প্রবল বৃষ্টি আর গঙ্গার জলস্তর বৃদ্ধি”।

এর আগে ফিরহাদ হাকিম কলকাতায় জল জমার জন্য; শুভেন্দু অধিকারীকেও দায়ী করেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, “শুভেন্দু অধিকারী সেচমন্ত্রী পদে থাকাকালীন; কোনও কাজ করেন নি বলেই কলকাতাকে ভাসতে হচ্ছে”। পালটা বিজেপির নতুন রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার বলেন; ‘উনি নদীবিজ্ঞানে; নতুন তত্ত্বের প্রবর্তন করলেন। সরকারের উচিত ছিল যে সব জায়গায় জল জমেছে; সেখানে বিদ্যুতের তারগুলির অবস্থা খতিয়ে দেখা। তাহলে এতগুলো প্রাণ যেত না। সেসব না করে অন্য রাজ্যের ঘাড়ে; দায় ঠেলছেন উনি’। এবার কলকাতার রাস্তায় জল জমা নিয়েও; শুরু হল তৃণমূল বিজেপি তরজা।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন