শরীর সুস্থ রাখতে কোন কোন শাক বেশি উপকারী, জেনে নিন

379
শরীর সুস্থ রাখতে কোন কোন শাক বেশি উপকারী, জেনে নিন/The News বাংলা
শরীর সুস্থ রাখতে কোন কোন শাক বেশি উপকারী, জেনে নিন/The News বাংলা

বাঙালির খাদ্য তালিকায় অন্যতম শাক-সবজি। এটি শুধুমাত্র সুস্বাদু খাবার হিসেবেই নয়; পুষ্টিগুণ রক্ষায়ও বিশেষ উল্লেখযোগ্য। আমরা সবাই কমবেশি শাক খেতে ভালোবাসি। অনেক শাক আমাদের শরীরের জন্য বেশি উপকারী। শাক খেলে শরীরের রক্তচাপ ভালো থাকে; আবার হিমোগ্লবিনের মাত্রাও বৃদ্ধি পায়। তাই কোন কোন শাক খেলে আপনি বেশি উপকারিতা পাবেন; তা জেনে নিন এই প্রতিবেদন থেকে।

পালং শাক পালং শাক অন্ত্রের ভেতরে জমে থাকা মল সহজে বের করে দিতে সহায়তা করে। যার কারণে যাদের কোষ্ঠকাঠিন্য আছে; তাদের জন্য এই শাক খুবই উপকারী। আবার পালং শাকের বীজ; কৃমি ও মূত্রের রোগ সাড়ায়। এর কচি পাতা ফুসফুস; কণ্ঠনালীর সমস্যা; শরীরে জ্বালাপোড়া সমস্যা দূর করতেও সাহায্য করে।

আরও পড়ুনঃ কীভাবে শরীরে হিমোগ্লোবিনের পরিমাণ ঠিক রেখে সুস্থ থাকবেন

লাল শাক লাল শাক রক্তে হিমোগ্লোবিন বাড়ায়। ফলে যাদের রক্তস্বল্পতা বা অ্যানিমিয়া আছে তারা নিয়মিত লাল শাক খেলে রক্তস্বল্পতা পূরণ হবে। এই শাকের লৌহ দেহে হজম শক্তি বাড়ায়।

কলমি শাক কোষ্ঠকাঠিন্য হলে কলমি শাকের সঙ্গে আখের গুড় মিশিয়ে শরবত বানিয়ে খেলে ভালো উপকার পাওয়া যায়। আমাশয় হলেও এ শরবত কাজ করে। প্রসূতি মায়েদের শিশুরা যদি মায়ের দুধ কম পায় তাহলে কলমি শাক ছোট মাছ দিয়ে রান্না করে খেলে মায়ের স্বাস্থ্য ভালো হয়।

আরও পড়ুনঃ শরীর চর্চা বিষয়ে সচেতন হলে ব্যবহার করুন উপকারী নিম ও হলুদ

কচু শাক কচু শাকে প্রচুর ভিটামিন সি থাকে। এছাড়া জ্বরের সময় রোগীকে শরীরের তাপমাত্রা কমানোর জন্য; দুধ কচু খাওয়ালে বেশ উপকার পাওয়া যায়। অনেক ক্ষেত্রে ওল; কচুর রস; উচ্চ রক্তচাপের রোগীকে প্রতিষেধক হিসেবে এই শাক খাওয়ানো হয়।

পুঁই শাক সর্দি ও কোষ্ঠকাঠিন্য সাড়াতে দধি এবং পুঁইশাক; সেদ্ধ করে খেলে ভালো উপকার পাবেন। এছাড়া পুঁইপাতা থেঁতো করে ব্রণের ওপর প্রলেপ দিলে; ব্রণ নিরাময়ের ক্ষেত্রে চমৎকার ফল পাওয়া যায়।

মেথি শাক এতে রয়েছে রক্তের চিনির মাত্রা কমানোর বিস্ময়কর শক্তি। প্রতিদিন সকালে খালি পেটে মেথি বা মেথি পাতা চিবিয়ে খেলে; বা এক গ্লাস মেথি ভেজানো জল খেলে শরীরের রোগ-জীবাণু বিশেষত কৃমি মরে; রক্তের চিনির মাত্রা কমে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন