সরকারি কর্মীদের ‘ডিএ’ ফের ‘বিশ বাঁও জলে’, স্যাট-এর নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে হাইকোর্টে রাজ্য সরকার

2643
সরকারি কর্মীদের 'ডিএ' ফের 'বিশ বাঁও জলে', স্যাট-এর নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে হাইকোর্টে রাজ্য সরকার
সরকারি কর্মীদের 'ডিএ' ফের 'বিশ বাঁও জলে', স্যাট-এর নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে হাইকোর্টে রাজ্য সরকার

বিধানসভা ভোটের আগে, আর বকেয়া ডিএ পাচ্ছেন না; রাজ্য সরকারি কর্মচারীরা। সরকারি কর্মীদের ‘ডিএ’; ফের ‘বিশ বাঁও জলে’। স্যাট-এর নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে; কলকাতা হাইকোর্টে গেল রাজ্য সরকার। ছয় মাসের মধ্যে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের মহার্ঘভাতা মিটিয়ে দেওয়া নিয়ে, স্যাট-এর নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়েই; হাইকোর্টের দ্বারস্থ হল পশ্চিমবঙ্গ সরকার। হাইকোর্টে ডিভিশন বেঞ্চে; এই আপিল মামলার শুনানি আগামী ৩ ডিসেম্বর। গত ২৩ সেপ্টেম্বর স্যাট; রাজ্যের পুনর্বিবেচনার আবেদন খারিজ করে দেয়। সেই নির্দেশ চ্যালেঞ্জ করে, ফের আইনি লড়াই; হাইকোর্টে নিয়ে গেল রাজ্য। আর এর জেরেই, বিধানসভা ভোটের আগে; বকেয়া ডিএ প্রাপ্তি ‘অসম্ভব’ বলেই; মনে করছে সরকারি কর্মচারী সংগঠনগুলি।

গত, ২৩ সেপ্টেম্বর, রাজ্য সরকারের আবেদন খারিজ করে দেয়; স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইব্যুনাল (স্যাট)। জানায়, রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের; বকেয়া ডিএ দিতেই হবে। এখন করোনা পরিস্থিতির জন্য; ডিএ দেওয়া সমস্যা বলে রাজ্যের পক্ষে জানানো হলে; স্যাট জানায় এনিয়ে ভাবনাচিন্তা করে দেখা হবে। স্যাটের বিচারপতি রঞ্জিতকুমার বাগ ও প্রশাসনিক সদস্য সুবেশকুমার দাস; এই রায় দেন।

আরও পড়ুনঃ স্বয়ং মমতা কি চান, শুভেন্দু তৃণমূলে থাকুন, শুভেন্দুকে একযোগে অ’শা’লীন আ’ক্রমণ ফিরহাদ ও কল্যাণের

ষষ্ঠ বেতন কমিশন চালু হলেও; ডিএ নিয়ে কোনও উদ্যোগ ছিল না সরকারের। ২০১৯ সালের ২৬ জুলাই রাজ্য সরকারকে স্যাট নির্দেশ দিয়েছিল; পরবর্তী ছ’মাসের মধ্যে রাজ্য সরকারি কর্মীদের ডিএ দিতে হবে। রাজ্য সরকার তা না-দেওয়ায়, সরকারি কর্মীদের সংগঠন স্যাটে; আদালত অবমাননার মামলা দায়ের করে। রাজ্য পুনরায় স্যাটে রিভিউ পিটিশন দায়ের করে। গত ৩ মার্চ ২০২০; রিভিউ পিটিশনের শুনানি শেষ হয়। বকেয়া ডিএ দেবার রায় ঘোষণা হয়। কিন্তু সেই নির্দেশ অমান্য করে নবান্ন। তার জেরে স্যাট-এ রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে; আদালত অবমাননার মামলা দায়ের করে কর্মী সংগঠনগুলি।

এই পরিস্থিতিতে স্যাট-এর রায়ের বিরুদ্ধে; আদালতে রিভিউ পিটিশন দাখিল করে রাজ্য সরকার। গত জুলাই মাসে সেই আবেদন খারিজ করে; রায় বহাল রাখে কলকাতা হাই কোর্ট। গত ২৩ সেপ্টেম্বর স্যাট-এর তরফে জানানো হয়; ১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে রাজ্যকে বকেয়া মহার্ঘভাতা মিটিয়ে দিতে হবে। সেই নির্দেশকে ফের চ্যালেঞ্জ করে; এবার হাই কোর্টে রিট পিটিশন জমা দিল পশ্চিমবঙ্গ সরকার।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন