রাজ্যের পুরসভার হাসপাতালই নিল না, মমতার স্বাস্থ্যসাথী কার্ড

1022
রাজ্যের পুরসভার হাসপাতালই নিল না, মমতার স্বাস্থ্যসাথী কার্ড
রাজ্যের পুরসভার হাসপাতালই নিল না, মমতার স্বাস্থ্যসাথী কার্ড

গল্প হলেও সত্যি! রাজ্যের পুরসভার হাসপাতালই নিল না; মুখ্যমন্ত্রী মমতার স্বাস্থ্যসাথী কার্ড। অবাক করা কাণ্ড, কোন বেসরকারি হাসপাতাল নয়; রাজ্যের পুর-হাসপাতালেই গৃহীত হল না স্বাস্থ্যসাথী কার্ড। উল্টে বিল না মেটানো অব্দি; মৃতদেহ আটকে রাখার অভিযোগ উঠল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। অভিযোগের তীর, দমদম পুর হাসপাতালের বিরুদ্ধে। পুর হাসপাতালের এই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই; মঙ্গলবার সকালে উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়। যদিও স্থানীয় পুর প্রশাসকের দাবি, “এখনও এই হাসপাতাল; স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের আওতায় আসেনি। তাই পরিষেবা দেওয়া সম্ভব হয়নি”।

জানা যায়, দমদম পুরসভার ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা; ৪৯ বছরের চম্পা দে-কে গত ২৭ ডিসেম্বর হৃদযন্ত্রের সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রোগীর পরিবারের অভিযোগ, স্বাস্থ্যসাথী কার্ড থাকা সত্ত্বেও; তার পরিষেবা পাননি ওই মহিলা। হাসপাতালের বিল মেটাতে গিয়ে; পরিবারকে জমি বন্ধক পর্যন্ত দিতে হয় বলে অভিযোগ। স্বাস্থ্যসাথী কার্ড দেখিয়েও কোন লাভ হয় নি। সোমবার রাত ৯টা ৪৫ নাগাদ; দমদম পুর হাসপাতালেই মৃত্যু হয় তাঁর।

আরও পড়ুনঃ ‘দেশপ্রেম দিবস’, ‘জাতীয় ছুটি’, ‘দেশনায়ক দিবস’, ‘পরাক্রম দিবস’, রাজনীতির দড়ি টানাটানিতে নেতাজী সুভাষ

মৃতের পরিবারের অভিযোগ, হাসপাতালের তরফে জানানো হয়; বিলের বকেয়া টাকা না দিলে; মৃতদেহ ছাড়া হবে না। এরপর মঙ্গলবার সকালে চম্পাদেবীর জামাই; নিজের মোটরবাইক বিক্রি করে; টাকা এনে হাসপাতাল থেকে মৃতদেহ ছাড়িয়ে নিয়ে যান। মৃতের পরিবারের বক্তব্য, একটি অ্যাপ নির্ভর পরিবহণ পরিষেবা সংস্থায়; কাজ করেন চম্পাদেবীর জামাই। হাসপাতালের অমানবিক মুখের জন্য; সেই মোটর বাইকও বিক্রি করতে হল।

চম্পাদেবীর পরিবারের প্রশ্ন; “সরকার দুয়ারে ঘুরে ঘুরে; স্বাস্থ্যসাথী কার্ড দিচ্ছে। সকলকে বলছে; হাসপাতালে গেলেই পরিষেবা। অথচ পুরসভার হাসপাতালই; মমতার সেই কার্ড নিচ্ছে না”। স্থানীয় পুর প্রশাসক হরিন্দর সিংয়ের বক্তব্য; “তাঁদের পুর হাসপাতালকে এখনও; স্বাস্থ্যসাথীর আওতায় আনা হয়নি। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যেই; সেই প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হয়ে যাবে। তারপর থেকে, সকলেই সরকারি প্রকল্পের পরিষেবা পাবেন।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন