“বিজেপি ক্ষমতায় এলে, প্রথমেই বাংলায় চালু হবে আয়ুষ্মান ভারত”, বড় ঘোষণা অমিত শাহর

1685
"বিজেপি ক্ষমতায় এলে, প্রথমেই বাংলায় চালু হবে আয়ুষ্মান ভারত", বড় ঘোষণা অমিত শাহর

“বিজেপি ক্ষমতায় এলে; প্রথমেই বাংলায় চালু হবে আয়ুষ্মান ভারত”; বড় ঘোষণা করলেন অমিত শাহ। পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা ভোটে, ২০০ আসন জেতার টার্গেট; আগেই ঠিক করে দিয়েছিলেন অমিত শাহ। এবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর গলায় শোনা গেল, এরাজ্যে বিজেপি ক্ষমতায় এলে; প্রথম ক্যাবিনেট বৈঠকেই রাজ্যে আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প চালুর কথা। হাওড়ার ডুমুরজলা সভায়, ভার্চুয়াল ভাষণে অমিত শাহ বলেন; “ক্ষমতায় এসে প্রথম ক্যাবিনেট বৈঠকেই; আয়ুষ্মান ভারত চালু করব”। কেন্দ্রীয় সরকারের স্বাস্থ্য বিমা প্রকল্প; আয়ুষ্মান ভারতের আওতায়; বর্তমানে ৬০ কোটি মানুষ এই বিমার সুবিধা পাচ্ছেন; ও বছরে পাঁচ লক্ষ টাকা অবধি প্রয়োজনে চিকিৎসায় খরচা করতে পারছেন। রাজ্যে এই প্রকল্প চালু করতে দেন নি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

২০১১ সালের ২৩ মে, ক্ষমতায় এসে প্রথম ক্যাবিনেটের বৈঠকেই; সিঙ্গুরে টাটাদের কারখানার জন্য নেওয়া জমির মধ্যে; ৪০০ একর জমি ফিরিয়ে দেওয়ার ঘোষণা করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার বিজেপি ক্ষমতায় এলে; রাজ্য মন্ত্রীসভার প্রথম বৈঠকেই; বাংলায় চালু হবে আয়ুষ্মান ভারত; এমনটাই ঘোষণা করে দিলেন অমিত শাহ।

আরও পড়ুনঃ গান্ধী পরিবারের বাইরে কেউ দলের সভাপতি নয়, ফের এক ‘গান্ধী’কেই চাইছে কংগ্রেস

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বারবার চিঠিতে, আয়ুষ্মান ভারত রাজ্যে চালু করতে লিখেছেন; কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন। কিন্তু তাতে কান দেন নি মমতা। পশ্চিমবঙ্গ যোগ দেয় নি; কেন্দ্রের আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পে। মমতার দাবি, রাজ্যে যখন স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প আছে; তখন কেন্দ্রের প্রকল্পের কী প্রয়োজন। আর তাই ভোটের মুখে, এই নিয়ে সবচেয়ে বেশি সরব হয়েছেন; অমিত শাহ। তাই ঘোষণা করে দিলেন; “বাংলায় বিজেপি ক্ষমতায় এলেই; আয়ুষ্মান চালু হবে”।

গত কয়েকবছর ধরে কেন্দ্র ও রাজ্যের মধ্যে, যে কয়েকটি বিষয়ে সংঘাত চরমে উঠেছে; তার মধ্যে অন্যতম হল ‘আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প’। মোদী সরকারের এই প্রকল্পকে, বাংলায় চালু না করা নিয়ে; রাজ্যের শাসকদলকে ক্রমাগত আক্রমণ করেছে বিজেপি। অন্যদিকে ভোটের আগে, রাজ্যে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প চালুকে; ভোটের ‘গেমচেঞ্জার’ হিসেবে দাবি করছে তৃণমূল কংগ্রেস এই পরিস্থিতিতে আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প চালুর কথা বলে; আদতে তৃণমূলের দাবি করা ‘স্বাস্থ্যসাথী অ্যাডভানটেজ’-কেই; কি কেড়ে নিতে চাইলেন অমিত শাহ? এটাই এখন বড় প্রশ্ন।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন