মহিলা বক্সারকে হেনস্থা, ফেসবুক পোস্ট দেখেই এক ঘন্টার মধ্যে গ্রেফতার তিন অভিযুক্ত

9749
মহিলা বক্সারকে হেনস্থা, ফেসবুক পোস্ট দেখেই এক ঘন্টার মধ্যে গ্রেফতার তিন অভিযুক্ত/The News বাংলা
মহিলা বক্সারকে হেনস্থা, ফেসবুক পোস্ট দেখেই এক ঘন্টার মধ্যে গ্রেফতার তিন অভিযুক্ত/The News বাংলা

কলকাতায় মহিলা বক্সারকে হেনস্থা; ফেসবুক পোস্ট দেখেই; এক ঘন্টার মধ্যে গ্রেফতার তিন অভিযুক্ত। কোন থানায় কোন অভিযোগ জমা পড়ে নি; তা সত্ত্বেও শুধুমাত্র অভিযোগকারিণীর ফেসবুক পোস্ট দেখেই এক ঘন্টার মধ্যে; তিন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে; মানুষের ভরসা ফের ফিরে পাবার দিকে একধাপ এগুলো কলকাতা পুলিশ।

শুক্রবার সকালে মহিলা বক্সার সুমন কুমারী; ফেসবুকে একটি পোস্ট করে কলকাতা পুলিশকে জানান; মোমিনপুরের কাছে কয়েকজন যুবক তাঁকে হেনস্থা করেছে। কোন অভিযোগের অপেক্ষা না করেই; ওই পোস্টের ভিত্তিতেই সাউথ পোর্ট থানায়; একটি মামলা রুজু করা হয়।

আরও পড়ুনঃ জ্যোতি বসু স্মারক মিউজিয়ামের জমি জট কাটাতে বৈঠকে, মমতা ও বাম

ডিসি পোর্টের নেতৃত্বে সিসিটিভি ফুটেজ খুঁটিয়ে দেখে; পোর্ট ডিভিশনের অফিসারদের তৎপরতায়; এক ঘন্টার মধ্যে গ্রেফতার করা হয় তিন অভিযুক্তকে। এদের নাম রাহুল শর্মা, শেখ ফিরোজ এবং ওয়াসিম খান। পুলিশ জানিয়েছে; জেরায় নিজেদের অপরাধ স্বীকার করেছে অভিযুক্তরা। তাদের শনিবার আদালতে তোলা হবে।

আরও পড়ুনঃ বছরে কত টাকা কাটমানি তোলেন তৃণমূল নেতারা, হিসাব দেখে চমকে যাবেন মুকেশ আম্বানিও

রাতের শহর নিরাপদ রাখতে কলকাতা পুলিশ সচেষ্ট আছে নিরন্তর; পাশে থাকার অনুরোধ করা হয়েছে কলকাতা পুলিশের ফেসবুক পেজে। অভিযুক্তদের ছবি দিয়ে; ঘটনার কথা ফেসবুকে পোস্ট করে জানিয়েছে কলকাতা পুলিশ।

আরও পড়ুনঃ বিজেপি ও বুদ্ধিজীবীদের পর এবার অশান্ত ভাটপাড়ায় তৃণমূল পরিষদীয় দল

আর এই ঘটনায় কলকাতা পুলিশের উদ্যোগের প্রশংসা করেছে কলকাতার সাধারণ মানুষ। তবে ঘটনাস্থলে যে পুলিশ কর্মীর কাছে; সুমন কুমারী প্রাথমিক অভিযোগ জানিয়েছিলেন; তাঁর কি শাস্তি হবে; সেই নিয়ে কিছু জানায়নি কলকাতা পুলিশ।

কারণ সুমন কুমারী ঘটনার পরেই কাছেই থাকা এক পুলিশ কর্মীর কাছে; অভিযোগ জানিয়েছিলেন। কিন্তু তিনি কোন কিছু না শুনেই; তাঁকে থানায় গিয়ে অভিযোগ করতে বলেছিলেন। যাই হোক, এই ঘটনায় কলকাতা পুলিশের; চটজলদি উদ্যোগের প্রশংসায় আমজনতা।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন