“রাত ৯টার পর রাস্তায় বেরনো নারীরা ‘পতিতা’, তাদের ধর’ষণ করাই উচিৎ”, ঘোষণা কেরলের মৌলানার

3257
"রাত ৯টার পর রাস্তায় বেরনো নারীরা 'পতিতা', তাদের ধর'ষণ করাই উচিৎ", ঘোষণা কেরলের মৌলানার

“রাত ৯টার পর রাস্তায় বেরনো নারীরা ‘পতিতা’; তাদের ধর’ষণ করাই উচিৎ”; ঘোষণা কেরলের এক মৌলানার। সম্প্রতি কেরালার একটি ভিডিও ক্লিপ; দেশ জুড়ে ভাইরাল হয়েছে। বিতর্কিত সেই ক্লিপে দেখা এবং শোনা যাচ্ছে; একজন মুসলমান মৌলানা, ভারতীয় নারীদের বিরুদ্ধে অবমাননাকর মন্তব্য করেছেন। ভাইরাল ভিডিওতে কেরালার বিখ্যাত আলেম মাওলানা স্বালিহ বেথেরিকে, বলতে শোনা গিয়েছে; ‘যে মহিলারা রাত নটার পর রাস্তায় বের হয়; তারা পতিতা ছাড়া আর কিছুই নয়। তাদের ধর’ষণ হওয়াই উচিত; তাদের অবিলম্বে হত্যা করা উচিত’। এরপরেই দেশজুড়ে শোরগোল; শুরু হয়েছে।

বিতর্কিত ভিডিওতে, মৌলানা স্বালিহ বেথেরি (Swalih Bathery); ২০১১ সালে সৌম্য নামে এক মেয়েকে ধর’ষণ করে হ’ত্যা করার জন্য; ধর’ষক গোবিন্দচামিকে রীতিমতো সাপোর্ট করেছেন। তিনি সৌম্য মামলার রায়দানকারী বিচারপতিদের; সমালোচনা করেছেন। স্বালিহের বক্তব্য অনুযায়ী, গোবিন্দচামি সৌম্যকে; ধর’ষণ করে বেশ করেছিল। কারণ তার মতে, রাত নটার পর রাস্তায় ভ্রমণকারী; প্রতিটি মেয়েই বে’শ্যা। ২০১৬ সালে সুপ্রিম কোর্ট; অভিযুক্তের বিরুদ্ধে মৃত্যুদণ্ডের রায় খারিজ করে এবং ধর’ষণের জন্য মাত্র ৭ বছরের কারাদণ্ড দেয়।

আরও পড়ুনঃ যে স্টেশনে চা বেচতেন, আজ সেই স্টেশনকেই হেরিটেজ বানিয়ে উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী মোদী

হ্যাচিনসন-গিলফোর্ড প্রোজেরিয়া সিন্ড্রোম (এইচজিপিএস; Hutchinson-Gilford Progeria Syndrome or HGPS); বা ‘বেঞ্জামিন বটন’ (Benjamin Button) রোগে আক্রান্ত; ২৭ বছর বয়সী আলেম স্বালিহ বেথরি। তাই তাকে শিশু হুজুরের; মতো দেখাচ্ছে। তবে এই প্রথম নয়, স্বালিহ বেথরি; সবসময় বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য‌ই পরিচিত। তবে মুসলিম ধর্মের অনেকেই; এই মৌলানার মন্তব্যের সঙ্গে একমত নন।

আরও পড়ুনঃ করোনা আবহেও পণ্য রফতানিতে ভারতের রেকর্ড, বাড়ছে দেশের বাণিজ্য ঘাটতিও

সৌম্য, নামের ওই যুবতী, কেরলের এরনাকুলামের একটি মলে; চাকরি করতেন। যখন তিনি সিরিয়াল কিলার ও অপরাধী গোবিন্দচামীর সঙ্গে, একই ট্রেনে করে বাসায় ফিরছিলেন; তখন তাকে আক্রমণ করা হয়েছিল এবং ছিনতাই করা হয়েছিল। গোবিন্দচামি তার পরে ট্রেন থেকে নেমে, সৌম্যর উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে; তাঁকে পাথর দিয়ে আঘাত করে এবং ধর’ষণ করে। ভুক্তভোগী সৌম্য পাঁচদিন পরে; মারা গিয়েছিলেন। সেই মামলায় অপরাধীর পক্ষে দাঁড়িয়ে; মৃত যুবতীর সমালোচনা মুসলিম মৌলানার।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন