বাঙালি গবেষকের চমকপ্রদ আবিষ্কার বাতাসেই মারছে করোনা ভাইরাস

8774
বাঙালি গবেষকের চমকপ্রদ আবিষ্কার বাতাসেই মারছে করোনা ভাইরাস
বাঙালি গবেষকের চমকপ্রদ আবিষ্কার বাতাসেই মারছে করোনা ভাইরাস

বাঙালি গবেষকের চমকপ্রদ আবিষ্কার; বাতাসেই মারছে করোনা ভাইরাস। বাতাসেই করোনা ভাইরাস মারবে মেশিন; চমকপ্রদ আবিষ্কার বাঙালি গবেষকের। বাতাসে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসকে; আটকানোর উপায় কী? সরকার থেকে অবশ্য এর জন্য; স্প্রের বন্দোবস্ত করা হয়েছে। কিন্তু করোনার মতো অতি ক্ষুদ্র ভাইরাসকে মারতে; সেটা কতটা কার্যকরী, তা নিয়ে সন্দেহ থেকেই গেছে। এই পরিস্থিতিতে একটা যন্ত্র বানিয়ে ফেলেছিলেন; দিল্লির দুই গবেষক। বাঙালি গবেষক ও তাঁর সঙ্গীর আবিষ্কার; এয়ারলেন্স মাইনাস করোনা। এবার সব জায়গায়; স্বীকৃতির মুখে।

প্রথমবার এমন যন্ত্র; আবিষ্কৃত হয় দেশে। তাও আবার এক বাঙালি গবেষকের; হাত ধরেই। মেঘনাদ সাহা, জগদীশ চন্দ্র বসু যে জাতির গর্ব; তাঁরা আরও একবার দেখিয়ে দিল; বাঙালি আজও তাঁদের সেই গৌরব ধরে রেখেছে। আইআইটি খড়গপুরের বাঙালি ডাঃ দেবায়ন সাহা ও এইমসের গবেষক শশী রঞ্জনের অনবদ্য আবিষ্কার করোনা শুরুর সময়েই চমকে দিয়েছিল দেশকে। দেশ থেকে করোনা নির্মূল করতে; এই আবিষ্কার নিঃসন্দেহে উল্ল্যেখযোগ্য ভূমিকা নিচ্ছে।

বাতাসে ছড়িয়ে পড়া ভাইরাসকে; মারতে পারে এই বিশেষ যন্ত্র। নাম এয়ারলেন্স মাইনাস করোনা। খড়গপুর আইআইটি-র প্রাক্তনী দেবায়ন সাহা এবং এইমসের প্রাক্তনী শশী রঞ্জন; আগেও একসঙ্গে নানান কাজ করেছেন। তাঁরাই তৈরি করেছিলেন; পিএম মাইনাস ২.৫। মোটরগাড়ির দূষণকে উল্লেখযোগ্য পরিমাণে; কমিয়ে আনতে সক্ষম সেই যন্ত্র। আর দেশব্যাপী মহামারীর সময়েও; তাঁরা নিয়ে এসেছিলেন তাঁদের আরেক আবিষ্কার।

আরও পড়ুনঃ করোনা আবহে পকেট ভেন্টিলেটর আবিষ্কার করে, বিশ্বে সাড়া ফেলে দিলেন বাঙালি বিজ্ঞানী

খোলা রাস্তা, সিনেমা হল, শপিং মলের মতো জায়গায়; যেখানে মানুষের ভিড় হয়, সেখানে বসাতে হবে এই মেশিন। করোনা ভাইরাসকে মারতে; কাজ করবে ‘Airlens Minus Corona’ বা এয়ারলেন্স মাইনাস করোনা নামে ওই যন্ত্র। মেশিন চালু করলেই, সেখান থেকে বেরিয়ে আসবে; অতি সূক্ষ্ম জলকণা। তবে সাধারণ জলকণা; নয় সেগুলো। বৈদ্যুতিক শক্তির সাহায্যে; জল আয়নায়িত করে রাখা হবে। আর সেই আয়নায়িত জলকণার সংস্পর্শে এলেই; মারা পড়বে ভাইরাস।

আপাতভাবে যন্ত্রটির প্রণালী; বেশ সহজ। করোনা ভাইরাসের মধ্যে থাকা চার্জকে; ডিসচার্জ করবে জলের আয়ন। ফলে তার জারণ ক্ষমতা; পুরোপুরি লোপ পাবে। অর্থাৎ করোনার বিশেষত্ব দিয়েই; করোনা বধ। শুধু অপেক্ষা এখন; সরকারের তরফ থেকে স্বীকৃতির।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন