কেন সব ধরণের ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেন যুবরাজ

186
কেন সব ধরণের ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেন যুবরাজ/The News বাংলা
কেন সব ধরণের ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেন যুবরাজ/The News বাংলা

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেন; ২০১১-র বিশ্বকাপের ‘হিরো’ যুবরাজ। বিশ্বকাপের মধ্যেই অবসর ঘোষণা করলেন; ভারতের অন্যতম সেরা ক্রিকেটার। সোমবার মুম্বইয়ে সাংবাদিক সম্মেলনে; অবসরের কথা ঘোষণা করলেন যুবরাজ সিং।

যুবরাজ বলেন, “অসংখ্য ক্রিকেট ভক্তের ভালোবাসা পেয়েছি; পরিবারকে সব সময় পাশে পেয়েছি। ভারতের হয়ে অনেক ম্যাচ খেলেছি; ন্যাটওয়েস্ট থেকে ২০১১ বিশ্বকাপ। একাধিক ম্যাচ সারা জীবন আমার মনে থাকবে; মনে থাকবে অনুর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ জয়ও”।

২০১৭ সালের ৩০ জুনের পর; আর ভারতের হয়ে খেলতে পারেননি। ৩৭ বছর বয়সী ক্রিকেটার; এবার বিদায়ই বললেন সব ধরণের ভারতীয় ক্রিকেট থেকে। তবে পেশাদার ক্রিকেটকে এখনই বিদায় বলছেন না; খেলে যেতে চান ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটে। আইপিএলে আর খেলবেন না; দেশের বাইরের আইসিসি অনুমোদিত বিভিন্ন টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টেই এখন মনযোগ দিতে চান।

সংবাদসংস্থা পিটিআই-কে বিসিসিআই-এর এক কর্তা জানিয়েছেন; “আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার কথা ভাবছিলেন যুবরাজ; অবসর নিলেন প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট থেকেও। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে টি২০ ক্রিকেট খেলার জন্যই; সব ধরণের ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেন যুবরাজ”।

বিসিসিআই-এর ওই কর্তার কথায়; “যুবরাজ জিটি ২০ (কানাডা), ইউরো টি২০, হল্যান্ডে বা আয়ারল্যান্ডে ফ্রিল্যান্স কেরিয়ার নিয়ে; বিস্তারিত বিসিসিআই-কে জানাতে পারেন। কারণ আইসিসি অনুমোদিত; ফরেন টি২০ লিগে খেললে; বিসিসিআই-এর অনুমতি নিতে হয়”।

সম্প্রতি ইরফান পাঠান বিসিসিআই-এর অনুমতি না-নিয়েই; ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে নাম নথিভূক্ত করেন। এরপরই ইরফানকে নাম তুলে নেওয়ার; নির্দেশ দেয় বিসিসিআই। এ ক্ষেত্রে বিসিসিআই-এর ওই কর্তার বক্তব্য; “যুবরাজও বিদেশি টি২০ লিগে খেলতে পারবেন কিনা; তা আমাদের খতিয়ে দেখতে হবে”।

বিসিসিআই এর ওই কর্তার দাবি, “এমনকি যদি যুবরাজ প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট থেকে অবসর নেন; তা হলেও টি২০ প্লেয়ার হিসেবে বিসিসিআই-এ রেজিস্টার্ড প্লেয়ার; আইনটি খতিয়ে দেখা হবে”৷ ২০০০ সালে অভিষেক হয়েছিল; ভারতের হয়ে এনে দিয়েছেন মনে রাখার মতো অনেক মুহূর্ত।

২০০২ সালে লর্ডসে ন্যাটওয়েস্ট সিরিজ জয়ের সেই মুহূর্ত। ২০০৭ টি২০ বিশ্বকাপে স্টুয়ার্ট ব্রডকে; ছয় বলে ছয়টি ছয় মারা। ২০১১ বিশ্বকাপে ভারতের দ্বিতীয় বিশ্বকাপ জয়ে; ম্যান অব দ্য টুর্নামেন্ট হওয়া। যুবরাজ মানেই এরকম অনেক অসাধারণ মুহূর্ত। এর মধ্যে ক্যান্সারের মতো মারণব্যধি ছোবল দিয়েছিল তাঁকে; কিন্তু দমাতে এতটুকু পারেনি।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন