‘ভারতকে বয়কট’, কোন দেশের হিম্মত নেই, গবেটদের গল্পের গরু গাছে উঠেছে

142
'ভারতকে বয়কট', কোন দেশের হিম্মত নেই, গবেটদের গল্পের গরু গাছে উঠেছে
'ভারতকে বয়কট', কোন দেশের হিম্মত নেই, গবেটদের গল্পের গরু গাছে উঠেছে
Simple Custom Content Adder

‘ভারতকে বয়কট’, কোন দেশের হিম্মত নেই; গবেটদের গল্পের গরু গাছে উঠেছে। ভারতীয় পণ্য নাকি বয়কটের ডাক দিয়েছে; আরব দেশগুলো আর মুসলিম দেশগুলো। তাই নাকি ভয় পেয়েছে ভারত; সোশ্যাল মিডিয়া ছেয়ে গেছে এই সব পোস্টে। আসলে পোস্টগুলো করছে; বাংলাদেশী মুসলিমরা। সবচেয়ে অবাক লাগছে, দেশের কিছু অন্ধ ভক্তও; এই সুরে তাল মিলিয়েছে। আরব দেশগুলো থেকে নাকি, কোটি কোটি ভারতীয়দের ছাঁটাই করা হবে; হাসব না কাঁদব বুঝে উঠতে পারিনা, এইসব সবজান্তা’দের দেখে।

কয়েকটা তথ্য পরিষ্কার করে দেওয়া যাক;
১. যারা ভারতীয় পণ্য বয়কটের কথা বলছে; তাদের নিজেদের দেশের সামর্থ্য সম্পর্কে কোন ধারনাই নাই। আর দু একটা দেশের, দু একটি ডিপার্টমেন্টাল স্টোরের মাথামোটা ধার্মিক কি করল; তাতে ভারতের কিস্যু যায় আসে না।
২. ফেসবুকে আরবের দেশগুলোতে ভারতীয় পণ্য বয়কটের যে গালগপ্পো শোনা যাচ্ছে; তার ৯০ ভাগই গুজব। হ্যাঁ, অল্প কিছু সুপার মার্কেট, ভারতীয় পণ্য তাদের দোকানগুলো থেকে সরিয়ে নিয়েছে। গুগল করলেই দেখতে পারবেন; সেটাই হাতেগোনা কয়েকটা কোম্পানি; সেই দেশেই তাদের কোন ভূমিকা নেই।

আরও পড়ুন; নতুন ভারতে আপোষ নয়, ভারতীয় পণ্য নিষিদ্ধ করার ‘পাল্টা’ দিলেন ভারতীয়রা

৩. দুদিন ভারত থেকে গম না পেলে; ইউরোপ, বাংলাদেশ আর আরব দেশগুলো কান্নাকাটি শুরু করে। ইতিমধ্যেই কাতার ভারতের পায়ে পরে গেছে; খাদ্যদ্রব্য পাওয়া নিয়ে। ভারতের পণ্য বয়কট করতে হবে না, ভারত দুদিন গম আটা ময়দা না পাঠালে; আরব সহ বিশ্বের বহু দেশ ভাতে মারা যাবে। তাই এসব নিয়ে যেসব হ্যাজ দেখতে পাচ্ছেন; তার কমেন্ট সেকশনে ‘গর্দভ’ লিখে আসুন।
৪. কোন আরব দেশ থেকে, ভারতের শ্রমিক ফিরিয়ে দেওয়ার কোন হুমকি; ভারতকে কেউ দেয় নাই। দেবেও না, দিতে পারবেও না। কারণ ডাক্তার, নার্স থেকে শুরু করে; সিভিল ইন্জিনিয়ার, সফটওয়ার হার্ডওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার, কম্পিউটার স্পেশালিস্ট, সবকিছুতেই মাথায় আছে ভারতীয়রা। যাদের ছাড়া দেশ অচল।

৫. রাজমিস্ত্রি থেকে অ্যাকাউন্টেন্ট; ব্যাঙ্ক কর্মী থেকে কোম্পানি অ্যাসিস্টেন্ট, সব ভারতীয়। কতজনকে সরাবে, দেশ বসে যাবে; ভারতীয়রা ছেড়ে এলে। ভারত একবার বলে দিক, ইরাক ইরান কাতার কুয়েত সৌদিতে স্কিলড লেবার পাঠাবে না; তারপরে দেখুন আরব দেশগুলোর কি অবস্থা হয়।
৬. সবক্ষেত্রেই এসব হাই-স্কিলড প্রফেশনাল-দের রিপ্লেস করার মতন ম্যান পাওয়ার; এই দুনিয়াতেই নাই। চিনে আছে, কিন্তু চিনে উইঘুর মুসলিমদের কি অবস্থা; তা দুনিয়া জানে। আর চিন একবার কোন দেশে ঢুকলে; তার অবস্থা ওই শ্রীলঙ্কার মতই হবে।
৭. শ্রমিক আছে, বাংলাদেশ আর পাকিস্তানে। কিন্তু ভারত তো আর বাংলাদেশ পাকিস্তানের মতন; শুধুই ‘ধার্মিক’ অদক্ষ কাজ না জানা শ্রমিক পাঠায় না। ভারত কাজ জানা স্কিলড শ্রমিক পাঠায়।

আরও পড়ুন; হজরত মহম্মদ নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য, ভারতে হা’মলার হু’মকি দিল আল কায়দা

৮. প্রতি বছর ভারত থেকে যে পরিমানে ছাত্র-ছাত্রী ডাক্তারী ইন্জিনিয়ারিং পাশ করে বের হয়; বিশ্বের সব মুসলিম দেশগুলো থেকেও কয়েক দশকে এত ডাক্তার ইঞ্জিনিয়ার বেরোয় না।
৯. এদের অনেকেই আরব দেশগুলোতে চাকরি করতেও যায়; এদের ছাঁটাই করে আরবরা কি নিজের পায়েই কুড়ুল মারবে বলে কারোর মনে হয়।
১০. আরব দেশগুলো শুধু তেলের টাকাই আছে; সেই টাকায় তারা কোনদিন ছড়ি ঘোরাতে পারেনি, পারবেও না। দর্জি থেকে দারোয়ান, কর্মী থেকে করণিক, ডাক্তার ইঞ্জিনিয়ার স্পেশালিস্ট সব ভারতীয়।

ফলে বেফালতু হ্যাজে নজর দেবেন না। আরব দেশগুলো তেল বেচেও; আর বেশিদিন রাজত্ব করতে পারবে না। ইউরোপ আমেরিকায় ইতিমধ্যেই, তেলের উপর ভরসা ছেড়ে; রিনিউবল এনার্জি প্রযুক্তির দিকে ঝোঁকা শুরু হয়ে গেছে। ২০-২৫ বছর পরে, বহু আরব দেশের; তেল-গ্যাস মাটির নিচেই পঁচবে। তাই ভারতকে বয়কট; গবেটদের গুজব ছাড়া আর কিছুই নয়।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন