বাংলায় নিজের কেন্দ্রেই বিজেপিকে ভোট দেবার অবাক করা আবেদন কংগ্রেস প্রার্থীর

703
বাংলায় নিজের কেন্দ্রেই বিজেপিকে ভোট দেবার অবাক করা আবেদন কংগ্রেস প্রার্থীর/The News বাংলা
বাংলায় নিজের কেন্দ্রেই বিজেপিকে ভোট দেবার অবাক করা আবেদন কংগ্রেস প্রার্থীর/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

বিজেপিকে ভোট দেবার আবেদন কংগ্রেস প্রার্থীর। তাও আবার নিজের কেন্দ্রেই। অবাক করার মত ঘটনা এই বাংলায়। মুখ ফসকে বিষ্ফোরণ ঘটালেন মালদা দক্ষিণ কেন্দ্রের কংগ্রেস প্রার্থী আবু হাসেম খান চৌধুরী। রাত পোহালেই দক্ষিণ মালদা লোকসভা কেন্দ্রের নির্বাচন। তার আগেই কংগ্রেস প্রার্থীর আবেদন শুনে তাজ্জব বনে যাচ্ছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ থেকে জনসাধারণ। তৃণমূলকে হারাতে বিজেপিকে ভোট দিতে বললেন কংগ্রেস প্রার্থী আবু হাসেম খান চৌধুরী!

দক্ষিণ মালদার একটি নির্বাচনী জনসভায় কংগ্রেস প্রার্থীকে বলতে শোনা যায়, “বিজেপিকে ভোট দিন, কিন্তু তৃণমূলকে ভোট দেবেন না”। এরপরেই শোরগোল পড়ে যায় জনসভায়। এরপর নিজের বক্তব্যের সাফাই দিতে গিয়ে তিনি বলেন, মালদায় তৃণমূল ও বিজেপি একই সাথে হাত মিলিয়ে কাজ করছে। যারা সিপিএম বা কংগ্রেসকে ভোট দেবেন না, তারা যেন তৃণমূলকেও ভোট না দিয়ে সেই ভোট বিজেপিকে দেন, এমনই বক্তব্য তাঁর।

আরও পড়ুনঃ হিন্দু শরণার্থীরা নিশ্চিন্তে থাকুন, তাড়ানো হবে শুধু অনুপ্রবেশকারীদের, আশ্বাস অমিতের

আবু হাসেম খান পুত্র তথা মালদা উত্তর কেন্দ্রের কংগ্রেস প্রার্থী ইশা খান বাবার বক্তব্যের সমর্থনে জানিয়েছেন। তৃণমূলের মতো আঞ্চলিক দলের জাতীয় রাজনীতিতে গুরুত্ব নেই, বিজেপি অথবা কংগ্রেস সরকার গড়বে বলেই জানান ইশা খান। যেহেতু বিজেপি ও তৃণমূল একই সাথে কাজ করছে, তাই তৃণমূল অথবা বিজেপিকে ভোট দেওয়া একই ব্যাপার, বলে বাবাকে সমর্থন করেন তিনি।

আরও পড়ুনঃ ভোটের মধ্যেই চরম লজ্জা, চৌকিদার চোর বলায় ক্ষমা চাইতে হল রাহুল গান্ধীকে

কংগ্রেস প্রার্থীর এই আত্মঘাতী বক্তব্য নিয়ে মন্তব্য না করলেও এই বক্তব্যকে হাতিয়ার করে বিজেপি লাভের ফসল ঘরে তুলতে পারে বলে মনে করছে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। অন্যদিকে তৃণমূল এই বক্তব্যকে হাতিয়ার করে বিজেপি ও কংগ্রেসের সমঝোতার তত্ত্ব উসকে দিয়েছে। তৃণমূলকে হারাতে কংগ্রেস ও বিজেপি এক হয়েছে বলে তাদের বক্তব্য।

আরও পড়ুনঃ রাজ্য পুলিশে ভরসা নেই আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রে সব বুথেই কেন্দ্রীয় বাহিনী

এর আগেও বিভিন্ন জনসভায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কংগ্রেস ও বিজেপির একসাথে কাজ করার অভিযোগ তুলেছিলেন। প্রনব পুত্র অভিজিৎ মুখোপাধ্যায় ও অধীর চৌধুরীকে জেতানোর জন্য কাজ করছে আরএসএস, এমন বিষ্ফোরক অভিযোগও করেছিলেন তিনি। তৃতীয় দফা ভোটের আগেই স্বয়ং কংগ্রেস প্রার্থীর এই মন্তব্য যেন অভিযোগের আগুনে ঘি যোগ করল, এমনই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

এখন ভোটাররা মালদা দক্ষিণ কেন্দ্রের কংগ্রেস প্রার্থী আবু হাসেম খান চৌধুরীর কথা শোনেন কিনা সেটাই এখন দেখার। আর ভুল বুঝে তাঁকে ভোট না দিয়ে যদি বিজেপিকে ভোট দেয় আমজনতা, তাহলে ভোট প্রচারের এই আবেদন যে কতটা আত্মঘাতী হবে সেটা আগামি ২৩ তারিখেই বোঝা যাবে।

আরও পড়ুনঃ ভোট যুদ্ধে আকাশ দখলের লড়াইয়ে কংগ্রেসকে শুইয়ে দিল বিজেপি

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন