শান্তিপূর্ণ ভোটের জন্য রাজ্য সরকারের সাহায্য চাইলেন কমিশনের পর্যবেক্ষক বিবেক দুবে

625
শান্তিপূর্ণ ভোটের জন্য রাজ্য সরকারের সাহায্য চাইলেন কমিশনের পর্যবেক্ষক বিবেক দুবে/The News বাংলা
শান্তিপূর্ণ ভোটের জন্য রাজ্য সরকারের সাহায্য চাইলেন কমিশনের পর্যবেক্ষক বিবেক দুবে/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

শান্তিপূর্ণ ভোটের জন্য রাজ্য সরকারের সাহায্য চাইলেন কমিশনের পর্যবেক্ষক বিবেক দুবে। যদিও সেই রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধেই পুলিশের সন্ত্রাস দিয়ে ভোট করানোর অভিযোগ রয়েছে। আর সেই রাজ্য সরকারের কাছেই সাহায্যের আবেদন করলেন কমিশনের পর্যবেক্ষক বিবেক দুবে। আর তাই নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে সব বিরোধী দলই।

আরও পড়ুনঃ ভোট প্রচারে হেলিকপ্টার পাচ্ছেন না মমতা, অভিযোগের তীর কেন্দ্রের দিকে

সোমবারই নির্বাচন কমিশনের বিশেষ পুলিশ পর্যবেক্ষক বিবেক দুবে জানিয়েছিলেন, মঙ্গলবার বৈঠক করবেন রাজ্য পুলিশের ডিজি বীরেন্দ্র এবং এডিজি আইনশৃঙ্খলা সিদ্ধিনাথ গুপ্তার সঙ্গে। সেই মত মঙ্গলবার দুপুরে নবান্নে এই বৈঠক হল। উচ্চ পর্যায়ের এই বৈঠকে প্রথম তিন দফার ভোটের আইন-শৃঙ্খলা সংক্রান্ত নীল নকশা তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

আরও পড়ুনঃ ভারতীর পর এবার মমতাকে নিজের মা বললেন মিমি

বিশেষ পুলিশ পর্যবেক্ষক বিবেক দুবে আলোচনার মাধ্যমে ঠিক করতে পারেন কত কেন্দ্রীয় বাহিনী প্রয়োজন। রাজ্যের সশস্ত্র বাহিনীর সংখ্যা নিয়েও কথাবার্তা হয়েছে বলেই জানা গেছে। বিকেলেই উত্তরবঙ্গে উড়ে যান বিবেক দুবে।

আরও পড়ুনঃ হুমকি দিয়ে ভোট চাইবার ভিডিও প্রকাশ্যে, মিমির হয়ে শাসানি পঞ্চায়েত প্রধানের

দিল্লির নির্বাচন সদন এর আগে নন বেলেবল ওয়ারেন্ট থাকা ব্যক্তিদের গ্রেপ্তারের জন্য করা নির্দেশিকা দিয়েছিল। ফেব্রুয়ারি শুরুতে এরাজ্যে কমিশনের ফুলবেঞ্চ এসে এডাজি আইন-শৃঙ্খলাকে নির্দেশ দিয়ে গিয়েছিল, জামিন অযোগ্য ধারায় পরোয়ানা থাকা ব্যক্তিদের দ্রুত গ্রেপ্তার করতে হবে। সেই কাজ অনেকটাই করে ফেলেছে রাজ্য পুলিশ। এমনটাই জানান হয় কমিশনের পর্যবেক্ষক বিবেক দুবেকে।

আরও পড়ুনঃ ৩.৬২ কোটির কর ফাঁকি দেওয়ায় গিলানীর দিল্লির বাড়ি সিল করল আয়কর দপ্তর

সূত্র জানাচ্ছে, ৮০ শতাংশেরও বেশি জামিন অযোগ্য ধারায় গ্রেপ্তার থাকা ব্যক্তিদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। রাজ্যের দেওয়া তথ্যে খুশি বিশেষ পুলিশ পর্যবেক্ষক। পাশাপাশি তিনি এদিন খোঁজ নিয়েছেন রাজ্যের সশস্ত্র পুলিশের সংখ্যা কত। প্রসঙ্গত গতকাল স্পেশাল পুলিশ অবজারভার একান্ত আলাপচারিতায় জানিয়ে দিয়েছিলেন, সশস্ত্র বাহিনী রেখেই ভোট হবে রাজ্যের প্রতিটি বুথে।

আরও পড়ুনঃ আদালত নাক গলাবে না, শুক্রবারেই রিলিজ হচ্ছে নরেন্দ্র মোদীর বায়োপিক

সেক্ষেত্রে প্রত্যেকটি বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী থাকবে সে বিষয়ে অবশ্য নিশ্চয়তা দেননি তিনি। কেন্দ্রীয় বাহিনীর সঙ্গে রাজ্যের সশস্ত্র বাহিনীর মেলবন্ধন তৈরি হবে ভোটের আইনশৃঙ্খলা রক্ষার বিষয়টি। সূত্র জানাচ্ছে, বিবেক এদিন রাজ্যের পুলিশ কর্তাদের থেকে বুঝে নেন শান্তিপূর্ণ ভোট করার জন্য কি কি পদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন।

আরও পড়ুনঃ ৩.৬২ কোটির কর ফাঁকি দেওয়ায় গিলানীর দিল্লির বাড়ি সিল করল আয়কর দপ্তর

মঙ্গলবার বিকেলেই শিলিগুড়ি যান বিবেক। সেখানেও একেবারে গ্রাউন্ড রিয়েলিটিটা বুঝে নেওয়ার চেষ্টা করবেন তিনি। তারপরেই ঠিক হবে প্রথম তিন দফার ভোটে কত কেন্দ্রীয় বাহিনী আসবে রাজ্যে। সূত্র জানাচ্ছে গতকাল সর্বদল বৈঠক এবং ভিডিও কনফারেন্সের পর দিল্লির নির্বাচন সদনে রিপোর্ট পাঠিয়েছেন বিবেক দুবে।

আরও পড়ুনঃ জম্মু কাশ্মীরের জন্য আলাদা প্রধানমন্ত্রী, মোদী জবাব চাইলেন রাহুল ও মমতার কাছে

সেই রিপোর্টে কি আছে তা জানা না গেলেও, ভিডিও কনফারেন্সে পর তিনি জানিয়ে দেন, রাজ্যে সব জেলার কাজেই তিনি খুশি। বুধবার উত্তরবঙ্গ থেকে ফিরবেন বিবেক। বৃহস্পতিবার তিনি রাঁচি চলে যাবেন বলে জানা গেছে। তবে সব বুথেই কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়ে ভোট করানোর কথা না বলায় ক্ষুব্ধ রাজ্যের বিরোধী দলগুলি।

আরও পড়ুনঃ মোদী স্পেশাল, ব্রিগেডে আসার জন্য চারটে আস্ত ট্রেন বুক করল বিজেপি

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন