“মন্দারমণির নাম এখন দাদামণি হয়ে গেছে”, এ কি বললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

57
"মন্দারমণির নাম এখন দাদামণি হয়ে গেছে", এ কি বললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
Simple Custom Content Adder

“মন্দারমণির নাম এখন দাদামণি হয়ে গেছে”; এ কি বললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবারের বিধানসভায় বিজেপিকে আ’ক্রমণ করে; রীতিমতো রু’দ্রমূর্তি ধারণ করলেন মুখ্যমন্ত্রী। এসএসসি দুর্নীতি নিয়ে বিরোধীদের আ’ক্রমণ শা’নাতে গিয়ে তিনি যা বললেন, বাংলার রাজনৈতিক মহলের মতে; আসলে তিনি নি’শানা করেছেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে। এদিন ঠিক কী বলেছেন তৃণমূল নেত্রী? এদিন রাজ্য বিধানসভায় মমতা বলেন; “মন্দারমণির নাম এখন ‘দাদামণি’ হয়ে গেছে। কেন হয়েছে? আর বলা হচ্ছে, ১৭ হাজার চাকরি খেয়ে নেব। তা হলে ওই সব ছেলেমেয়েদের ওঁর বাড়ি পাঠিয়ে দেব; আমরা জানি মেদিনীপুরে চাকরি নিয়ে কী হয়েছে”?

এখানেই শেষ নয়, মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন; “চাকরি থেকে যারা ছাঁটাই হচ্ছে; তাদের বিজেপি বিধায়কদের বাড়ি পাঠিয়ে দেব। সিপিএম জমানায় অনেক অবৈধ চাকরি হয়েছিল; আমি ক্ষমতায় এসে সেই সব চাকরি খেতে পারতাম। কিন্তু, তেমনটা করিনি। বলা হচ্ছে, ২০২৪-এ সব জিতে ক্ষমতায় আসবে; আর সবাইকে জেলে ভরে দেবে”।

আরও পড়ুনঃ “অগ্নিবীরের নামে বিজেপি ক্যাডার তৈরি করছে”, বিধানসভায় ভারতীয় সেনা নিয়ে মন্তব্য মমতার

স্কুল সার্ভিস শিক্ষক নিয়োগ, প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে; হাইকোর্টে ল্যাজেগোবরে রাজ্য সরকার। মঙ্গলবার বিধানসভায়, এর বিরুদ্ধেই মুখ খুলেছেন; মুখ্যমন্ত্রী মমতা। আর সেখানেই তিনি নাম না করে রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে; তীব্র কটাক্ষও করেছেন। নাম না করেই, শুভেন্দুকে ‘দাদামণি’ বলে চিহ্নিত করে; মুখ্যমন্ত্রী প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছেন। তিনি প্রশ্ন তোলেন, “পার্থর বিরুদ্ধে মামলা করেছো; কিন্তু দাদামণি যাদের চাকরি দিয়েছে তাঁদের কী হবে? সিবিআই তাঁদের ধরবে না”?

আরও পড়ুনঃ “লাখখানেকের মধ্যে ৫০-১০০টা ভুল হতেই পারে”, শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতি নিয়ে সাফাই মুখ্যমন্ত্রীর

এদিন বিধানসভায় বক্তব্য রাখতে উঠে মমতা বলেন; “এক-লক্ষ চাকরি দিতে গিয়ে; একশোটা ভুল হতেই পারে। তা শুধরে নিতে হবে; সময় দিতে হবে। বেকারদের চাকরি দেব; তাতে যদি কোনও সমস্যা হয়, তা মিটিয়ে নেব। আর দাদামণি যে চাকরি দিয়েছেন; তাঁর হিসেব কে নেবে? সিবিআই তাঁদের ধরবে না? মেদিনীপুর থেকে মুর্শিদাবাদ হয়ে উত্তর দিনাজপুর; সেই সব জায়গায় দাদামণি চাকরি দিয়েছেন। পুরুলিয়া জেলায় চাকরি দেননি; বঞ্চিত করেছিলেন ওঁদের। মন্দারমণির নাম এখন ‘দাদামণি’ হয়ে গেছে। কেন হয়েছে”?

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন