নরেন্দ্র মোদী সরকারের ইচ্ছে বহাল, ফের অপসারিত সিবিআই প্রধান

278
সিবিআই থেকে দমকলে বদলি, প্রতিবাদে চাকরি ছাড়লেন আইপিএস/The News বাংলা
সিবিআই থেকে দমকলে বদলি, প্রতিবাদে চাকরি ছাড়লেন আইপিএস/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

The News বাংলা: নরেন্দ্র মোদী সরকারের ইচ্ছেই বহাল থাকল। দুদিনের মধ্যেই ফের অপসারিত সিবিআই প্রধান অলোক বর্মা। প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের সিলেক্ট কমিটির বৈঠকে ফের সিবিআই প্রধানকে অপসারনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বৃহস্পতিবার আড়াই ঘণ্টা ধরে চলা সিলেক্ট কমিটির বৈঠকের সিদ্ধান্তেই ফের অপসারন করা হয় অলোক বর্মাকে। মোদীর ইচ্ছে মতই ফের অন্তর্বর্তী সিবিআই প্রধান নাগেশ্বর রাও।

আরও পড়ুনঃ ভোটের আগে সিবিআই মামলায় সুপ্রিম কোর্টে জোর ধাক্কা খেল মোদী সরকার

প্রধানমন্ত্রী, প্রধান বিরোধী দলের নেতা ও সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি এই সিলেক্ট কমিটিতে থাকার কথা। যদিও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ছাড়া কেউই বৃহস্পতিবার এর বৈঠকে ছিলেন না। প্রত্যেকেই নিজের নিজের প্রতিনিধি পাঠিয়েছিলেন। আইআরসিটিসি- দুর্নীতি মামলায় অলোক বর্মার বিরুদ্ধে আসা ভিজিল্যান্স কমিশনের রিপোর্টের ভিত্তিতেই এই অপসারনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। কংগ্রেসের তরফে থাকা মল্লিকার্জুন খাড়গে একমাত্র সিবিআই প্রধান এর পক্ষে ভোট দেন। প্রধান বিচারপতির প্রতিনিধি ও প্রধানমন্ত্রী নিজে অপসারণের পক্ষে ভোট দেন।

নরেন্দ্র মোদী সরকারের ইচ্ছে বহাল, ফের অপসারিত সিবিআই প্রধান/The News বাংলা
নরেন্দ্র মোদী সরকারের ইচ্ছে বহাল, ফের অপসারিত সিবিআই প্রধান/The News বাংলা

জানুয়ারির ৮ তারিখেই সিবিআই প্রধান আলোক বর্মা বনাম কেন্দ্র মামলায় হার হয়েছিল মোদী সরকারের। সুপ্রিম কোর্ট রায় দিয়েছিল, ‘অলোক বর্মার অপসারণ সম্পূর্ণ বেআইনি। গত মঙ্গলবার থেকেই কাজে যোগ দিতে পারবেন সিবিআই প্রধান অলোক বর্মা’। তবে তিনি কোন গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত একা নিতে পারবেন না বলেই নির্দেশ দেয় দেশের সর্বোচ্চ আদালত। সিবিআই প্রধান অলোক বর্মাকে ছুটিতে পাঠিয়ে কেন্দ্রের জারি করা ২৩শে অক্টোবরের নির্দেশ খারিজ করে দেয় সুপ্রিম কোর্ট।

আরও পড়ুনঃ

অশ্লীল গালাগাল দেবার জন্যই যুবককে নিজেদের ব্যক্তিগত গ্রুপে যোগ করেন নন্দিনী

প্রকাশ্যে গ্রুপ চ্যাট রেকর্ডিং, জেলাশাসকের স্ত্রীর ভাষাও সমান অশ্লীল

একদিনে বহিষ্কৃত দুই তৃণমূল সাংসদ, দিদিকে ছেড়ে মোদীর দলে আর কে কে

মমতার বাছাইয়ে কারা হবেন বাংলার ৪২টি লোকসভা আসনের তৃণমূল প্রার্থী

গত ২৩ অক্টোবর মধ্যরাতে নজিরবিহীনভাবে সিবিআইয়ের এই শীর্ষকর্তাকে অনির্দিষ্টকালের জন্য ছুটিতে পাঠিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় কেন্দ্র। সেই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আদালতের দ্বারস্থ হন সিবিআই ডাইরেক্টর অলোক বর্মা। কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত বেআইনি ঘোষণা করে, তাঁর সেই আবেদন মঞ্জুর করে দেশের সর্বোচ্চ আদালত।

মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের রায়ে একাধিক ইস্যুতে স্বস্তি পান সিবিআই ডাইরেক্টর। অলোক বর্মাকে তাঁর পদে পুনর্বহালের নির্দেশ দেয় দেশের সর্বোচ্চ আদালত। সেই সঙ্গে জানানো হয়, সিবিআইয়ের কাজে কেন্দ্র কোনওভাবেই হস্তক্ষেপ করতে পারবে না। প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ, বিচারপতি এস কে কল ও কে এম জোসেফের ডিভিশন বেঞ্চ এই মামলার রায় দেয়।

আদালতের এই রায়কে স্বাগত জানায় কংগ্রেস-সহ অন্য বিরোধীরা। কংগ্রেস, তৃণমূল, বাম সহ বিজেপি বিরোধী দলগুলি এই রায়ের পর প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করেছিলেন। যদিও বিজেপির তরফ থেকে এটাকে কেন্দ্রের হার মানতে রাজি হননি নেতারা। কিন্তু লোকসভা ভোটের আগে এটা যে বিজেপির পক্ষে বড় ধাক্কা তা বলেছিলেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

নরেন্দ্র মোদী সরকারের ইচ্ছে বহাল, ফের অপসারিত সিবিআই প্রধান/The News বাংলা
নরেন্দ্র মোদী সরকারের ইচ্ছে বহাল, ফের অপসারিত সিবিআই প্রধান/The News বাংলা

কিন্তু দুদিনের মধ্যেই আবার বিষয়টা উল্টে গেল। ফের সিবিআই প্রধানকে অপসারনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তবে এবার শুধু কেন্দ্র নয়। তিন সদস্যের সিলেক্ট কমিটি এই সিদ্ধান্ত নিল। এই বৈঠকে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ছিলেন প্রধান বিচারপতির প্রতিনিধি বিচারপতি এ কে সিকরি। বৈঠকে রাহুল গান্ধীর তরফে ছিলেন মল্লিকার্জুন খাড়গে। অলোক বর্মার বিরুদ্ধে ভিজিল্যান্স কমিশনের রিপোর্টের ভিত্তিতেই অপসারনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় ২-১ ভোটে। মল্লিকার্জুন খাড়গে একমাত্র সিবিআই প্রধান এর পক্ষে ভোট দেন।

আরও পড়ুনঃ

ঐতিহাসিক কুম্ভমেলা সম্পর্কে একনজরে সব কিছু জেনে নিন

কুম্ভমেলায় বিশ্বরেকর্ড গড়ল যোগীর রাজ্য, তৈরি হল আস্ত একটা শহর

সোনিয়া রাহুলকে ১০০ কোটি টাকা আয়কর ফাঁকি দেওয়ার নোটিশ

মন্দির মনোরঞ্জনের জায়গা নয়, স্বর্ণমন্দিরে নিষিদ্ধ সেলফি ছবি ভিডিও

পদে ফেরার ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ৫ অফিসারকে বদলি করার নির্দেশ দেন অলোক বর্মা। পাশাপাশি, ১০ অফিসারের বদলির নির্দেশ রদ করেন তিনি। যেসব অফিসারদের বদলি করার নির্দেশ বর্মা দিয়েছেন তাঁদের মধ্যে রয়েছেন, জেডি অজয় ভাটনগর, ডিআইজি এমকে সিনহা, ডিআইডি তরুণ গৌবা, জেডি মুরুগেশন, এডি একে শর্মা। এনিয়ে সরকারের মধ্যে তীব্র অসন্তোষ তৈরি হয়েছে বলে গুঞ্জন। সেই সব সিদ্ধান্তই আবার বাতিল করে দেবে মোদী সরকার। নরেন্দ্র মোদীর ইচ্ছে মতই ফের অন্তর্বর্তী সিবিআই প্রধান নাগেশ্বর রাও।

এদিকে অলোক বর্মাকে অপসারণের পরই সমালোচনা শুরু হয়েছে বিভিন্ন মহল থেকে। বিশিষ্ট আইনজীবী প্রশান্তভূষণ বলেন, অলোক বর্মাকে আত্মপক্ষ সমর্থন করার সুযোগ না দিয়ে কীভাবে তাঁকে সরিয়ে দেওয়া যায়? অলোক বর্মাকে সরানো নিয়ে মোদীকে ফের নিশানা করেছে কংগ্রেসও। দলের পক্ষ থেকে এক টুইটে বলা হয়েছে, অলোক বর্মাকে আত্মপক্ষ সমর্থন করতে দেওয়া হয়নি। প্রধানমন্ত্রী ফের মনে করিয়ে দিলেন তিনি সিবিআই বা যৌথ সংসদীয় কমিটির দ্বারা রাফায়েল তদন্তে ভয় পান।

আরও পড়ুনঃ

বাংলায় রাস্তায় বিজেপির রথ চলবে কিনা ঠিক হবে আগামী মঙ্গলবার

গুরুবারে শুরু অযোধ্যায় রাম মন্দির বাবরি মসজিদ শেষ লড়াই

ভোটের হাতিয়ার, লোকসভার পর রাজ্যসভাতেও পাস হিন্দু সংরক্ষণ বিল

উচ্চবর্ণের গরীব হিন্দুদের জন্য সংরক্ষণ মোদীর, দেশ জুড়ে বিতর্ক

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন