জাপানে বিশ্বের সব তাবড় নেতাদের চুপ করিয়ে, সন্ত্রাসবাদ নিয়ে কি বললেন নরেন্দ্র মোদী

312
জাপানে বিশ্বের সব তাবড় নেতাদের চুপ করিয়ে, কি উপদেশ দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী/The News বাংলা
জাপানে বিশ্বের সব তাবড় নেতাদের চুপ করিয়ে, কি উপদেশ দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী/The News বাংলা

জাপানে জি ২০ বৈঠকে বিশ্বের সব তাবড় নেতাদের চুপ করিয়ে; একটাই উপদেশ দিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বললেন, “সন্ত্রাসবাদই পৃথিবীতে মানবতার সবচেয়ে বড় শত্রু। সন্ত্রাসবাদীদের নির্মূল করতে সবাইকে একজোট হতে হবে”। মোদীর কথা মেনে নেন; বিশ্বের ২০ টি দেশের সব তাবড় নেতারা।

শুক্রবার জাপানের ওসাকায় জি ২০ বৈঠকের ফাঁকে; ব্রিকস নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। সেখান তিনি বলেন; সন্ত্রাসবাদ হল মানবতার সবচেয়ে বড় শত্রু। সন্ত্রাসবাদ শুধু মানুষের প্রাণ নিয়েই ক্ষান্ত থাকে না; দেশের আর্থিক উন্নতির পথ রুদ্ধ করে দেয়। সমাজে সম্প্রীতি নষ্ট করে দেয়। জাতিগত হিংসা ও সন্ত্রাসের; যে কোনও রকম সহায়তা বন্ধ করতে হবে।

আরও পড়ুনঃ জি ২০ সম্মেলনে মোদীর ঢালাও প্রশংসা ট্রাম্পের, কি কি কথা হল মোদী ট্রাম্পের

জি ২০ সম্মেলনে অংশ নিতে; জাপানে পা রেখেছেন নরেন্দ্র মোদী। ওসাকায় ২৮ থেকে ২৯ জুন তারিখ পর্যন্ত; এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এবারের জি ২০ সম্মেলনে; নারীর ক্ষমতায়ন, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা এবং সন্ত্রাসবাদ দমনের ওপর মূলত আলোকপাত করা হবে।

জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের সঙ্গেও; একটি বৈঠকে অংশ নেওয়ার কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর। পাশাপাশি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গেও; একটি দ্বিপাক্ষিক আলোচনায় অংশ নেন মোদী। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন-সহ; আরও অনেক দেশের নেতাদের সঙ্গেই মোদী; বৈঠকে অংশ নেবেন বলে জানা গিয়েছে।

দুদিন ব্যাপি জি ২০ সামিটের শুরুতেই; বিশ্বের সব তাবড় নেতাদের চুপ করিয়ে; সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে মুখ খোলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। বলেন, “সন্ত্রাসবাদে মদত দেওয়া দেশগুলোর বিরুদ্ধে; কড়া পদক্ষেপ নিতে হবে; বিশ্বের সব দেশকেই। সন্ত্রাসবাদ কোন দেশকেই শান্তিতে থাকতে দেবে না”। মোদীর কথা সম্পূর্ণ মেনে নেন; বিশ্বের সব দেশের নেতারাই। এইকথায় চিরশত্রু পাকিস্তানকেই যে বুঝিয়েছেন মোদী; সেটা বুঝতে অসুবিধা হয় নি কারোরই।

এই প্রসঙ্গে নরেন্দ্র মোদী জানিয়েছেন যে; ওসাকায় দু-দিন ব্যাপি জি ২০ সামিটে অংশ নেওয়া একটি উল্লেখযোগ্য পাথেয় হয়ে থাকবে; কারণ ২০২২ সালেই ভারতে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে জি ২০ সামিট। আর সেই বছরেই; ভারতের ৭৫ তম স্বাধীনতা দিবসও উদযাপন করা হবে। সুতরাং বোঝাই যাচ্ছে ২০২২-এর জি ২০ সম্মেলন; ভারতের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন