শত্রুঘ্নকে সমর্থন করে এবার জিন্নাহকে স্বাধীনতা সংগ্রামী বললেন এনসিপি নেতা

221
শত্রুঘ্নকে সমর্থন করে এবার জিন্নাহকে স্বাধীনতা সংগ্রামী বললেন এনসিপি নেতা/The News বাংলা
শত্রুঘ্নকে সমর্থন করে এবার জিন্নাহকে স্বাধীনতা সংগ্রামী বললেন এনসিপি নেতা/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

শত্রুঘ্ন সিনহার বিতর্কিত মন্তব্যের এক দিন কাটতেই শত্রুঘ্নকে সমর্থন করে জিন্নাহর প্রশংসায় পঞ্চমুখ হলেন এনসিপি নেতা মাজিদ মেনন। রবিবার বিজেপিকেই উল্টে কটাক্ষ করেন এই নেতা। মাজিদ মেনন জানান, পাকিস্তানের প্রতিষ্ঠাতা আলী জিন্নাহর ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামেও উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, অমিত শাহের মনে রাখা উচিৎ, দুদিন আগেও শত্রুঘ্ন সিনহা বিজেপির সাথেই ছিলেন। যদি তিনি কোনও রাষ্ট্রদোহী মন্তব্য করে থাকেন, সেটা তিনি বিজেপির থেকেই তাহলে শিখেছেন বলে জানান তিনি। এরপরেই তিনি বলেন, স্বাধীনতা সংগ্রামে জিন্নাহর উল্লেখযোগ্য ভূমিকা ছিল, কিন্তু শুধুমাত্র মুসলিম হবার কারনেই বিজেপি জিন্নাহকে নিয়ে মিথ্যা প্রচার করছে এবং শত্রুঘ্নকে দেশদ্রোহী তকমা দিচ্ছে।

আরও পড়ুনঃ বিজেপিকে হারাতে গুন্ডাদেরও ভোট দিন, বিতর্কিত মন্তব্য আপ প্রার্থীর

গতকালই জিন্নাহকে স্বাধীনতা সংগ্রামী বলে বিতর্কে আসেন শত্রুঘ্ন সিনহা। তিনি দলত্যাগী বিজেপির প্রাক্তন সাংসদ। মধ্যপ্রদেশের ছিন্দওয়াড়ায় একটি নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিয়ে ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামী নেতাদের সাথে জুড়ে দেন আলী জিন্নাহর নাম। আর তাতেই শুরু হয় বিতর্ক।

শুধু জিন্নাহ নয়, স্বাধীনতা আন্দোলনে ইন্দিরা থেকে রাহুল গান্ধী, সকলেরই নাম উল্লেখ করেন তিনি। মধ্যপ্রদেশের ছিন্দওয়াড়ায় কংগ্রেসের প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথের পুত্র নকুল নাথ। মুখ্যমন্ত্রীর উপস্থিতিতে নকুল নাথের হয়েই প্রচারে অংশ নিয়েছিলেন শত্রুঘ্ন সিনহা। সেখানেই বিতর্কিত মন্তব্য করে বসেন তিনি।

আরও পড়ুনঃ প্রধানমন্ত্রীর চেয়ে মুখ্যমন্ত্রীর ক্ষমতা বেশি, দাবি মমতার

শত্রুঘ্ন সিনহা বলেন, প্যাটেল থেকে নেহেরু, গান্ধী থেকে জিন্নাহ, ইন্দিরা থেকে রাহুল; সকলেরই দেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম ও উন্নয়নে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রয়েছে। আর সেই কারনেই তিনি কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন বলে জানান তিনি। তারপরেই মোক্ষম অস্ত্র পেয়ে তার মন্তব্যের বিরোধিতা করে আসরে নামে বিজেপি। তার ওই মন্তব্যের ব্যাখ্যাও দাবি করেছে বিজেপি।

আরও পড়ুনঃ মমতার তোষণ নীতির জন্য বাংলায় আসছে ভয়ঙ্কর ইসলামিক স্টেট জঙ্গিরা

গত বছরই আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ে জিন্নাহ ছবি নিয়ে বিস্তর বিতর্ক হয়। পাকিস্তানের স্রষ্টা জিন্নাহ ছবি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে খুলে ফেলার দাবি তোলেন বিজেপি সাংসদ সতীশ গৌতম। তারপরেই ছবি সরানো নিয়ে ব্যাপক বিতর্ক হয়।

আর এবার সদ্য কংগ্রেসে যোগ দেওয়া নেতা তথা পাটনা সাহিব লোকসভা কেন্দ্রের কংগ্রেস প্রার্থী শত্রুঘ্ন সিনহার এই মন্তব্যে অস্বস্তি কংগ্রেস শিবিরে। স্বাভাবিকভাবেই কংগ্রেস প্রার্থীর এই বিতর্কিত মন্তব্যকে হাতিয়ার করতে ছাড়ছে না বিজেপি। আর এরপরেই ফের তরজা শুরু বিজেপি ও কংগ্রেসের মধ্যে।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন