কলকাতায় নিউ সেক্রেটারিয়েট বিল্ডিংয়ের ছাদে ফুটবলটি এখন ফণীর খবর দিচ্ছে

468
কলকাতায় নিউ সেক্রেটারিয়েট বিল্ডিংয়ের ছাদে ফুটবলটি এখন ফণীর খবর দিচ্ছে/The News বাংলা
কলকাতায় নিউ সেক্রেটারিয়েট বিল্ডিংয়ের ছাদে ফুটবলটি এখন ফণীর খবর দিচ্ছে/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

বলুন তো কলকাতায় নিউ সেক্রেটারিয়েট বিল্ডিংয়ের ছাদে ফুটবলটি ঠিক কি? জলের ট্যাঙ্ক? না একদমই নয়। এটি আসলে একটি শক্তিশালী রাডার সুরক্ষাকবচ। বলটির নাম র‍্যাডম বা Radome। কি কাজ করে এই র‍্যাডম বা Radome?

কলকাতায় নিউ সেক্রেটারিয়েট বিল্ডিং-এর ছাদে যে মস্ত বড় সিগনেচার ফুটবলটি বসানো আছে; বহুদূর থেকে যা দেখে মানুষ পথনির্দেশ পায়; সেই বলটির নাম র‍্যাডম বা Radome। এটি আসলে একটি সুরক্ষা আবরণ; যার মধ্যে রাখা একটি ২৪ ফুট ব্যাসের প্যারাবলিক ডিশ এন্টেনাকে বাইরের রোদ; জল; ধুলো; ঝড় ইত্যাদি থেকে রক্ষা করে।

আরও পড়ুনঃ ফনী মোকাবিলায় কেন্দ্রীয় সরকারের অগ্রিম বরাদ্দ ১০০০ কোটি টাকা

এই ডিশ এন্টেনাটি আলিপুর আবহাওয়া অফিসের; ডপলার RADAR এর সাথে যুক্ত। এন্টেনাটি সদা সর্বদা ৩৬০ ডিগ্রিতে ঘুরে চলেছে। দুরাগত মেঘের ঘনত্ব; গতি ও উচ্চতার হদিশ করে ইলেক্ট্রম্যাগনেটিক তরঙ্গের মাধ্যমে আবহাওয়া অফিসে জানিয়ে চলেছে।

২০০২ সালে জার্মানি থেকে ২০ কোটি টাকায় কেনা যন্ত্রটির কাজ হলো কলকাতা ও সন্নিহিত অঞ্চলে কখন; কতক্ষণ ও কতটা বৃষ্টিপাত হবে তা নির্ভুলভাবে জানানো। এখন এটি ফণীর সব খবর দিচ্ছে।

আরও পড়ুনঃ ফনীর ঝোড়ো হাওয়ায় উড়ে গেল পুরীর জগন্নাথ মন্দিরের ধ্বজা

শহর থেকে শত শত মাইল দূরে কোথাও মেঘ সৃষ্টি হলেই এই যন্ত্র তা বুঝতে পারে। সেই মেঘ কি হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে; কি গতিতে শহরের দিকে আসছে এবং তার কতটুকু অংশ বৃষ্টি হয়ে নামবে; এসব তথ্য নিখুঁতভাবে বলে দেয়।

প্লাস্টিক এক্সট্রুশন র‍্যাডম বা Radome; ইউভি প্রতিরোধী প্লাস্টিকের উপাদান দ্বারা তৈরি করা হয় যা আবহাওয়া থেকে এন্টেনা সিস্টেমকে রক্ষা করে। এটির হালকা ওজন এবং রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি সংক্রমণের জন্য চমৎকার। এটা রাসায়নিক এবং আগুন প্রতিরোধী। এই প্লাস্টিক র‍্যাডম বা Radome ব্যাপকভাবে যোগাযোগ; আবহাওয়া এবং মহাকাশ ক্ষেত্রের ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়।

আরও পড়ুনঃ অবাস্তব ঘটনা বাস্তবে, ফণীর দাপটে লোহার চেন দিয়ে ট্রেন বেঁধে রাখল রেল কর্তৃপক্ষ

আলিপুর আবহাওয়া দফতরে র‍্যাডম বা Radome লাগান; এরকম বেশ কয়েকটি রেডার কাজ করছে। তবে সবচেয়ে পুরনো যেটি সেটি বসানো আছে কলকাতায় নিউ সেক্রেটারিয়েট অফিস বিল্ডিংয়ের উপর। এই রেডারের সাহায্যে মেঘের গতিবিধি; কালবৈশাখী; ঘূর্ণিঝড়ের পূর্বাভাস সংগ্রহ করে হাওয়া অফিস।

আবহাওয়া দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে; নিউ সেক্রেটারিয়েট বিল্ডিংয়ের উপর যে রেডারটি রয়েছে; মুর্শিদাবাদ পর্যন্ত এলাকা এটির আওতায় চলে আসে৷ এখন এই রাডার ও এই Radome ভারী ব্যস্ত। ফণী এসেছে যে।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন