যৌন হেনস্থার অভিযোগ থেকে ক্লিনচিট পেলেন রঞ্জন গগৈ

395
যৌন হেনস্থার অভিযোগ থেকে ক্লিনচিট পেলেন রঞ্জন গগৈ/The News বাংলা
যৌন হেনস্থার অভিযোগ থেকে ক্লিনচিট পেলেন রঞ্জন গগৈ/The News বাংলা

যৌন হেনস্থার অভিযোগ থেকে ক্লিনচিট পেলেন প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ; যৌন হেনস্থার অভিযোগ উঠেছিল খোদ সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের বিরুদ্ধে; অবশেষে অভিযোগের ভিত্তিতে তিন বিচারপতির দ্বারা গঠিত ডিভিশন বেঞ্চের তদন্তে ক্লিনচিট পেলেন তিনি।

সোমবার সুপ্রিম কোর্টের তিন বিচারপতির অভ্যন্তরীণ প্যানেল জানিয়ে দিয়েছে; সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন ওই মহিলা কর্মীর অভিযোগের কোন সারবত্তা নেই; বিচারপতি এস এ ববদের নেতৃত্বাধীন ৩ জন বিচারপতিকে নিয়ে গঠিত বেঞ্চ রঞ্জন গগৈয়ের বিরুদ্ধে ওঠা যৌন হেনস্থার অভিযোগ নস্যাৎ করে দিয়েছে।

আরও পড়ুনঃ গাড়ি ভাঙচুর, ছাপ্পা ভোটের অভিযোগে হুগলীর জেলাশাসক দফতরে ধর্নায় লকেট

সুপ্রিম কোর্টের একজন সহকর্মীকে যৌন হেনস্থার অভিযোগ উঠেছিল প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে; যৌন হেনস্থায় বিচারপতির বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের তদন্তের সায় দিয়েছিলেন তিনি নিজেই; কারণ তিনি আত্মবিশ্বাসী ছিলেন নিজের ভাবমূর্তির উপরে।

যৌন হেনস্থার অভিযোগের উত্তরে রঞ্জন গগৈ বলেছিলেন; তিনি তাঁর ২০ বছরের কেরিয়ারে এমন অভিযোগের মুখে পড়তে হবে তা কখনোও ভাবেননি; তাঁর পিওনেরও তাঁর থেকে বেশি সম্পত্তি রয়েছে বলেছিলেন তিনি। বিচার বিভাগকে ইচ্ছাকৃত ভাবে টার্গেট করা হচ্ছে বলেও দাবি করেছিলেন তিনি।

আরও পড়ুনঃ বাংলায় জয় শ্রী রাম বললেই জেলে পুরছেন মমতা, ঝাড়গ্রামে অভিযোগ মোদীর

গত মাসে সুপ্রিম কোর্টের জুনিয়র অ্যাসিসট্যান্ট হিসেবে কাজ করা এক মহিলা তাঁর অভিজ্ঞতার বিবরণ দিয়ে ২২ জন বিচারপতির কাছে হলফনামা জমা দিয়েছিলেন; তবে এই অভিযোগ মিথ্যে বলে খারিজ করে দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের সেক্রেটারি জেনারেল।

সুপ্রিম কোর্টের সেক্রেটারি জেনারেল একটি বিবৃতিতে জানিয়েছেন; সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন একজন কর্মচারী অভিযোগ জানিয়েছিলেন; তার ভিত্তিতেই গড়ে ওঠা প্যানেল তদন্ত করে বিচারের রায় দিয়েছে। কিন্তু তদন্তের গতিপ্রকৃতি জনসম্মুখে প্রকাশ করার পক্ষপাতী তারা নন।

আরও পড়ুনঃ ফণীর ক্ষয়ক্ষতির জন্য রাজ্যকে টাকা দিতে চেয়েছিলাম, নিলেন না মমতা, জানালেন মোদী

প্যানেলের এই রিপোর্ট সিনিয়র বিচারপতি এবং প্রধান বিচারপতির কাছে পাঠানো হয়েছে। এই রিপোর্টটি প্রকাশও করা হবে। এর আগেই ওই অভিযোগকারিনী মামলা থেকে সরে গিয়েছেন। তিনি বলেছেন; আদালতের পরিবেশ ভীতিপ্রদ; তদন্তের সময় তাকে ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন