জেলেই সুমন চট্টোপাধ্যায়, সিবিআই নজরে বাংলার আরও তিন সাংবাদিক

563
জেলেই সুমন চট্টোপাধ্যায়, সিবিআই নজরে বাংলার আরও তিন সাংবাদিক/The News বাংলা
জেলেই সুমন চট্টোপাধ্যায়, সিবিআই নজরে বাংলার আরও তিন সাংবাদিক/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

The News বাংলা, কলকাতাঃ জামিন না মেলায় নতুন বছরের শুরুটা জেলেই কাটাতে হবে বাংলার অন্যতম সেরা সাংবাদিক সুমন চট্টোপাধ্যায়কে। এদিকে চিটফান্ড কাণ্ডে সরাসরি জড়িত থাকার অভিযোগে, বাংলার আরও তিন সাংবাদিককে যে কোনদিন গ্রেফতার করতে পারে সিবিআই। সিবিআই সূত্রে এমনটাই জানা যাচ্ছে।

আরও পড়ুন: ভূমিকম্পে তাসের ঘরের মত ভেঙে পড়বে সল্টলেক নিউটাউনের বাড়িঘর

এদিকে ফের জামিনের আর্জি খারিজ করে সিবিআই হেফাজত থেকে এবার জেল হেফাজতেই পাঠানো হল সাংবাদিক সুমন চট্টোপাধ্যায়কে। আগামী ৯ই জানুয়ারি পর্যন্ত সুমনবাবুকে জেল হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছে ভুবনেশ্বর আদালত। ওড়িশার খুরদা রোড জেলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে তাকে।

আরও পড়ুন: চোখ রাখুন বাংলায় কবে প্রকাশ পাবে নতুন ভোটার তালিকা

নতুন বছর জেলেই কাটবে বাংলার প্রখ্যাত এই সাংবাদিকের। জানা গেছে, চিটফান্ডের বেআইনি টাকায় কেনা সুমন চট্টোপাধ্যায় এর বিভিন্ন ব্যাংক এক্যাউনট ও তার প্রায় ১২টি বিলাসবহুল ফ্লাটের দিকেও নজর পরেছে সিবিআই-য়ের। সূত্রের খবর, বাংলার প্রায় ৫ জন সাংবাদিকের আয়-ব্যয় ও সম্পত্তি নিয়ে এখন খোঁজখবর করছে সিবিআই।

আরও পড়ুন: হাজার হাজার রুটি নষ্ট করে কৃষক আন্দোলনে ইতিহাস বাংলার বামেদের

গত বৃহস্পতিবার আইকোর মামলায় গ্রেফতার করা হয় সুমন চট্টোপাধ্যায়কে। মূলত চিটফান্ডের টাকা হাতানো, আয় সঙ্গতি, তথ্য গোপন সহ একাধিক মামলায় গ্রেফতার করা হয় সাংবাদিক সুমন চট্টোপাধ্যায়কে। জামিন বাতিল করে, প্রথমে তাকে সিবিআই হেফাজতে পাঠানো হয়। পরে সিবিআই হেফাজত শেষে জামিনের আবেদন খারিজ করে জেল হেফাজতের নির্দেশ দেয় ভুবনেশ্বরের চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত।

আরও পড়ুন: ভিড়ে ঠাসা কলকাতা মেট্রোতে আগুন ও ধোঁয়া, অসুস্থ বহু

এদিকে, যে কোনও মুহূর্তে একই পরিণতি হতে পারে বাংলার আরও তিন সাংবাদিকের। বিভিন্ন চিটফাণ্ড থেকে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ আছে এদের বিরুদ্ধে। এই অভিযোগের তথ্য-নথিও সিবিআই সংগ্রহ করেছে বলেই জানা গেছে। হাতে এসেছে কিছু ছবিও। ফলে, এই তিন সাংবাদিকের মাথার ওপর মহা-বিপদের কালো মেঘ ভালোভাবেই জমেছে।

আরও পড়ুনঃ EXCLUSIVE: ৫৫ নম্বরের পরীক্ষায় পরীক্ষার্থীকে ৫৯ দিয়ে এসএসসি-র নতুন কীর্তি

এই তিনজনই সে আশঙ্কার কথা ভালো করেই জানেন। এদের একজন এখন মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছেন রাজ্যের বাইরের কোনও মিডিয়া হাউসে যোগ দেওয়ার। একাধিক হাউসে ইন্টারভিউও দিয়েছেন। একসময় বৃহত্তম সংবাদপত্র গোষ্ঠীতে থাকা সাংবাদিকটি এখন ছোট একটি মিডিয়াতে যুক্ত। বাকি দুজনের অবস্থাও একই। বিনিদ্র রজনী আর উচ্চ রক্তচাপকে সঙ্গী করে দিন পার করছেন।

আরও পড়ুন: EXCLUSIVE: ভোটের আগে বাংলার বিখ্যাত সাংবাদমাধ্যমের সঙ্গে ‘সরকারি’ সন্ধি মমতার

সুমন চট্টোপাধ্যায় তিন দশকেরও বেশি সময় বাংলা ভাষায় সাংবাদিকতা করেছেন। গ্রেফতারের সময় তিনি একটি বাংলা দৈনিকের সম্পাদক ছিলেন। এছাড়া, একদা টেলিভিশন সাংবাদিকতার সঙ্গেও যুক্ত ছিলেন তিনি। চিটফান্ড কাণ্ডে গ্রেফতার হয়েছিলেন সাংবাদিক এবং তৃণমূলের প্রাক্তন সাংসদ কুণাল ঘোষও। তার বিরুদ্ধে এখনও মামলা চলছে।

আরও পড়ুন: বিশ্বজুড়ে ভূমিকম্পের বেশ কিছু অজানা কাহিনী

আইকোর, এমপিএস, সারদা ও চক্রের মতো চিটফান্ড সংস্থাগুলির কাছ থেকে বিপুল অর্থ নেওয়ার অভিযোগে কাঠগড়ায় সাংবাদিক সুমন চট্টোপাধ্যায়। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ, প্রভাবশালী ব্যক্তিত্ব ও আমলাদের সঙ্গে বৈঠক ও নানা ধরনের সুবিধা পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন চিটফান্ড সংস্থাগুলিকে। তার বদলে টাকা নিয়েছেন সুমনবাবু। সবমিলিয়ে ৫০ কোটি টাকা তিনি হাতিয়েছেন বলে সিবিআই সূত্রের খবর।

আরও পড়ুনঃ EXCLUSIVE: কলকাতা থেকে পুলিশ ও ব্যবসায়ীদের টাকা যাচ্ছে জঙ্গিদের হাতে

এর আগে সারদা মামলায় তাঁকে জেরা করেছিল এনফোর্সমেন্ট ডিরেকটরেট। সূত্রের খবর ঠিক এই একই অভিযোগে, যে কোনও মুহূর্তে গ্রেফতার হতে পারেন এই রাজ্যের আরও তিন বিশিষ্ট সাংবাদিক। একাধিক চিটফান্ড থেকে কয়েক কোটি টাকা হাতিয়ে নেবার অভিযোগ আছে তাদের বিরুদ্ধেও। তাদের বিরুদ্ধে বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রমাণ চলে এসেছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার হাতে।

আরও পড়ুনঃ নেতাদের গুন্ডা পোষা না গুন্ডাদের নেতা হওয়া, প্রকাশ্যে বন্দুকবাজির কারন কি

ফলে এই তিন সাংবাদিক গ্রেফতার হওয়া এখন সময়ের অপেক্ষা মাত্র বলেই মনে করা হচ্ছে। এই তিন সাংবাদিক তাঁদের দিল্লির প্রভাব খাটিয়ে সিবিআই-এর হাত থেকে বাঁচার চেষ্টা করছেন। এখন দেখার এই তিন সাংবাদিক কবে গ্রেফতার হন। তবে অনেকেই মনে করছেন এই তিন সাংবাদিক লোকসভার আগেই গ্রেফতার হতে পারেন। সব মিলিয়ে বাংলা সংবাদমাধ্যম কলঙ্কময় অধ্যায়ের মধ্য দিয়েই যাচ্ছে।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন