নন্দীগ্রামের পর ভাটপাড়া কাণ্ডে ফের বড় মিছিল বাংলার বুদ্ধিজীবীদের

294
নন্দীগ্রামের পর ফের বড় মিছিল বিদ্বজ্জনেদের/The News বাংলা
নন্দীগ্রামের পর ফের বড় মিছিল বিদ্বজ্জনেদের/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

চলতে থাকা রাজনৈতিক হানাহানি থামাতে; ভাটপাড়া বৃহস্পতিবার বুদ্ধিজীবীদের মিছিল। মিছিলের প্রথম সারিতে ছিলেন চিত্র পরিচালক অপর্ণা সেন; অভিনেতা কৌশিক সেন ও নাট্যকার চন্দন সেন সহ বিভিন্ন স্তরের মানুষ।

অশান্ত ভাটপাড়ায় শান্তি ফেরাতে; বৃহস্পতিবার নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিরা পৌঁছান ভাটপাড়ায়। ৩টে নাগাদ শুরু হয় ওই মিছিল। মিছিল শেষে চারটে নাগাদ ব্যারাকপুর পুলিশ কমিশনারের কাছে; স্মারকলিপি জমা দেওয়ার কথাও জানান তাঁরা।

আরও পড়ুনঃ মি টু আন্দোলনে আবারও প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ

বাংলার বুদ্ধিজীবী সরাসরি কথা বলেন; তাঁরা গ্রামবাসীদের সাথে। গ্রামবাসীরা জানান; সাম্প্রদায়িক হিংসার শিকার তারা। ঘর থেকে উঠিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে মেয়েদের। স্কুল কলেজ সব বন্ধ ভাটপাড়ায়। ভয় দেখিয়ে বাচ্চাদের স্কুল যেতে দেওয়া হচ্ছে না; বলে অভিযোগ গ্রামবাসীর। অশান্তির জেড়ে দৈনন্দিন; স্বাভাবিক জীবনে ফেরা প্রায় অসম্ভব হয়ে যাচ্ছে বলে জানান তারা।

আরও পড়ুনঃ Breaking News; ভারত সরকারের চাপে নীরব মোদীর ২৮৩ কোটি টাকার সুইস ব্যাঙ্ক আকাউন্ট বন্ধ হল

রাজ্যে আবার সক্রিয়তা বাড়ছে বাংলার বুদ্ধিজীবীদের। সিঙ্গুর-নন্দীগ্রামের অসন্তোষের সময় বিদ্বজ্জনেদের; একত্রে মিছিলে পা মেলাতে দেখা যায়। প্রায় ১২ বছর পর; আবার মিছিলে পা মেলালেন তাঁরা। তবে এই মিছিল সম্পূর্ণ রাজনৈতিক রঙহীন; বলে দাবী করেছেন তাঁরা। শান্তি ফেরানোই একমাত্র উদ্দেশ্য তাঁদের। এই মিছিলকে; পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছেন কবি শঙ্খ ঘোষ।

আরও পড়ুনঃ কাটমানি দুর্নীতি কান্ডে চাঞ্চল্যকর মোড়, তৃণমূল কর্মীর রহস্যমৃত্যু

কর্মসূচি হিসাবে একটি বিবৃতি প্রকাশ করা হয় শিল্পী সাহিত্যিকদের তরফ থেকে। দুজন দিনমজুরের বীভৎস নিষ্ঠুর হত্যার পাশাপাশি; অঞ্চল জুড়ে অবাধে চলা সন্ত্রাস, লুটপাট ও বোমাবাজির বিরুদ্ধে সরকার ও প্রশাসনকে সজাগ হতে নির্দেশ দিয়েছেন তাঁরা।

অশান্ত ভাটপাড়ায় শান্তি ফেরাতে; একে একে এগিয়ে আসছে সবাই। বাম-কংগ্রেসরা এক জোট হয়ে উঠে পরে লেগেছেন। কেবল ভাটপাড়া নয়; সারা রাজ্যের শান্তি নিয়ে মাথায় হাত মুখ্যমন্ত্রীর। বুধবার রাজ্যে শান্তি ফেরাতে বাম ও কংগ্রেসকে আহ্বান করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়।

মঙ্গলবার পুলিশি ঘোষণার পর; দোকানপাট খুললেও এখনও ১৪৪ ধারা চলছে ভাটপাড়া ও জগদ্দল থানা এলাকায়। রাজনৈতিক হানাহানি অবিলম্বে; বন্ধের কথা বলেন অপর্ণা সেন। বৃহস্পতিবারের এই মিছিল; ভাটপাড়ায় এই অসন্তোষে কতটা প্রভাব ফেলবে সেটাই দেখার।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন