বাবার পথে হেঁটে বিতর্কিত মন্তব্য করলেন উত্তরপ্রদেশের সমাজবাদী পার্টির নেতা

497
বাবার পথে হেঁটে বিতর্কিত মন্তব্য করলেন উত্তরপ্রদেশের সমাজবাদী পার্টির নেতা/The News বাংলা
বাবার পথে হেঁটে বিতর্কিত মন্তব্য করলেন উত্তরপ্রদেশের সমাজবাদী পার্টির নেতা/The News বাংলা

বাবার হাত ধরে একই পথে হেঁটে বিতর্কিত মন্তব্য করলেন উত্তরপ্রদেশের সমাজবাদী পার্টির নেতা আজম খানের পুত্র আবদুল্লা খান। ভোট পর্বের শুরু থেকেই বাবা ছেলে দুজনেরই টার্গেট এখন বিজেপি প্রার্থী জয়া প্রদা। আর এই নিয়েই এখন জোর তরজা এখন বিজেপি কংগ্রেসে।

সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের একটি নির্বাচনী জনসভায় বহুজন সমাজবাদী পার্টির সুপ্রিমো মায়াবতী মুসলিমদের ভোট যাতে ভাগ না হয়, সেকারনে কংগ্রেসকে ভোট দিতে বারন করেন এবং মহাজোটকে ভোট দেওয়ার আবেদন করেন। মায়াবতীর আবেদনের সূত্র ধরে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ প্রচারে বলেন, মহাজোটের কাছে আলী থাকলে, বিজেপির সাথেও বজরঙবলী আছেন। এই ঘটনার সূত্র ধরেই এবার বিতর্কিত মন্তব্য করলেন আজম পুত্র।

আরও পড়ুনঃ নরেন্দ্র মোদীকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদন্ডের হুঁশিয়ারি দিলেন কংগ্রেস নেতা

আবদুল্লা খান বলেন, তাদের আছে আলী ও বজরঙবলী উভয়েই আছেন, কিন্তু আনারকলি নেই। উল্লেখ্য, বিজেপি নেত্রী জয়াপ্রদাকে লক্ষ্য করে তার এই মন্তব্য। উত্তরপ্রদেশের রামপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে আজম খানের বিরুদ্ধে বিজেপির টিকিটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন জয়া প্রদা। তাই বাবা ছেলের প্রায়ই আক্রমনের লক্ষ্য হচ্ছেন তিনি।

এর আগে সমাজবাদী পার্টির সুপ্রিমো অখিলেশ যাদবের সাথে একই মঞ্চে নির্বাচনী জনসভায় প্রচার চলাকালীন জয়া প্রদার সাথে আরএসএসের সম্পর্ক নিয়ে কুরুচিপূর্ণ আক্রমণ করেছিলেন আজম খান। তিনি বলেছিলেন, জনসাধারণ যা ১৭ বছরেও বুঝতে পারেননি, তা আজম খান ১৭ দিনের বুঝেছেন যে জয়া প্রদা খাকি রঙের প্যান্টি করেন। জয়া প্রদাকে নাচনেওয়ালি বলেও মন্তব্য করেন আজম খান। আজম খানের সেই মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশন আজম খানকে ৭২ ঘন্টার জন্য ভোটপ্রচারে নিষেধাজ্ঞা জারি করে।

আরও পড়ুনঃ ভোট যুদ্ধে আকাশ দখলের লড়াইয়ে কংগ্রেসকে শুইয়ে দিল বিজেপি

এই ঘটনায় তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন বিজেপি নেত্রী। তিনি বলেন, বাবা আর ছেলের আচরনে কোনও তফাৎ নেই, এটাই ওদের পারিবারিক সংস্কৃতি। কিন্তু একই পরিবারের ছেলে পরিবারের শিক্ষা থেকে বেরোতে পারছে না বলে তিনি জানান। মহিলাদের সম্মান করতে জানেন না বলেও মন্তব্য করেন জয়া৷

এরপরেই বিজেপি কংগ্রেস বাগ যুদ্ধের লড়াই শুরু হয়েছে। ভোটের লড়াই এখন ভোটের বাজার ছেড়ে জয়া প্রদাকে আজম খান- আবদুল্লা খানের অশ্লীল ইঙ্গিতের দিকে চলে গেছে। আর এখানেই সমাজবাদী পার্টির হার দেখছে রাজনৈতিক মহল। তবে নিজের জেতার ব্যপারে নিশ্চিত বলেই জানিয়েছেন উত্তরপ্রদেশের রামপুর লোকসভা কেন্দ্র এর সমাজবাদী পার্টির প্রার্থী আজম খান।

আরও পড়ুনঃ ভোটের মধ্যেই চরম লজ্জা, চৌকিদার চোর বলায় ক্ষমা চাইতে হল রাহুল গান্ধীকে

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন