ভারতের চাপে নাভিশ্বাস পাকিস্তানের ফের একটা সুযোগ ভিক্ষা

512
ভারতের চাপে নাভিশ্বাস পাকিস্তানের ফের একটা সুযোগ ভিক্ষা/The News বাংলা
ভারতের চাপে নাভিশ্বাস পাকিস্তানের ফের একটা সুযোগ ভিক্ষা/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য মোদীর কাছে কেবল একটা সুযোগ চাইছেন ইমরান! চারপাশ থেকে ভারতের চাপে নাভিশ্বাস উঠছে পাকিস্তানের। পাকিস্তানের ব্যবসা বাণিজ্য বন্ধ। ২০০ শতাংশ কর বাড়িয়েছে ভারত। ভারত পাক সীমান্তে সারি সারি দাঁড়িয়ে পণ্য বোঝাই ট্রাক। ভারত সরবরাহ না করায় ভারত থেকে যাচ্ছে না টম্যাটো সহ অনেক সব্জি। আমেরিকা, রাশিয়া, ফ্রান্স সহ গোটা বিশ্বের তোপে পড়েছে পাকিস্তান। আইএমএফ পাকিস্তানকে সব ঋণ বন্ধের হুমকি দিয়েছে। চাপে পড়ে পাকিস্তানের ফের একটা সুযোগ ভিক্ষা ভারতের কাছে।

আরও পড়ুনঃ পাক সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে মোদীকেই যোগ্য বলছেন দেশের মানুষ

‘কথা দিয়েছিলেন, পাঠানের ছেলে হলে ব্যবস্থা নিন’। পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের উদ্দেশ্যে এমনই চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এরপরই নমনীয় মনোভাব দেখালেন পাঠান পুত্র ইমরান খান। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী দফতর থেকে একটি বিবৃতি জারি করা হয়েছে, যেখানে শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য ভারতের কাছে আর একটি সুযোগ চেয়েছে ইসলামাবাদ।

আরও পড়ুনঃ সিবিআই ইডি তদন্ত থেকে বাঁচাতেই কি স্বামীকে রাজনীতিতে আনছেন প্রিয়াঙ্কা

পুলওয়ামায় সেনা কনভয়ের উপর হামলার পর থেকেই গোটা বিশ্বের বিষোদগারের মুখে পড়েছে পাকিস্তান। আমেরিকা থেকে রাশিয়া, সর্বত্রই এই হামলার নিন্দা করা হয়েছে। একই সঙ্গে পাকিস্তানকেও নিশানায় নিয়ে কটাক্ষ করেছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। সম্প্রতি ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে সম্পর্ক নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে একে ‘বিপজ্জনক’ আখ্যা দেন তিনি। এবং ভারত বড় কিছু করবে বলে পরিষ্কার জানিয়ে দেন। ফলে অযথা এই সময় বিবাদে জড়িয়ে বা সুর চড়িয়ে যে দেশের কোনও লাভ হবে না তা বুঝেছে পাকিস্তান। মনে করা হচ্ছে সেই কারণেই চাপে পড়ে এবার শান্তি প্রতিষ্ঠার ডাক দিয়েছে পাকিস্তান।

আরও পড়ুনঃ বিশ্ব জুড়ে প্রভাব ফেলে শান্তি পুরস্কার পেলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

পাক প্রধানমন্ত্রীর অফিস থেকে এক বিবৃতি জারি করে জানান হয়েছে, ‘প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান তাঁর প্রতিজ্ঞায় অনড়। ভারত যদি পুলওয়ামা আক্রমণে পাকিস্তানের যোগের প্রমাণ দিতে পারে, তবে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে’। লেখা হয়, ‘ভারত যদি আমাদের পর্যাপ্ত প্রমাণ দেয়, তাহলে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নিজে পদক্ষেপ নেবেন। শান্তি স্থাপনের একটা সুযোগ দেওয়া উচিত মোদীর’।

আরও পড়ুনঃ ভারতের নদী থেকে একফোঁটাও জল দেওয়া হবে না পাকিস্তানকে

উল্লেখ্য, পুলওয়ামায় হামলার পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ইমরান খানকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘উনি বলেছিলেন, আমি পাঠানের ছেলে। সত্যি কথা বলি। সঠিক কাজ করি। তাই যদি হয় তাহলে উনি পুলওয়ামা হামলার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন’। মোদীর এই বক্তব্যের পরই ইমরানের এই জবাব যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ মনে করা হচ্ছে। এখন মোদী কী ভাবে ইমরানের এই বিবৃতির পাল্টা জবাব দেন সেদিকেই তাকিয়ে দুই দেশ।

আরও পড়ুনঃ চিরশত্রুকে শিক্ষা দিতে ভারত পাক যুদ্ধ চান বাবা রামদেব

তবে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, পাক প্রধানমন্ত্রী আইএসআই ও পাক সেনার হাতের পুতুল। পুলওয়ামায় হামলার পরও প্রতিদিন কাশ্মীরে জঙ্গি হামলা চলছে। আন্তর্জাতিক চাপে পড়েই এখন সুর নরম করতে বাধ্য হচ্ছে তারা। এর উত্তরে মোদী কি জবাব দেন সেটাই এখন দেখার।

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন