সব বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী না থাকলে ভোট বন্ধ করে দেবার হুমকি লকেটের

520
তৃণমূল বিধায়ককে তুলে নিয়ে যাবার হুমকি বিজেপি নেত্রী লকেট চ্যাটার্জীর/The News বাংলা
তৃণমূল বিধায়ককে তুলে নিয়ে যাবার হুমকি বিজেপি নেত্রী লকেট চ্যাটার্জীর/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

ভোট বন্ধ করে দেবার হুমকি দিলেন লকেট। যদি সব বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী না থাকে তাহলে ভোট বন্ধ করে দেওয়া হবে বলে জানিয়ে দিলেন হুগলীর বিজেপি প্রার্থী লকেট চ্যাটার্জী।

আরও পড়ুনঃ কংগ্রেস নির্বাচনী ইস্তাহারকে প্রো জিহাদ ও অ্যান্টি ইন্ডিয়া বলে আক্রমণ কোয়েনা মিত্রের

হুগলির ধনিয়াখালীতে এক প্রচার সভায় লকেট নির্বাচন কমিশনকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে বলেছেন, “প্রতিটা বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী না দিতে পারলে ভোট বন্ধ করে দেব”। আর সেই ভিডিও ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল।

আরও পড়ুনঃ লাইভ ডিবেটে অসহিষ্ণুতা, সঞ্চালক ও বিজেপি নেতার দিকে গ্লাস ছূঁড়লেন কংগ্রেস নেতা

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে লকেট চ্যাটার্জী ধনিয়াখালী বিধানসভায় এক ভাষণে বলছেন, সব বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী না দিলে ভোট বন্ধ করে দেওয়া হবে। আর এরপরেই এই নিয়ে নির্বাচন কমিশনের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়েছে তৃণমূলের তরফ থেকে।

আরও পড়ুনঃ বিরিয়ানি নিয়ে হাতাহাতি কংগ্রেস সমর্থকদের মধ্যে, ৩৪ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের

হুগলীর তৃণমূল প্রার্থী রত্না দে নাগ, কিন্তু এদিনের প্রচারে লকেট রাজ্য সরকারের মন্ত্রী ও সমস্ত তৃণমূল নেতা নেত্রীদের নাম না করে আক্রমণ করেন। দুর্নীতি নিয়ে রাজ্যের মন্ত্রীকে খোঁচা দেন লকেট।

আরও পড়ুনঃ হিন্দুধর্ম নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে থানায় অভিযোগ দায়ের উর্মিলার বিরুদ্ধে

এরপরেই এই নিয়ে নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হবার কথা ভাবতে শুরু করেছেন তৃণমূল নেতৃত্ব। ধানিয়াখালীর এক তৃণমূল নেতৃত্ব জানান, ভোটে হারছেন জেনেই উল্টোপাল্টা বলছেন লকেট। তিনি বলেন, প্রকাশ্যে ভোট বন্ধ করে দেবার হাস্যকর হুমকি দিচ্ছেন লকেট, এর জেরে নির্বাচনী বিধিভঙ্গের আওতায় পড়া উচিৎ লকেটের।

ঠিক কি বলেছেন হুগলীর বিজেপি প্রার্থী লকেট, শুনে নিন:

নাম ঘোষণার পরদিনই হুগলী লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী অভিনেত্রী লকেট চ্যাটার্জি হুগলী জেলার বাঁশবেড়িয়ার ঐতিহাসিক হংসেশ্বরী মন্দিরে পুজো দিয়ে প্রচারের কাজ শুরু করেন। পুজো দিয়ে বেড়োনোর পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, “হুগলী জেলায় একের পর এক কলকারখানা বন্ধ হয়েছে”। তিনি বলেন, “হুগলী জেলায় একের পর এক কলকারখানা বন্ধ হয়েছে। সে ব্যাপারে কোনো উদ্যোগ নেননি এখানকার সাংসদ”।

আরও পড়ুনঃ ফাঁকা জনসভার ছবি তুলতে গিয়ে কংগ্রেস সমর্থকদের হাতে প্রহৃত চিত্র সাংবাদিক

কিন্তু তার ১৫ দিন আগে থেকেই তৃণমূলের হুগলীর প্রার্থী রত্না দে নাগ প্রচার শুরু করে দিয়েছেন এই কেন্দ্রে। অনেক আগে প্রার্থী ঘোষণা হওয়ায় প্রচারে অনেকটাই এগিয়ে রত্না দে নাগ। অনেক পরে প্রচারে এসে তৃণমূলকে আক্রমণ করেছেন লকেট।

আরও পড়ুনঃ সন্ত্রাসবাদ বড় ইস্যু না হলে নিরাপত্তার বেষ্টনী ত্যাগ করুন, রাহুলকে পরামর্শ সুষমার

তবে বিজেপি প্রার্থীর সব বক্তব্য উড়িয়ে দিয়েছেন হুগলীর তৃনমুল প্রার্থী রত্না দে নাগ। নির্বাচনী বিধিভঙ্গ ও ভোট বন্ধ করে দেবার হুমকি ভিডিও নির্বাচন কমিশনে জমা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুনঃ তিন লাখ কোটি টাকায় বিবাহবিচ্ছেদ

লকেটের তরফ থেকে বলা হয়েছে, সব বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী দেওয়ার দাবী জানান হয়েছে। ভোট বন্ধ করার কোন হুমকি দেওয়া হয় নি। কিন্তু তার ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ার ভাইরাল হয়ে পড়ায় সব মিলিয়ে ভোট বন্ধ করে দেবার হুমকি দিয়ে বিতর্কের কেন্দ্রে বিজেপির লকেট চ্যাটার্জী। তৃনমূলের অভিযোগ পাবার পর রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী অফিসার কি ব্যবস্থা নেন সেটাই এখন দেখার।

আরও পড়ুনঃ ভোট বাজারে মেজাজ হারালেন মমতার মন্ত্রী, বিজেপি প্রার্থীকে মারতে গেলেন

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন