মোদীর প্রকল্পে আর টাকা দেবেন না মমতা, কেন্দ্র রাজ্য সম্পর্ক তলানিতে

261
বাংলায় উন্নতিতে বাধা 'স্পীডব্রেকার' মমতা, কটাক্ষ মোদীর/The News বাংলা
বাংলায় উন্নতিতে বাধা 'স্পীডব্রেকার' মমতা, কটাক্ষ মোদীর/The News বাংলা

The News বাংলাঃ মোদী সরকারের প্রকল্পে আর টাকা দেবেন না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার। সকলের জন্য স্বাস্থ্য ‘আয়ুষ্মান প্রকল্প’ নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা রাজ্যের। প্রকল্প ছেড়ে বেরিয়ে আসার কথা জানিয়ে দিল্লিকে চিঠি দিল রাজ্য সরকার।

বৃহস্পতিবার কৃষ্ণনগরের সভা থেকে বিস্ফোরক অভিযোগও করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর বক্তব্য, এই প্রকল্পে বাংলা থাকবে না। যে প্রকল্পের লেটারহেডে প্রধানমন্ত্রী আর পদ্মফুলের ছবি সেই প্রকল্প রাজ্যে কার্যকর হবে না।

মোদীর প্রকল্পে আর টাকা দেবেন না মমতা, কেন্দ্র রাজ্য সম্পর্ক তলানিতে/The News বাংলা
মোদীর প্রকল্পে আর টাকা দেবেন না মমতা, কেন্দ্র রাজ্য সম্পর্ক তলানিতে/The News বাংলা

আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প থেকে বেরিয়ে আসার বিষয়টা কেন্দ্রকে চিঠি দিয়ে জানাল রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতর ৷ আয়ুষ্মান-স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প নিয়ে কেন্দ্র-রাজ্য মউ প্রকল্পে টাকা কেন্দ্র ও রাজ্যের৷ আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পের ৬০ শতাংশ টাকা দেয় কেন্দ্র, ৪০ শতাংশ অংশীদারী রাজ্যের। তারপরও প্রকল্পকে নিজেদের বলে প্রচার করছে বিজেপি।

আরও পড়ুনঃ

অশ্লীল গালাগাল দেবার জন্যই যুবককে নিজেদের ব্যক্তিগত গ্রুপে যোগ করেন নন্দিনী

প্রকাশ্যে গ্রুপ চ্যাট রেকর্ডিং, জেলাশাসকের স্ত্রীর ভাষাও সমান অশ্লীল

একদিনে বহিষ্কৃত দুই তৃণমূল সাংসদ, দিদিকে ছেড়ে মোদীর দলে আর কে কে

মমতার বাছাইয়ে কারা হবেন বাংলার ৪২টি লোকসভা আসনের তৃণমূল প্রার্থী

রাজ্যকে অন্ধকারে রেখে বাড়ি বাড়ি চিঠিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ছবি৷ শুধু তাই নয়, নরেন্দ্র মোদীর ছবির সঙ্গে পদ্ম ফুলের ছবি। রাজ্যের ভূমিকার কথা কোনও উল্লেখ নেই চিঠিতে। তারই প্রতিবাদে রাজ্যের এই চিঠি৷ কেন্দ্রের ভূমিকার নিন্দায় সরব মুখ্যমন্ত্রী৷

কেন্দ্র-রাজ্য ৬০ ও ৪০ শতাংশ টাকা ভাগাভাগিতে চলছে আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প। গত বাজেটে ঘোষণার পর থেকেই কেন্দ্রীয় এই স্বাস্থ্য প্রকল্প নিয়ে কেন্দ্র-রাজ্যের সংঘাত চলছিল। আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প গ্রহণ করার ব্যাপারে বেঁকে বসেছিল পশ্চিমবঙ্গ।

মোদীর প্রকল্পে আর টাকা দেবেন না মমতা, কেন্দ্র রাজ্য সম্পর্ক তলানিতে/The News বাংলা
মোদীর প্রকল্পে আর টাকা দেবেন না মমতা, কেন্দ্র রাজ্য সম্পর্ক তলানিতে/The News বাংলা

নবান্ন ও স্বাস্থ্যভবনের কর্তারা অভিযোগের সুরে জানিয়েছিলেন, স্বাস্থ্যসাথীর অনুকরণ করে আয়ুষ্মান ভারত করা হচ্ছে। গত এপ্রিলে আয়ুষ্মান ভারতের খসড়া বিধি নিয়ে কেন্দ্রের ডাকা বৈঠকেও পশ্চিমবঙ্গ যোগ দেয়নি।

এই প্রকল্পকে ‘মোদীকেয়ার’ বলে কটাক্ষ করে তৃণমূল কংগ্রেস। পরে নামবদল করার সিদ্ধান্ত হয়। পশ্চিমবঙ্গে ‘আয়ুষ্মান ভারত প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রীয় স্বাস্থ্য সুরক্ষা যোজনা’, নামের বদলে ‘আয়ুষ্মান ভারত স্বাস্থ্যসাথী’ নামে এই স্বাস্থ্যপ্রকল্প চালুর কথা হয়। এবার ওই প্রকল্প রাজ্য মানবেই না বলে জানিয়ে কেন্দ্রকে চিঠি দিল রাজ্য সরকার।

আরও পড়ুনঃ

ঐতিহাসিক কুম্ভমেলা সম্পর্কে একনজরে সব কিছু জেনে নিন

কুম্ভমেলায় বিশ্বরেকর্ড গড়ল যোগীর রাজ্য, তৈরি হল আস্ত একটা শহর

সোনিয়া রাহুলকে ১০০ কোটি টাকা আয়কর ফাঁকি দেওয়ার নোটিশ

মন্দির মনোরঞ্জনের জায়গা নয়, স্বর্ণমন্দিরে নিষিদ্ধ সেলফি ছবি ভিডিও

বিজেপি-শাসিত সব রাজ্যে এই প্রকল্প চালু হয়ে গেলেও দিল্লি, কেরল, ওড়িশা, পঞ্জাবে এই প্রকল্প চালু হয়নি। এবার পশ্চিমবঙ্গও একই পথে হাঁটল। এতদিন রাজ্য ৪০ শতাংশ টাকা দেওয়া সত্বেও কেন কেন্দ্রের নাম থাকবে তা নিয়ে বিরোধিতা ছিলই। এবার মুখ্যমন্ত্রী তুললেন নতুন অপত্তি, প্রধানমন্ত্রীর ও পদ্ম ফুলের ছবি কেন থাকবে?

মোদীর প্রকল্পে আর টাকা দেবেন না মমতা, কেন্দ্র রাজ্য সম্পর্ক তলানিতে/The News বাংলা
মোদীর প্রকল্পে আর টাকা দেবেন না মমতা, কেন্দ্র রাজ্য সম্পর্ক তলানিতে/The News বাংলা

নির্বাচিত সরকারকে এড়িয়ে, সমান্তরালভাবে রাজ্য চালাচ্ছে কেন্দ্র। বৃহস্পতিবার কৃষ্ণনগরের সভা থেকে বিস্ফোরক অভিযোগও করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নদিয়ার সভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী অভিযোগ করেন, সরকারি প্রকল্পে লাগানো হচ্ছে পদ্মফুলের লোগো। চলছে বিজেপির প্রচার।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আয়ুষ্মান প্রকল্পের ৪০ শতাংশ রাজ্যের অংশীদারী। ওই প্রকল্প নিজেদের বলে প্রচার চালাচ্ছে বিজেপি। রাজ্য সরকার আর ৪০ শতংশ টাকা দেবে না। কেন্দ্রীয় সরকার যদি প্রকল্পটি চালাতে চায় তবে তাদের পুরো টাকা দিতে হবে’। মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণার পরই নবান্ন থেকে অতিরিক্ত মুখ্যসচিব রাজীব সিনহার লেটারহেডে চিঠি পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারকে।

‘আয়ুষ্মান ভারত স্বাস্থ্যসাথী’ নামে এই স্বাস্থ্যপ্রকল্প যে এবার বাংলায় মুখ থুবড়ে পড়বে তা বলাই যায়। কেন্দ্র ১০০ শতাংশ টাকা দিয়ে একটা রাজ্যে এই প্রকল্প চালাবে এই আশা করছেন না কেউই। এর ফলে ভোটের আগে কেন্দ্র রাজ্য সম্পর্ক তলানিতে এসে ঠেকল, সেটা বলাই যায়।

আরও পড়ুনঃ

নরেন্দ্র মোদী সরকারের ইচ্ছে বহাল, ফের অপসারিত সিবিআই প্রধান

বাংলায় রাস্তায় বিজেপির রথ চলবে কিনা ঠিক হবে আগামী মঙ্গলবার

গুরুবারে শুরু অযোধ্যায় রাম মন্দির বাবরি মসজিদ শেষ লড়াই

ভোটের হাতিয়ার, লোকসভার পর রাজ্যসভাতেও পাস হিন্দু সংরক্ষণ বিল

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন