খেয়েছেন যারা কাটমানি, দাদারা অথবা দিদিমণি, কাটমানি নিয়ে মমতাকেই আক্রমণ নচিকেতার

518
খেয়েছেন যারা কাটমানি, দাদারা অথবা দিদিমণি, কাটমানি নিয়ে মমতাকেই আক্রমণ নচিকেতার/The News বাংলা
খেয়েছেন যারা কাটমানি, দাদারা অথবা দিদিমণি, কাটমানি নিয়ে মমতাকেই আক্রমণ নচিকেতার/The News বাংলা

খেয়েছেন যারা কাটমানি, দাদারা অথবা দিদিমণি; এবার কাটমানি নিয়ে নিজের গানে মমতাকেই আক্রমণ নচিকেতার। ফিরে এলেন নচিকেতা; হ্যাঁ এমনই বলছেন নচিকেতা ভক্তরা। বাম আমলে সেই বিদ্রোহী; স্টেজ কাঁপানো গায়ক আবার স্বমহিমায় ফিরছেন বলেই দাবী করেছেন নচিকেতা ফ্যানরা।

ডাক্তার থেকে রাজনীতিবিদ; কেউই ছাড়া পাননি নচিকেতার গানের আক্রমণ থেকে। তবে তৃণমূল আমলে তাঁর গানের সেই ঘাত আর পাননি শ্রোতারা। সিঙ্গুর-নন্দীগ্রামের সময় থেকেই; একুশে জুলাইয়ের মঞ্চে তাঁকে দেখা গিয়েছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ঠ শিল্পী হিসাবে; তাঁর নতুন পরিচয় তৈরি হয়েছিল। সেই নচিকেতাই এবার হানা দিলেন তৃণমূলের শিবিরে।

আরও পড়ুনঃ তৃণমূলের হাত থেকে এবার বাংলায় জেলাপরিষদ ছিনিয়ে নিতে চলেছে বিজেপি

নচিকেতা এবার গান বাঁধলেন; এইসময়ের সবচেয়ে বড় ইস্যু ‘কাটমানি’ নিয়ে। তৃণমূলকে ঠুকে নচিকেতা ফের বিদ্রোহী মেজাজে গাইলেন; “মন্ত্রী অথবা আমলা/জনরোষ এবার সামলা/তুলবে চামড়া অসাধু দামড়া/বাতাসে বাজছে রুদ্রবীণ-আসছে দিন”। নচিকেতার এই গান-বোমা এখন বিরোধী শিবিরের অস্ত্র হয়ে উঠেছে। মমতার কাটমানি মন্তব্য এখন; নচিকেতার ব্যঙ্গাত্মক গান হয়ে সব বাঙালির মোবাইলে।

https://www.facebook.com/thenewsbangla.official/videos/309532546598186/

কিন্তু হঠাৎ তৃণমূলের বিরুদ্ধাচারন কেন? নচিকেতার ভক্তরা বলছেন; নচিদার বিদ্রোহী মনোভাব আবার ফিরে এসেছে। অনেকেই বলছেন; সাধারণ মানুষ যে ভাবে তৃণমূলপন্থি বুদ্ধিজীবীদের নিচু ও ব্যাঙ্গাতক নজরে দেখছে এখন; সেখান থেকে সরতেই নচিকেতার; এই সম্পূর্ণ ভোলবদল করে পুরনো বিদ্রোহী রূপে ফিরে আসা।

আরও পড়ুনঃ উষসী সেনগুপ্ত হেনস্থা মামলায় জামিনে মুক্ত রাতের দুষ্কৃতীরা

ইতিমধ্যে বাবুল সুপ্রিয় ধন্যবাদ জানিয়েছেন নচিকেতাকে। বিজেপির কেন্দ্রীয় মন্ত্রী টুইটারে লিখেছেন,”মানুষের মনের কথা গানের মাধ্যমে সঠিক মাত্রার স্যাটায়ার এর তড়কা লাগিয়ে; সকলের সামনে নিয়ে আসার জন্য নচিকেতা-দাকে আমার অশেষ ধন্যবাদ”। এমনিতেই কাটমানি ইস্যু নিয়ে তৃণমূল শিবিরে অস্থিরতা চলছে। জমে থাকা বারুদে নচিকেতার এই গান; এবার আগুনে ঘি ঢালার কাজ করল; বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

ইতিমধ্যেই গান ভাইরাল। বিরোধীদের তরফ থেকে এই গানকে শেয়ার করে; আরও ভাইরাল করা হচ্ছে। বাবুল সুপ্রিয়র ‘এই তৃণমূল আর না’; এই গানের পর নচিকেতার খেয়েছেন যারা কাটমানি/ দাদারা অথবা দিদিমণি; এখন রাজ্যে হিট। আর এইগুলোই ২০২১ এ পরিবর্তনের পরিবর্তন ঘটাবে; এমনটাই মনে করছে লোকসভায় বাংলায় ভালো ফল করা বিজেপি নেতারা।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন