গণ ইস্তফা দিতে শুরু করলেন এনআরএস হাসপাতালের ডাক্তাররাও

411
গণ ইস্তফা দিতে শুরু করলেন এনআরএস হাসপাতালের ডাক্তাররাও/The News বাংলা
গণ ইস্তফা দিতে শুরু করলেন এনআরএস হাসপাতালের ডাক্তাররাও/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

মমতার বিরোধিতা করে, গণ ইস্তফা দিতে শুরু করলেন; এনআরএস হাসপাতালের ডাক্তাররাও। এনআরএস হাসপাতালের প্রিন্সিপাল প্রফেসর শৈবাল মুখোপাধ্যায় ও সুপার ভাইস প্রিন্সিপাল প্রফেসর সৌরভ চট্টোপাধ্যায়; ইতিমধ্যেই নিজেদের ইস্তফাপত্র জমা দিয়েছেন রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের কর্তাদের কাছে।

পতদ্যাগ করলেন নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের; অধ্যক্ষ ও উপাধ্যক্ষ তথা মেডিক্যাল সুপারিনটেন্ডেন্ট। নিজেদের পদত্যাগপত্র মেল করে; স্বাস্থ্যভবনে পাঠান তাঁরা। সকালেই এনআরএস কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধেই; অসহযোগিতার অভিযোগ করছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুনঃ মুখ্যমন্ত্রী মমতার হুঁশিয়ারির প্রতিবাদে এবার গণ ইস্তফা ডাক্তারদের

এনআরএস হাসপাতালের প্রিন্সিপাল শৈবাল মুখোপাধ্যায় ও সুপার ভাইস প্রিন্সিপাল সৌরভ চট্টোপাধ্যায়; ইস্তফাপত্র জমা দেওয়ার পর ডাক্তারদের চাকরি ছাড়ার ধূম পরে গেছে। ইতিমধ্যেই ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগের সব ডাক্তারই; ইস্তফা দেবেন বলে জানা গেছে। অন্যান্য বিভাগের ডাক্তাররাও ইস্তফা দিচ্ছেন; বলেই জানা গেছে।

আরও পড়ুনঃ মুখ্যমন্ত্রী মমতার হুঁশিয়ারিকে পাত্তা না দিয়ে আন্দোলন চালিয়ে যাবার সিদ্ধান্ত ডাক্তারদের

পদত্যাগপত্রে অধ্যক্ষ শৈবাল মুখোপাধ্যায় লিখেছেন; এনআরএসে অচলাবস্থা মোকাবিলায় ব্যর্থ তিনি। সবরকম দায়িত্ব থেকে; তাঁকে মুক্তি দেওয়া হোক। একই কারণ দেখিয়ে পদত্যাগ করলেন; সহঅধ্যক্ষ সৌরভ চট্টোপাধ্যায়ও। ইস্তফাপত্রে তিনিও লিখেছেন; ১০ জুন থেকে চলা অচলাবস্থার সমাধানে ব্যর্থ তিনি।

এদিকে আগেই মুখ্যমন্ত্রীর চরম হুঁশিয়ারির প্রতিবাদে; গণ ইস্তফা দিলেন সাগর দত্ত মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ১১ জন চিকিৎসক। এঁদের মধ্যে তিন চিকিৎসক মেডিসিন বিভাগের। নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক এক চিকিৎসক জানান; তাঁরা ইস্তফা দিলেও, ইস্তফা গ্রহণের প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হয়নি।

আরও পড়ুনঃ মমতার হুশিয়ারির পরে, পুলিশের সামনেই আন্দোলনকারী ডাক্তারদের উপর ফের বহিরাগত হামলা

জুনিয়র ডাক্তারদের আন্দোলনের জেরে; এবার চিকিৎসকদের গণ ইস্তফার ঘটনা ঘটল। নিরাপত্তার দাবিতে পদত্যাগ করলেন; উত্তর ২৪ পরগনার কামারহাটির সাগর দত্ত মেডিক্যাল কলেজের ১১ জন চিকিৎসক। তাঁদের অভিযোগ; কাজের পরিবেশ নেই হাসপাতালে। তাঁরাও নিরাপত্তার অভাব বোধ করছেন। মেডিসিন বিভাগের পর সার্জারি বিভাগের ডাক্তাররাও; গণ ইস্তফা দেবেন বলেই জানা যাচ্ছে।

সব মিলিয়ে রাজ্য জুড়ে ডাক্তারদের যেন; ইস্তফা দেবার ধূম পরে গেছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর হুঁশিয়ারি ও ডাক্তারদের প্রতি অসম্মানজনক মন্তব্যের পরিপেক্ষিতেই; এই সমস্ত ইস্তফা বলেই মনে করছে চিকিৎসক মহল। এই ইস্যুতে ব্যপক সমস্যায় রাজ্য সরকার ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন