যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তারাই শুনবে স্কুল সার্ভিস কেলেঙ্কারির ঘটনা

330
২৯ দিনে অনশন তুলল স্কুল সার্ভিস উত্তীর্ণরা, জুনে সুরাহা না হলে আবার শুরু/The News বাংলা
২৯ দিনে অনশন তুলল স্কুল সার্ভিস উত্তীর্ণরা, জুনে সুরাহা না হলে আবার শুরু/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

মমতার জমানাতেই ভেঙে গেল মমতার রেকর্ড। সিঙ্গুর আন্দোলন নিয়ে ধর্মতলায় তাঁর টানা ২৫ দিনের অনশন আন্দোলনের রেকর্ড ভেঙে দিলেন তাঁর রাজ্যের স্কুল সার্ভিস উত্তীর্ণরা। মমতার রেকর্ড ভাঙল সেই মমতাই যখন মুখ্যমন্ত্রী। আজ ২৭ দিনে পড়ল কলকাতা প্রেস ক্লাবের সামনে স্কুল সার্ভিস কমিশনের বিরুদ্ধে চাকরিপ্রার্থীদের অনশন আন্দোলন। এদিকে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় স্কুল সার্ভিস কেলেঙ্কারির অভিযোগ শুনতে গড়েছেন ৫ সদ্যস্যের তদন্ত কমিটি। যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তারাই শুনবে অভিযোগ। তারাই করবে স্কুল সার্ভিস কেলেঙ্কারির তদন্ত, বলছে স্কুল সার্ভিস উত্তীর্ণরা।

স্কুল সার্ভিস নিয়ে পড়ুনঃ ২৮ দিনে টনক নড়ল মমতার, স্কুল সার্ভিস অনশন মঞ্চে মুখ্যমন্ত্রী

স্কুল সার্ভিস কমিশন (এসএসসি)-এর পরীক্ষায় উত্তীর্ণ কর্মপ্রার্থীদের অনশন মঙ্গলবার ২৭ দিনে পড়ল। তাঁদের সমস্যার সুরাহায় শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের গড়া পাঁচ সদস্যের কমিটির কাছে, আজ মঙ্গলবার লিখিত অভিযোগ জানাবেন অনশনকারীরা। বলবেন তাঁদের অভিযোগের কথা। দুর্নীতি হয়েছে কিনা তা দেখতে কে কে আছেন কমিটিতে?

স্কুল সার্ভিস নিয়ে পড়ুনঃ খোলা রাস্তায় বসে মমতার ঘেরাটোপ অনশনের রেকর্ড ভাঙল স্কুল সার্ভিস উত্তীর্ণরা

শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় স্কুল সার্ভিস এর বিরুদ্ধে অভিযোগ শুনতে গড়েছেন ৫ সদ্যস্যের তদন্ত কমিটি। ওই কমিটিতে আছেন, স্কুলশিক্ষা দফতরের সচিব মণীশ জৈন, এসএসসি চেয়ারম্যান সৌমিত্র সরকার সহ পাঁচ জন। নথি ও প্রমাণ নিয়ে মঙ্গলবার বেলা ১টায় বিকাশ ভবনে এই কমিটির কাছে যাচ্ছে অনশনকারীরা। লিখিত অভিযোগ জমা দেওয়া হবে তাদের তরফ থেকে। “নথি দিয়ে আমরা প্রমাণ করব, এসএসসি-র নিয়োগ প্রক্রিয়ায় অনিয়ম হয়েছে”, বলেছেন অনশনকারীরা।

আরও পড়ুনঃ কাশ্মীর কি কলি, নজিরবিহীন কটাক্ষ তৃণমূল নেত্রী মমতাকে

কিন্তু রাজ্য প্রশাসন, স্কুলশিক্ষা দফতর, এসএসসি এরা তো মানেই নি, যে কোন দুর্নীতি হয়েছে। তারাই এবার রয়েছে এই কমিটিতে। দুর্নীতির অভিযোগ, রাজ্য প্রশাসন তথা তৃণমূল কংগ্রেস নেতা মন্ত্রীদের দিকেই। সেক্ষেত্রে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় এর তৈরি স্কুল সার্ভিস কেলেঙ্কারির তদন্ত করতে যে ৫ সদ্যস্যের তদন্ত কমিটি গড়া হয়েছে তাতে আদৌ কোন লাভ হবে? প্রশ্ন অনশনকারীদের।

আরও পড়ুনঃ কেন্দ্রে ক্ষমতায় এলে ২ দিনের মধ্যে কাশ্মীর সমস্যার সমাধান করার চ্যালেঞ্জ মমতার

কেন এই কমিটিতে রাখা হল না কোন প্রাক্তন বিচারপতিকে? কেন রাখা হল না বিরোধী কোন দলের বিধায়ক বা অন্য কাউকে? স্কুলশিক্ষা দফতরের সচিব মণীশ জৈন, এসএসসি চেয়ারম্যান সৌমিত্র সরকার এরা সরকারের বিরুদ্ধে গিয়ে কোন কথা বলতে পারবেন? এঁরা আগেই বলে দিয়েছেন কোন দুর্নীতি হয়নি। তাহলে এই কমিটি নতুন কিছু কি বলতে পারবে? উঠেছে প্রশ্ন।

আরও পড়ুনঃ বাবুল সুপ্রিয়র প্রার্থীপদ বাতিল করা হোক, নির্বাচন কমিশনে অভিষেক

টানা ২৭ দিনের আন্দোলন ভোটের মুখে যথেষ্ট অস্বস্তিতে ফেলেছে রাজ্য সরকারকে। আর সেই থেকে বাঁচতেই এই ৫ সদস্যর কমিটি গড়ে মুখ রক্ষা করার চেষ্টা, বলছে বিজেপি, সিপিএম ও কংগ্রেস নেতারা। অনশনকারীদের কোন সঠিক ও যথার্থ প্রমাণ থাকলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে, জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। আশায় বাঁচে চাষা! কিছুই হবে না জেনেও, তাও নিজেদের অভিযোগ প্রমাণ ও নথি দিয়ে জানাবেন অনশনকারীরা।

আরও পড়ুনঃ নির্বাচন কমিশনের নতুন অ্যাপ সি ভিজিল, জনতার অভিযোগে ১০০ মিনিটের মধ্যে ব্যবস্থা

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন