ভোরবেলায় লাঠিচার্জ করে মাদ্রাসা সার্ভিস উত্তীর্ণদের মেরে ওঠাল পুলিশ

374
দুর্নীতির অভিযোগ তোলায় মাদ্রাসা সার্ভিস উত্তীর্ণদের মেরে ওঠাল পুলিশ/The News বাংলা
দুর্নীতির অভিযোগ তোলায় মাদ্রাসা সার্ভিস উত্তীর্ণদের মেরে ওঠাল পুলিশ/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

স্কুল সার্ভিস উত্তীর্ণদের সঙ্গে একই মঞ্চে আন্দোলন করছিল ওরাও। কিন্তু স্কুল সার্ভিস আন্দোলন উঠে যাওয়ায় কলকাতা প্রেস ক্লাবের পাশে আন্দোলনে সত্যি সংখ্যালঘু হয়ে পরে ওরা। আর তারপরেই ভোরবেলায় লাঠিচার্জ করে মাদ্রাসা সার্ভিস উত্তীর্ণদের মেরে ওঠাল পুলিশ। ঘটনায় দুই মাদ্রাসা পরীক্ষার্থী গুরুতর আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। এদের নাম মিজান ও মণিরুল বলে জানা গেছে। এদের দুজনকেই গুরুতর আহত অবস্থায় এসএসকেএম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশের তরফ থেকে লাঠি চালানোর অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে।

স্কুল সার্ভিস নিয়ে পড়ুনঃ ২৯ দিনে অনশন তুলল স্কুল সার্ভিস উত্তীর্ণরা, জুনে সুরাহা না হলে আবার শুরু

কলকাতা প্রেস ক্লাবের সামনে স্কুল সার্ভিস আন্দোলনকারীদের মঞ্চেই আন্দোলন শুরু করেছিল মাদ্রাসা সার্ভিস উত্তীর্ণরা। তাদেরও বেশ কয়েক দফা দাবি ছিল। কিন্তু অভিযোগ রাজ্য সরকারের তরফ থেকে কোন কথাই শোনা হয়নি। তাই তারাও স্কুল সার্ভিস আন্দোলনকারীদের মঞ্চেই আন্দোলন শুরু করেছিল। কিন্তু বৃহস্পতিবার স্কুল সার্ভিস উত্তীর্ণদের তরফ থেকে আন্দোলন তুলে নেওয়া হয়। আর শুক্রবার ভোরে মাদ্রাসা সার্ভিস উত্তীর্ণদের মেরে ওঠাল পুলিশ। দুইজন আন্দোলনকারী গুরুতর আহত বলে জানা গেছে।

স্কুল সার্ভিস নিয়ে পড়ুনঃ মমতার কথাতেও ওঠেনি অনশন, পুলিশি অত্যাচারের মুখে স্কুল সার্ভিস অনশনকারীরা

একনজরে দেখে নেওয়া যাক, কি কি দাবি ছিল মাদ্রাসা সার্ভিস উত্তীর্ণদেরঃ
১. স্কুল সার্ভিস এর মতো মাদ্রাসায় 1st Phase, 2nd Phase, 3rd Phase করতে হবে।
২. স্কুল সার্ভিসতে একাধিক ফেজ হলে MSC তে নয় কেন?
৩. মাদ্রাসায় নোটিফিকেশনে মোট সিট ৩১৮৩। অথচ নিয়োগ হলো ১৯৭৩ জন। বাকি ১২১০ সিটের নিয়োগ নেই কেন?
৪. MSC এরকম স্বেচ্ছাচারিতা করে নিয়োগ করলো কেন?

স্কুল সার্ভিস নিয়ে পড়ুনঃ এসএসসি চাকরির আন্দোলন বন্ধের নির্দেশ, জোর করে তুলে দেবার হুমকি পুলিশের

৫. প্রচুর শূন্যপদ থাকা স্বত্বেও এতো জন কে NOT PANEL রাখা হলো কেন?
৬. মাদ্রাসা চেয়ারম্যানের এরকম একগুয়েমি মনোভাব আর কতদিন?
৭. পর্যাপ্ত আসন থাকা স্বত্বেও সমস্ত পদে শিক্ষক নিয়োগ হলো না কেন?
৮. সুপ্রিম কোর্টের আদেশ থাকা স্বত্ত্বেও MSC চেয়ারম্যান এরকম নোংরা খেলা খেলছে কার কথায়?

স্কুল সার্ভিস নিয়ে পড়ুনঃ ২৮ দিনে টনক নড়ল মমতার, স্কুল সার্ভিস অনশন মঞ্চে মুখ্যমন্ত্রী

“আজ পশ্চিমবঙ্গের সর্বত্র এই মত সর্বজন বিদিত যে, এই রাজ্যেও এখন আর টাকা ছাড়া চাকরি হয় না। টাকা ছাড়া যতটুকুও বা হয় তার সংখ্যা নগণ্য। কার্যত‌ই হতাশ শিক্ষিত বেকার ও তাদের অভিভাবক মহল, বিশেষতঃ যারা টাকা দিয়ে সরকারি চাকরি কিনতে অপারগ”। এমনটাই দাবি ছিল আন্দোলনকারী মাদ্রাসা পরীক্ষার্থীদের।

স্কুল সার্ভিস নিয়ে পড়ুনঃ যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তারাই শুনবে স্কুল সার্ভিস কেলেঙ্কারির ঘটনা

তাদের অভিযোগ, “এসএসসি এর পাশাপাশি মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনের বঞ্চিত যোগ্য চাকরি প্রার্থীরা অনশনে বসেছে ন্যায় বিচারের আশায়। এরা আমাদেরই, আমাদেরই ঘরের ছেলেমেয়ে, ভাইবোন। শূন্যপদ থাকা সত্ত্বেও, অন্যায়ভাবে সেই শূন্যপদ কমিয়ে দিয়ে তাদের নট-সিলেক্টেড করে রেখে দিয়েছে মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশন। এই বঞ্চনার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে হবে আমাদের সকলকে, দাঁড়াতে হবে রাস্তায় নেমে এই প্রতিবাদকারীদের পাশে”।

স্কুল সার্ভিস নিয়ে পড়ুনঃ খোলা রাস্তায় বসে মমতার ঘেরাটোপ অনশনের রেকর্ড ভাঙল স্কুল সার্ভিস উত্তীর্ণরা

শুক্রবার ভোরবেলায় লাঠিচার্জ করে মাদ্রাসা সার্ভিস উত্তীর্ণদেরই মেরে ওঠাল পুলিশ। এই আন্দোলনকারীদেরই গ্রেফতারও করা হয়েছে বলে খবর। তবে তারা আন্দোলন চালিয়ে যাবে বলেই জানিয়েছে। পুলিশের তরফ থেকে লাঠি চালানোর অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে। সেনাবাহিনীর জায়গা থেকে বাধ্য হয়েই তুলে দিতে হয়েছে বলেই পুলিশের তরফে জানান হয়েছে।

স্কুল সার্ভিস নিয়ে পড়ুনঃ বাংলা এখন লাশের রাজনীতিতে অভ্যস্থ, শুধু একটা লাশ চাই আমাদের

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন