ভারত পাকিস্থান ও চীন এর হাতে সেনা ও অস্ত্র কত

913
ভারত পাকিস্থান ও চীন এর হাতে সেনা ও অস্ত্র কত/The News বাংলা
ভারত পাকিস্থান ও চীন এর হাতে সেনা ও অস্ত্র কত/The News বাংলা

ভারতের চিরশত্রু পাকিস্তান। আর পাকিস্তানকে সবরকম সাহায্য করছে চীন। একনজরে দেখে নেওয়া যাক ভারত পাকিস্তান আর চীনের ভান্ডারে কি কি অস্ত্র রয়েছে।

ভারত: ১৩ লাখ ২৫ হাজার সেনা। সামরিক প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত জনবল ২১ লাখ ৪৩ হাজার। দুই হাজার ৮৬টি বিমান রয়েছে। এছাড়াও ভারতের ৬৪৬টি হেলিকপ্টার, ১৯টি অ্যাটাক হেলিকপ্টার, ৮০৯টি নির্ধারিত পাখাযুক্ত অ্যাটাক বিমান, ৬৭৯টি যুদ্ধ বিমান, ৩১৮টি প্রশিক্ষণ বিমান এবং ৮৫৭টি ট্রান্সপোর্ট বিমান রয়েছে।

ভারতের ৩৪৬টি ব্যবহার যোগ্য বিমানবন্দর রয়েছে। দেশে ৬ হাজার ৪৬৪টি ট্যাংক, ৬ হাজার ৭০৪টি আর্মার্ড ফাইটার ভেহিক্যাল, ২৯০টি সেল্ফ প্রপেল্ড গান, ৭ হাজার ৪১৪টি টানা কামান এবং ২৯২টি মাল্টিপল লাঞ্চার রকেট সিস্টেম রয়েছে।

আরও পড়ুনঃ কাশ্মীরে লড়ছে মরছে সেনা আর তাঁদের নিয়ে চলছে মুনাফার মারপিট

ভারতের ৩৪০টি মার্চেন্ট মেরিন জাহাজ রয়েছে। প্রধান সমুদ্রবন্দর রয়েছে সাতটি। এছাড়া দুটি বিমানবাহী ক্যারিয়ার, ১৪টি সাবমেরিন, ১৪টি ফ্রিগেট, ১০টি ডেস্ট্রয়ার, ২৬টি কর্ভাটি, ৬টি মাইন ওয়ারফেয়ার ক্রাফ্ট এবং ১৩৫টি পেট্রল ক্রাফট রয়েছে। এছাড়া ভারতের যৌথ সীমান্ত ১৩ হাজার ৮৮৮ কিলোমিটার এবং আয়তনক্ষেত্র ৩২ লাখ ৮৭ হাজার ২৬৩ কিলোমিটার।

পাকিস্তান: ৬ লাখ ২০ হাজার সেনা। সামরিক প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত জনবল ৫ লাখ ১৫ হাজার। সব মিলিয়ে পাকিস্তানে ৯২৩টি বিমান রয়েছে। এছাড়াও দেশটির ৩০৬টি হেলিকপ্টার, ৫২টি অ্যাটাক হেলিকপ্টার, ৩৯৪টি নির্ধারিত পাখাযুক্ত অ্যাটাক বিমান, ৩০৪টি যুদ্ধ বিমান, ১৭০টি প্রশিক্ষণ বিমান এবং ২৬১টি ট্রান্সপোর্ট বিমান রয়েছে। দেশটির ১৫১টি ব্যবহার যোগ্য বিমানবন্দর রয়েছে।

দেশটির ২ হাজার ৯২৪টি ট্যাংক, ২ হাজার ৮২৮টি আর্মার্ড ফাইটার ভেহিক্যাল, ৪৬৫টি সেল্ফ প্রপেল্ড গান, ৩ হাজার ২৭৮টি টানা কামান এবং ১৩৪টি মাল্টিপল লাঞ্চার রকেট সিস্টেম রয়েছে। দেশটির ১১টি মার্চেন্ট মেরিন জাহাজ রয়েছে। প্রধান সমুদ্র বন্দর রয়েছে ২ টি।

আরও পড়ুনঃ ভারতের ভয়ে কাঁপছে পাকিস্তান, অভিনন্দনকে বিমানে আনার প্রস্তাব নাকচ

এছাড়া ৫ টি সাবমেরিন, ১০টি ফ্রিগেট, ৩ টি মাইন ওয়ারফেয়ার ক্রাফ্ট এবং ১৩৫টি পেট্রল ক্রাফট রয়েছে। পাকিস্তানের যৌথ সীমাস্ত ৭ হাজার ২৫৭ কিলোমিটার এবং আয়তনক্ষেত্র ৭ লাখ ৯৬ হাজার ৯৫ কিলোমিটার।

চীন: যুদ্ধের জন্য দেশটির সক্রিয় সেনা ২৩ লাখ ৩৩ হাজার। সক্রিয় সংরক্ষিত সদস্য ২৩ লাখ। স্থলযুদ্ধের জন্য চীনের ট্যাঙ্ক আছে ৯ হাজার ১৫০টি। অস্ত্রবাহী যুদ্ধযান (এএফভি) আছে ৪ হাজার ৭৮৮টি

আরও পড়ুনঃ পাকিস্তানে ভারতীয় সেনার সাহস ও বীরত্ব দেখিয়ে দেশে ফিরলেন অভিনন্দন

সেলফ-প্রপেল্ড গান (এসপিজি) ১ হাজার ৭১০টি। টাওয়েড-আর্টিলারি ৬ হাজার ২৪৬টি। মাল্টিপেল লান্স রকেট সিস্টেমস (এমএলআরএস) ১ হাজার ৭৭০টি। দেশটির মোট সামরিক বিমান ২ হাজার ৮৬০টি। যুদ্ধবিমান ১ হাজার ৬৬টি। ফিক্সড-উইং অ্যাটাক এয়ারক্র্যাফট ১ হাজার ৩১১টি।

পরিবহন বিমান ৮৭৬টি। প্রশিক্ষণ বিমান ৩৫২টি। হেলিকপ্টার ৯০৮টি। অ্যাটাক হেলিকপ্টার ১৯৬টি। মোট নৌ সক্ষমতা ৬৭৩টি। বিমান বহনে সক্ষম রণতরি একটি। ফ্রিগেট ৪৭টি। ডেস্ট্রয়ার ২৫টি, করভেট ২৩টি। সাবমেরিন ৬৭টি, কোস্টাল ডিফেন্স ক্র্যাফট ১১টি, মেরিন ওয়ারফেয়ার ৬টি।

আরও পড়ুনঃ যা হয়েছে তা ট্রেলার, আসল ফিল্ম এখনও বাকি বললেন নরেন্দ্র মোদী

সব মিলিয়ে ধারে-ভারে পাকিস্তানের চেয়ে অনেক এগিয়ে থাকলেও, চীনের চেয়ে বেশ পিছিয়েই আছে ভারত। তবে বাহিনীর সাহস আর জোশ দেখলে ভারত অনেক এগিয়ে প্রতিপক্ষের চেয়ে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন