আইএমএফ রিপোর্টে দ্রুততম অর্থনৈতিক বৃদ্ধির তালিকায় ভারত

327
আইএমএফ রিপোর্টে দ্রুততম অর্থনৈতিক বৃদ্ধির তালিকায় ভারত//The News বাংলা
আইএমএফ রিপোর্টে দ্রুততম অর্থনৈতিক বৃদ্ধির তালিকায় ভারত//The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

দ্রুততম অর্থনৈতিক বৃদ্ধির তালিকায় ভারত, আইএমএফ রিপোর্ট। আর ভোটের আগে এটাকেও নরেন্দ্র মোদী সরকারের সাফল্য বলে ভোটের প্রচারে নেমে পরেছে বিজেপি। এপ্রিলের মধ্যেই পুরো রিপোর্ট প্রকাশ করবে আইএমএফ বা আন্তর্জাতিক অর্থ ভান্ডার। ভোট শুরুর আগেই আইএমএফ বা আন্তর্জাতিক অর্থ ভান্ডারের রিপোর্ট প্রকাশিত হলে তা ভোটের বাজারে বিজেপিকে কিছুটা হলেও সুবিধা দেবে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

আরও পড়ুনঃ লোকসভা রিপোর্টে গত ৫ বছরে তৃণমূল সাংসদদের পারফরম্যান্স লজ্জাজনক

দ্রুততম অর্থনৈতিক বৃদ্ধির তালিকায় শেষ পর্যন্ত ঢুকল ভারত। আইএমএফ বা আন্তর্জাতিক অর্থ ভান্ডারের এই রিপোর্টে বলা হয়েছে, ভারতীয় অর্থনীতির উন্নয়নে গত ৫ বছরে বেশ কিছু সংস্কারমূলক কর্মসূচি গ্রহন করা হয়েছে। যার ফলেই সাফল্যের মুখ দেখছে ভারত। তবে এই ধরনের আরও অনেক নতুন প্রকল্পের দরকার, যা অর্থনীতির বৃদ্ধিকে তরান্বিত করবে।

আরও পড়ুনঃ মোদীকে হঠাতে ভিভিপ্যাটের সংখ্যা বাড়াতে কমিশনে আর্জি মহাজোটের

ভারতের অর্থনৈতিক অগ্রগতির ব্যাপারে জিজ্ঞেস করা হলে আইএমএফের কমিউনিকেশন ডিরেক্টর গ্যারি রাইস জানান, “অবশেষে ভারত দ্রুততম অর্থনৈতিক বৃদ্ধির তালিকায় ঢুকে পড়েছে। তিনি বলেন, গত ৫ বছরে ৭ শতাংশ হারে বেড়েছে ভারতের অর্থনীতি”।

আরও পড়ুনঃ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বে ভরা তৃণমূলের তারকা তালিকা নির্বাচন কমিশনে

এর সাথে তিনি উল্লেখ করেন, গত ৫ বছরে ভারত অর্থনীতিতে এমন কিছু গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিয়েছে, যার ফলে ভারত এই তালিকায় ওপরের দিকে স্থান পেয়েছে। উন্নতির এই ধারা বজায় রাখতে আরও অনেক সংস্কারমূলক পদক্ষেপ দরকার বলে তিনি জানান।

আরও পড়ুনঃ ভোটের গানে বিপাকে বাবুল, কমিশনের হাতে টুইট অস্ত্র

এই রিপোর্ট তৈরি হয়েছে ভারতীয় বংশদ্ভূত ব্রিটিশ নাগরিক গীতা গোপীনাথের তত্ত্বাবধানে। তিনি আইএমএফের প্রধান অর্থনৈতিক উপদেষ্টা। এই রিপোর্টে মোদী সরকারের আমলের অর্থনৈতিক সংস্কারমূলক পদক্ষেপ গুলির জেরেই যে এই উন্নতি, সেটাই বলা হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ বারাণসী থেকে লড়বেন মোদী, গান্ধীনগরে আডবানির পরিবর্তে অমিত শাহ

আইএমএফের কমিউনিকেশন ডিরেক্টর গ্যারি রাইস জানিয়েছেন, “এই বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য আসতে এখনও কিছুটা বাকি রয়েছে”। এপ্রিলেই ওয়ার্ল্ড ইকনমিক সার্ভে রিপোর্টে এই সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য প্রকাশ করা হবে বলে জানানো হয়েছে আইএমএফের কমিউনিকেশন এর তরফ থেকে।

আরও পড়ুনঃ বিজেপির প্রার্থী তালিকা প্রকাশ, বাংলায় বিজেপি প্রার্থীদের নাম

এক্ষেত্রে রাজ্য ও কেন্দ্রস্তরে আলাদা করে সংস্কারমূলক কর্মসূচির বিস্তারিত খতিয়ান দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে। আইএমএফের এই রিপোর্ট কেন্দ্র সরকারকে ভোটের মুখে অনেকটা অক্সিজেন জোগাবে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। আর এটাকেই আপাতত ভোটের অন্যতম হাতিয়ার করতে চলেছে বিজেপি।

আরও পড়ুনঃ বাবুলকে হারাতে ১ কোটি টাকার কাজের টোপ, বিতর্কিত ঘোষণা মেয়রের

আইএমএফ রিপোর্টে মোদী সরকারের আমলের অর্থনৈতিক সংস্কারমূলক পদক্ষেপগুলির প্রশংসা করা হয়েছে। আর এর ফলেই যে দ্রুততম অর্থনৈতিক বৃদ্ধির তালিকায় ভারত স্থান পেয়েছে সেটাই বলা হয়েছে। ফলে ভোটের মুখে মোদী সরকারের আমলের অর্থনৈতিক সংস্কারমূলক পদক্ষেপগুলির বিষয়ে বিরোধীদের জবাব দিতে নতুন হাতিয়ার পেল বিজেপি।

আরও পড়ুনঃ নির্বাচন কমিশনের নতুন অ্যাপ সি ভিজিল, জনতার অভিযোগে ১০০ মিনিটের মধ্যে ব্যবস্থা

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন