লোকসভা রিপোর্টে গত ৫ বছরে তৃণমূল সাংসদদের পারফরম্যান্স লজ্জাজনক

1695
লোকসভা রিপোর্ট বলছে, গত ৫ বছরে তৃণমূল সাংসদদের পারফরম্যান্স লজ্জাজনক/The News বাংলা
লোকসভা রিপোর্ট বলছে, গত ৫ বছরে তৃণমূল সাংসদদের পারফরম্যান্স লজ্জাজনক/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

আবার একটা লোকসভা ভোট সামনে। সব দলই প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করে দিয়েছে। কিন্তু গত পাঁচ বছরে কিরকম পারফরম্যান্স ছিল সাংসদদের? লোকসভা রিপোর্ট বলছে, গত ৫ বছরে তৃণমূল সাংসদদের পারফরম্যান্স খুবই খারাপ। জনগণের টাকায় শেষ ৫ বছরে তৃণমূল সাংসদরা শুধু টাইম পাস করেছেন। লোকসভা রিপোর্ট বলছে, গত ৫ বছরে তৃণমূল সাংসদদের পারফরম্যান্স লজ্জাজনক।

আরও পড়ুনঃ মোদীকে হঠাতে ভিভিপ্যাটের সংখ্যা বাড়াতে কমিশনে আর্জি মহাজোটের

বাংলায় ৪২ টি আসনের মধ্যে ২০১৪ লোকসভাতে তৃণমূল জিতেছিল ৩৪ টিতে। প্রায় ৮০ শতাংশ সাংসদ ছিল ঘাসফুলের। কিন্তু ৫ বছর পর লোকসভা রিপোর্ট বলছে, গত লোকসভায় জেতা তৃণমূলের তারকা সাংসদরা অধিকাংশই লোকসভাতে কোন ভুমিকাই পালন করেননি। পুরোপুরি ব্যর্থ অধিকাংশ সাংসদ।

আরও পড়ুনঃ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বে ভরা তৃণমূলের তারকা তালিকা নির্বাচন কমিশনে

এদের মধ্যে কেউ কেউ হাজির থাকেননি লোকসভা অধিবেশনে। কেউ আবার কোন প্রশ্ন করেননি। কেউ কেউ আবার কোন আলোচনায় অংশ গ্রহণ করেননি। কোন বিরোধী দল নয়, লোকসভা রিপোর্ট বলছে, গত ৫ বছরে বেশ কিছু তৃণমূল সাংসদদের ভূমিকা হতাশজনক। এদের মধ্যে যেমন আছেন রাজনৈতিক নেতা, তেমনই আছেন অভিনেতা অভিনেত্রীরাও।

আরও পড়ুনঃ ভোটের গানে বিপাকে বাবুল, কমিশনের হাতে টুইট অস্ত্র

তৃণমূলের রাজ্য সভাপতি ও দলের বলিষ্ঠ নেতা সুব্রত বক্সির পারফরম্যান্স অত্যন্ত খারাপ। লোকসভা রিপোর্ট বলছে, গত ৫ বছরে তৃণমূল সাংসদ সুব্রত বক্সি কোন প্রশ্ন করেননি। ১ টি মাত্র বিতর্কে অংশ নিয়েছেন। লোকসভায় হাজির থাকার হার ৩২ শতাংশ। যদিও শারীরিক কারণে এবার আর দক্ষিণ কলকাতা থেকে দাঁড়াননি সুব্রত বক্সি।

আরও পড়ুনঃ বারাণসী থেকে লড়বেন মোদী, গান্ধীনগরে আডবানির পরিবর্তে অমিত শাহ

মমতার পর এখন দলের সেকেন্ড ইন কম্যান্ড অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এর রিপোর্ট কি বলছে? লোকসভা রিপোর্ট বলছে, গত ৫ বছরে তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এর পারফরম্যান্স বেশ হতাশজনক। লোকসভাতে তাঁর উপস্থিতির হার মাত্র ২৮ শতাংশ। মাত্র ৩ টি বিতর্কে অংশ গ্রহণ করেছেন ডায়মণ্ডহারবারের তৃণমূল সাংসদ।

আরও পড়ুনঃ বিজেপির প্রার্থী তালিকা প্রকাশ, বাংলায় বিজেপি প্রার্থীদের নাম

দলের আর এক সাংসদ চৌধুরী মোহন জাটুয়ার পারফরম্যান্স অত্যন্ত খারাপ। লোকসভা রিপোর্ট বলছে, গত ৫ বছরে তৃণমূল সাংসদ চৌধুরী মোহন জাটুয়া কোন প্রশ্ন করেননি। কোন বিতর্কে অংশ নিয়েছেন, এমন তথ্যও নেই। এই সাংসদকে ফের দাঁড় করিয়েছেন দলনেত্রি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। স্বাভাবিক ভাবেই প্রশ্ন উঠছে, শুধু কি মুখ দেখানোর জন্যই এই সাংসদ আবার লোকসভায় যাবেন, যেখানে তাঁর কোন ভুমিকাই নেই।

আরও পড়ুনঃ বাবুলকে হারাতে ১ কোটি টাকার কাজের টোপ, বিতর্কিত ঘোষণা মেয়রের

ঘাটালের সাংসদ ও টলিউড নায়ক দেব বা দীপক অধিকারী একেবারেই ফেল করেছেন সাংসদ হিসাবে। লোকসভা রিপোর্ট বলছে, গত ৫ বছরে তৃণমূল সাংসদ দেবের পারফরম্যান্স অত্যন্ত খারাপ। লোকসভাতে তাঁর উপস্থিতির হার মাত্র ১১ শতাংশ। সাকুল্যে মাত্র ৩ টি প্রশ্ন করেছেন আর মাত্র ২ টি আলোচনায় অংশ গ্রহণ করেছেন। শেষ একবছরে মোট ৫ টি অধিবেশনে তাঁর উপস্থিতি ছিল মাত্র ৭ শতাংশ। সাংসদ হিসাবে একেবারেই ব্যর্থ দেব ফের আরেকবার সংসদে গিয়ে কি করবেন, উঠছে প্রশ্ন।

আরও পড়ুনঃ বাম কংগ্রেস বিজেপির আপত্তি নেই, কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়ে কেন মাথাব্যথা শুধু তৃণমূলের

মুনমুন সেন, শতাব্দী রায়, সন্ধ্যা রায়, সুগত বসু, বিজয়কৃষ্ণ বর্মণ, মমতাবালা ঠাকুর, প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়, তাপস পাল এঁরা প্রত্যেকেই সম্পূর্ণভাবে ব্যর্থ। এদের লোকসভায় পাঠিয়ে তাহলে কি লাভ হল? প্রশ্ন কিন্তু উঠছে। এমনকি সন্ধ্যা রায় লোকসভার শেষ অধিবেশনে একটি প্রশ্ন করায় হাততালি দেয় গোটা লোকসভা। যাতে লজ্জায় অধোবদন হয় গোটা রাজ্য।

আরও পড়ুনঃ মিমি নুসরত এর চরিত্র নিয়ে কটাক্ষ বিতর্কে জড়ালেন দিলীপ ঘোষ

আবার এদের মধ্যে থেকেই কিন্তু সাংসদ হিসাবে নিজেকে দেশের সেরা প্রতিপন্ন করেছেন তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়। লোকসভায় উপস্থিতি, বিতর্কে অংশ গ্রহণ, প্রশ্ন সবেতেই ২০০৯ থেকে ২০১৯, সেরা সাংসদ তিনি। তাঁকে দেখেও কেন শিখতে পারলেন না বাকিরা? উঠছে প্রশ্ন।

আরও পড়ুনঃ অনুব্রত মন্ডলের বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ নির্বাচন কমিশনের

এদের মধ্যে মুনমুন সেন, শতাব্দী রায়, দেব, বিজয়কৃষ্ণ বর্মণ, মমতাবালা ঠাকুর, প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায় ফের প্রার্থী এবারও। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন পারফরম্যান্সই দেখা হবে। কিন্তু লোকসভা রিপোর্ট বলছে, পারফরম্যান্স না থাকলেও ফের তৃণমূল প্রার্থী হলেন অনেক সাংসদ। লোকসভায় নিজের এলাকা বা বাংলার হয়ে প্রশ্ন তোলার বদলে তাহলে কি করলেন তৃণমূল সাংসদরা? উঠছে প্রশ্ন।

আরও পড়ুনঃ তৃণমূলের তারকা প্রার্থী নিয়ে অশ্লীল ও বিতর্কিত মন্তব্য ক্ষিতির

এদের মধ্যে অনেককেই ফের সাংসদে পাঠাতে ভোটে দাঁড় করিয়েছেন মমতা। আবার লোকসভায় গিয়ে কি করবেন এই সাংসদরা? মানুষের টাকায় এদের সাংসদ করে কি লাভ যারা লোকসভার যোগ্য নন? আবার একই ঘটনা ঘটনার জন্যই কি ফের দিল্লি যাচ্ছেন এঁরা। প্রশ্ন কিন্তু উঠছে।

আরও পড়ুনঃ নির্বাচন কমিশনের নতুন অ্যাপ সি ভিজিল, জনতার অভিযোগে ১০০ মিনিটের মধ্যে ব্যবস্থা

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন