দেশপ্রেম বাড়াতে স্কুলের রোল কলে এবার ‘জয় হিন্দ’ ও ‘জয় ভারত’

1263
দেশপ্রেম বাড়াতে স্কুলের রোল কলে এবার 'জয় হিন্দ' ও 'জয় ভারত'/The News বাংলা
দেশপ্রেম বাড়াতে স্কুলের রোল কলে এবার 'জয় হিন্দ' ও 'জয় ভারত'/The News বাংলা

The News বাংলা: ‘ইয়েস স্যার’, ‘প্রেজেন্ট স্যার’, ‘ইয়েস ম্যাডাম’, ‘প্রেজেন্ট ম্যাডাম’ বা ‘প্রেজেন্ট প্লিজ’ এর দিন শেষ হয়ে গেল। স্কুলে এবার রোল কলের সময়, ছাত্র ছাত্রীদের বলতে হবে ‘জয় হিন্দ’ বা ‘জয় ভারত’। নতুন ফরমান জারি হল বিজেপি শাসিত গুজরাতের সব স্কুলে। এখন রোল নাম্বার ওয়ান, ‘জয় হিন্দ-জয় ভারত’।

আরও পড়ুন: শুধুই হ্যাপি নিউ ইয়ার নয়, ১লা জানুয়ারী ঠাকুর শ্রী রামকৃষ্ণের কল্পতরু উৎসবও

পড়ুয়াদের মনে দেশপ্রেমের বোধ জাগিয়ে তোলার চেষ্টা! গুজরাতের সব সরকারি স্কুলে ও সব বেসরকারি স্কুলে, এবার ক্লাসে রোল কলের সময় বরাবরের নিয়ম মতো, ইয়েস স্যার’, ‘প্রেজেন্ট স্যার’, ‘ইয়েস ম্যাডাম’, ‘প্রেজেন্ট ম্যাডাম’ বা ‘প্রেজেন্ট প্লিজ’-এর পরিবর্তে পড়ুয়াদের ১লা জানুয়ারী থেকে বলতে হবে ‘জয় হিন্দ’! বা জয় ভারত! ২রা জানুয়ারী স্কুল খুললেই চালু হয়ে যাবে এই নিয়ম।

আরও পড়ুন: শেখ হাসিনাকে প্রথম অভিনন্দন জানালেন নরেন্দ্র মোদী ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

বিজয় রূপানির গুজরাত সরকার রীতিমত গভর্নমেন্ট রেসলুশন বা ‘জি আর’ জারি করে এই সরকারী নির্দেশের কথা সব স্কুলে জানিয়ে দিয়েছে। এই সার্কুলার ইস্যু করেছে গুজরাত সেকেন্ডারী এন্ড হায়ার সেকেন্ডারী এডুকেশন বোর্ড ও ডিরেক্টর অফ প্রাইমারি এডুকেশন, গুজরাত। আগামীকাল ২ রা জানুয়ারী থেকেই গুজরাতের সমস্ত সরকারি ও বেসরকারি স্কুলেই এই নির্দেশ কঠোর ভাবে পালন করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ অবিশ্বাস্য জয়, ২৯৯ আসনের মধ্যে ২৮৮ আসনে জিতে ফের ক্ষমতায় শেখ হাসিনা

আরএসএস সংগঠন এর অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ (এবিভিপি) গত সপ্তাহে সন্দীপ জোশী নামে এক ইতিহাসের শিক্ষককে সম্মানিত করে। তিনিই এই পরামর্শ দেন বলে জানা গেছে। আর তারপরেই নতুন বছরে নতুন এই সার্কুলার জারি করে দিল গুজরাত সরকার।

আরও পড়ুনঃ তিন তালাক বিল পেশ রাজ্যসভায়, সরকারের বিরুদ্ধে একজোট বিরোধীরা

সন্দীপ জোশী রাজস্থানের জালোর জেলার একটি স্কুলে রোল কল করার সময় ছাত্র ছাত্রীদের ‘জয় হিন্দ’ ও ‘জয় ভারত’ বলার ফরমান জারি করেছেন। আর তার জন্যই তাকে সম্মানিত করে এবিভিপি। আর তাঁর দেখানো পথ অনুসরণ করেই এবার গুজরাত সরকার গোটা রাজ্যেই এই নির্দেশ বলবৎ করে দিল।

আরও পড়ুনঃ নতুন বছরে পেট্রোল ডিজেলের দাম রেকর্ড কমতে চলেছে

গুজরাতের শিক্ষামন্ত্রী ভুপেন্দ্র সিং চৌদাসামা জানিয়েছেন, এই ধরনের উদ্যোগ ছাত্রজীবন থেকেই ভারতবাসীর মনে দেশপ্রেম জাগিয়ে তুলবে। নতুন দিগন্ত দেখাবে এই সিদ্ধান্ত।

আরও পড়ুনঃ কাশ্মীরে অনুপ্রবেশকারী হিংস্র পাকিস্তান ব্যাট সেনাকে খতম ভারতীয় সেনার

এর আগেও বিজেপি শাসিত রাজস্থান ও মধ্যপ্রদেশের স্কুলে ‘জয় হিন্দ’ ও ‘জয় ভারত’ বলার নির্দেশ জারি হয়েছিল। এমন সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছিলেন আগের বিজেপি শাসিত মধ্যপ্রদেশের স্কুল শিক্ষামন্ত্রী বিজয় শাহ।

আরও পড়ুনঃ চিন সীমান্তে ভগবান হয়ে পর্যটকদের উদ্ধার ভারতীয় সেনার

তিনি জানিয়েছিলেন, দেশপ্রেমের প্রশ্ন জড়িয়ে রয়েছে, তাই স্কুলগুলি তা কার্যকর করবে। পরীক্ষামূলক ভাবে সফল হলে এরপর রাজ্যের সব স্কুলেই ইয়েস স্যার বা ম্যাডামের পরিবর্তে পড়ুয়াদের জয় হিন্দ বলা বাধ্যতামূলক হবে। তবে রাজস্থান ও মধ্যপ্রদেশ দুটি রাজ্যেই এখন কংগ্রেস শাসন।

আরও পড়ুন: বছর শেষে আবার ইন্দ্রপতন, প্রয়াত চিত্র পরিচালক মৃনাল সেন

বেশ কিছুদিন ধরেই কচিকাচাদের মধ্যে দেশপ্রেম ভাবনা জাগিয়ে তোলার ‘ব্রত’ নিয়েছে বিজেপি শাসিত সরকারগুলো। গত ডিসেম্বরেই বিজেপি শাসিত বেশ কিছু রাজ্যের অনেক স্কুলেই জাতীয় সঙ্গীত গাওয়া ও তেরঙ্গা পতাকা উত্তোলন বাধ্যতামূলক হয়েছে। এবং বলেই দেওয়া হয়েছে, নির্দেশ অক্ষরে অক্ষরে পালিত না হলে সংশ্লিষ্ট স্কুলকে তিরস্কার করা হবে। এমনকী তার স্বীকৃতি পর্যন্ত বাতিল করা হতে পারে।

আরও পড়ুন: লোকসভার আগেই রামমন্দির রায় দিতে সুপ্রিম কোর্টকে আর্জি মোদীর মন্ত্রীর

তবে এবার বিজয় রূপানির গুজরাত সরকার রীতিমত গভর্নমেন্ট রেসলুশন বা ‘জি আর’ জারি করে এই সরকারী নির্দেশের কথা সব স্কুলে জানিয়ে দিল। পিকনিক নয়, আপাতত ছাত্র ছাত্রীরা বাড়িতে প্র্যাকটিসে। রোল নাম্বার ওয়ান, ‘জয় হিন্দ-জয় ভারত’।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন