অভিনেতা ও সাংসদ দেবকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে দাবি কবীর সুমনের

377
মহানায়ক দেবকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে দাবি কবীর সুমনের/The News বাংলা
মহানায়ক দেবকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে দাবি কবীর সুমনের/The News বাংলা

অভিনেতা ও সাংসদ দেবকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে দাবি কবীর সুমনের। কবীর সুমন একটা ফেসবুক পোস্ট করেন। তাতে তিনি যে তাঁর পরের ছবির প্রযোজক দেব এবং পরিচালক অনিকেত চট্টোপাধ্যায়ের উপর খুব ক্ষিপ্ত তা বুঝিয়ে দেন। দেবের প্রযোজনায় কিছুদিনের মধ্যেই মুক্তি পেতে চলেছে “হবুচন্দ্র রাজা আর গবুচন্দ্র মন্ত্রী” নামক এক ছবি। এই ছবিতেই সংগীত পরিচালনা করেছেন কবীর সুমন। আর এই নিয়েই শুরু হয়েছে জোর বিতর্ক।

আরও পড়ুনঃ ঘাসফুলে ভোট দিলে শান্তি পাবে মায়ের আত্মা, সুচিত্রার নাম করে ভোট প্রার্থনা মুনমুনের

সম্প্রতি এক সাংবাদিক বৈঠকে দেব এবং এই ছবির পরিচালক অনিকেত চট্টোপাধ্যায়, ছবির সংগীত পরিচালকের সম্বন্ধে বলতে গিয়ে দেব বলেন, “কবীর সুমন কে হ্যান্ডেল করা খুব কঠিন ছিল”। এই মন্তব্যের জন্যেই রেগে গিয়েছেন সুমন।

আরও পড়ুনঃ চিত্র পরিচালক, লেখক ও বিজ্ঞানীদের পর এবার ৬০০ নাট্যকর্মী ঘৃণার রাজনীতির বিরুদ্ধে

তিনি ফেসবুকে এই কথা সরাসরি পোস্ট করে জানান তিনি ভীষণ অপমানিত বোধ করেছেন। এর আগে, অনিকেত চট্টোপাধ্যায়ের ছবি “শঙ্কর মুদি”র সংগীত পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন তিনি। তাই, তিনি তাঁর প্রতিও খুব ক্ষুব্ধ।

আরও পড়ুনঃ চিত্র পরিচালক ও লেখকদের পর ঘৃণার রাজনীতি নিয়ে সরব দেশের সেরা বিজ্ঞানীরা

কবীর সুমন জানান, তাকে কোন কাজ দেওয়া হলে, সে সবসময় সেটা নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই শেষ করেন। তবুও তার বিরুদ্ধে এরকম অভিযোগ কেন করেছে দেব, তাই নিয়ে প্রশ্ন করেন সুমন।

আরও পড়ুনঃ বিজেপি নেতাদের মাথা কেটে দেবার নির্দেশ দিলেন কংগ্রেস নেতা, ভাইরাল ভিডিও

কবীর সুমন জানান, দেবের সঙ্গে এটা তাঁর প্রথম কাজ হলেও, অনিকেত চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে আগেও কাজ করেছেন তিনি। তাহলে, কেন এইরকম অপমান তাকে করা হল, সেই প্রশ্নই বারবার করেছেন সংগীত শিল্পী।

আরও পড়ুনঃ ঘৃণার রাজনীতির বিরুদ্ধে ভোট দেওয়ার আবেদন জানালেন দেশের ২০০ জন লেখক

এদিকে পরিচালক অনিকেত হোয়াটস ক্ষমা চেয়ে নেন সুমনের কাছে, কিন্তু তাতেও বরফ গলেনি। সুমন চান দেব ও অনিকেতকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে তার কাছ থেকে।

আরও পড়ুনঃ বিরোধীদের সব অভিযোগ উড়িয়ে মমতার পুলিশ দিয়েই ভোট হবে রাজ্যে

অনিকেত চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন উনি কবীর সুমনের টাকা মেটানোর জন্য যোগাযোগ করতে চেষ্টা করেছিলেন, কিন্তু কবীরের সাথে যোগাযোগ করা যায়নি। অনিকেত আরো বলেন, ‘আমি বা দেব কেউই চাইবো না,কোন শিল্পী তার প্রাপ্য থেকে বঞ্চিত হন’।

আরও পড়ুনঃ কলকাতার পুলিশ কমিশনার বদল, মমতা ঘনিষ্ঠ অফিসারদের ভোট থেকে দূরে রাখা হল

চুক্তির কাজ এগোনোর আগেই কবীর সুমনের ফেসবুক পোস্টের জন্য দেব ও অনিকেত বেশ বিব্রত। ওদের কথায় সবটাই সামান্য ভুল বোঝাবুঝি। কিন্তু সুমন সেটাই প্রকাশ্যে এনে লজ্জায় ফেলে দিয়েছেন দুজনকেই।

আরও পড়ুনঃ ৩৬০ জন ভারতীয় বন্দীকে মুক্তি দিতে চলেছে পাকিস্তান

কবীর সুমন তাঁর বিস্ফোরক মন্তব্যের জন্য, প্রায়ই শিরোনামে থেকেছেন।। কখনও যাদবপুর এলাকার তৃণমূল প্রার্থী মিমি চক্রবর্তীকে সাপোর্ট করার জন্যে, কখনও আবার আসিফা কে নিয়ে লেখা বিতর্কিত কবিতার জন্যে। এবার দেখার, দেব বা আনিকেত চট্টোপাধ্যায়ের সাথে তার এই বিতর্ক কোথায় গিয়ে থামে। তবে বিতর্কের জেরে নিজের ফেসবুক প্রোফাইল ডি একটিভেট করে দিয়েছেন কবীর সুমন।

আরও পড়ুনঃ ভোটের টিকিট না পেয়ে মোদীকে ছেড়ে রাহুলের হাত ধরলেন বিহারীবাবু

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন