১৫ হাজার টাকার শার্ট পরে প্রচারে কানহাইয়া, বিদ্রুপ নেটিজেনদের

9583
১৫ হাজার টাকার শার্ট পরে প্রচারে কানহাইয়া, বিদ্রুপ নেটিজেনদের/The News বাংলা
১৫ হাজার টাকার শার্ট পরে প্রচারে কানহাইয়া, বিদ্রুপ নেটিজেনদের/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

বিহারের বেগুসরাই লোকসভা কেন্দ্র থেকে সিপিআইয়ের হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন বামপন্থী ছাত্রনেতা কানহাইয়া কুমার। দারিদ্র্য, বঞ্চনা, জাতপাতের বৈষম্য থেকে আজাদীর লক্ষ্যে ভোটে লড়ছেন তিনি। দেশকে নতুন দিশা দেখানোর লক্ষ্যে নতুন ভারত গড়ার সংকল্প তার মনে। সেই কানহাইয়ার পোশাক ঘিরেই এবার বিতর্ক।

স্যোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল একটি ছবিতে তরুন এই বাম ছাত্রনেতাকে ভোট প্রচারে দেখা যাচ্ছে। তার পরণে “রাল্ফ লরেণ” ব্র‍্যান্ডের শার্ট, আর এই শার্টকে ঘিরেই যাবতীয় বিতর্কের সূত্রপাত। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল সেই ছবি ও সমালোচনা। বিজেপির চক্রান্ত, বলেছেন কানাহাইয়া।

আরও পড়ুনঃ মোদীর বিরুদ্ধে লড়তে গিয়ে তথ্য গোপন করায় বাতিল হল তেজ বাহাদুরের মনোনয়ন

কানহাইয়া একটি শার্ট পরে প্রচারে বেরিয়েছেন। বিভিন্ন বিপনন সংস্থায় ওয়েবসাইটে “রাল্ফ লরেণ” ব্র‍্যান্ডের ওই শার্টটির দামও দেখা যাচ্ছে। কম করেও সেটির দাম ১৫ হাজার টাকা। আর এখানেই সমালোচনা করতে ছাড়ছেন না নেটিজেনরা।

সমালোচকদের বক্তব্য, কানহাইয়া কুমার দারিদ্র্যের বিরুদ্ধে লড়াই করছেন। যার বাড়িতে রান্না হয় মাটির উনুনে। ১৫ হাজার টাকার শার্ট পরে প্রচারে বেরোনো সেক্ষেত্রে বিলাসিতা নয় কি? ১৫ হাজার টাকার শার্ট পরে দরিদ্রদের কি বার্তা দিচ্ছেন তিনি? তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই।

আরও পড়ুনঃ মোদী সরকারের বড় সাফল্য, মাসুদ আজাহার আন্তর্জাতিক জঙ্গি ঘোষণা

বামপন্থীরা মেহনতি মানুষের পাশে থাকার বার্তা দিয়ে লড়াই করে। সেখানে কানহাইয়া কি আদৌ সেই আদর্শের পথে চলছেন, প্রশ্ন অনেকের। এত দামি শার্ট তিনি কি করে পরছেন? ভোটে লড়ার টাকাও সে তুলেছে জনগণের কাছে চাঁদা তুলে।

এর আগেও একাধিকবার বিতর্কে জড়িয়েছেন কানহাইয়া। ২০১৬ সালে দিল্লির জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকটি ভিডিও সামনে আসে। এর মধ্যে একটি ভিডিওতে দেখা যায়, কিছু ছাত্র ছাত্রী কাশ্মীরের আজাদির পক্ষে শ্লোগান দিচ্ছে।

আরও পড়ুনঃ মৃত ঘোষণার ৫ বছর পর ভিডিওতে এসে হুমকি দিলেন ইসলামিক স্টেট জঙ্গি প্রধান

শোনা যায় “ভারত তেরে টুকরে হোঙ্গে, ইনশাল্লাহ ইনশাল্লাহ” শ্লোগানও। সেই ঘটনায় অন্যতম অভিযুক্ত ছিলেন কানহাইয়া কুমার। এরপরেই দেশদ্রোহীতার অভিযোগে অভিযুক্ত হিসেবে গ্রেফতার করা হয় কানহাইয়া কুমারকে।

পুলিশি জেরায় যদিও তিনি জানিয়েছিলেন, কাশ্মীরের আজাদি নিয়ে তিনি বলেননি। দেশের বিভিন্ন সামাজিক সমস্যা থেকে আজাদি চান তিনি। সে যাত্রায় মুক্তি পান তিনি।

কিছুদিন আগেই নির্বাচনী প্রচারে বেরিয়ে বিক্ষোভের মুখে পড়েন কানহাইয়া কুমার। তাকে ঘিরে স্থানিয়রা কালো পতাকা দেখিয়ে বিক্ষোভে সামিল হয়। এরপরেই কানহাইয়ার সভায় অংশ নেওয়া সমর্থকদের ক্ষোভ আছড়ে পড়ে বিক্ষোভকারীদের ওপর।

আরও পড়ুনঃ শ্রীলঙ্কার পথে হেঁটে ভারতে বোরখা নিষিদ্ধ করার দাবি জানাল শিবসেনা

কানহাইয়া সমর্থকরা স্থানিয়দের বাড়ি বাড়ি ঢুকে ভাংচুর চালায় এবং বিক্ষোভকারীদের পেটাতে শুরু করে। পুরো ঘটনায় কানহাইয়কে গাড়িতে বসে বিষয়টি পরিচালনা করতে দেখা যায়। স্থানীয় একজন প্রতিবাদ করতে এলে তাকেও ধাক্কা মেরে ফেলে দেয় কানহাইয়া সমর্থকরা।

এরপর পুলিশকে গিয়ে অবস্থার সামাল দিতে হয়। এবার জামা নিয়ে বিতর্কে তিনি। তবে এটাকে বিজেপির চক্রান্ত বলেই জানিয়েছেন কানহাইয়া কুমার। তাঁর জামার এত দাম নয় বলেই জানিয়েছেন তিনি। তবে তাতে থামছে না নেটিজেনদের লড়াই।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন